বিশেষ প্রতিবেদন

রবিবার, ০৩ এপ্রিল, ২০১৬ (১৮:৩৬)

মগবাজার-মৌচাক ফ্লাইওভার নিয়ে সংশয়ে বিশেজ্ঞরা

মগবাজার-মৌচাক ফ্লাইওভার

রাজধানীর মগবাজার-মৌচাক ফ্লাইওভারসহ নির্মিত ফ্লাইওভারগুলোতে পরিকল্পনাগত ত্রুটি ছিল কিনা সে বিষয়টি খতিয়ে দেখতে শিগগিরই কাজ শুরু করছেন এ বিষয়ে গঠিত সংসদীয় উপ কমিটি।

তবে নির্মাণকাজ হওয়ার পরে ত্রুটি খতিয়ে দেখা অপরিণামদর্শীতার পরিচয় বলে মনে করছেন কোনো কোনো বিশেষজ্ঞ। বেশ কিছু ত্রুটি নিয়ে গড়ে ওঠা মগবাজার-মৌচাক ফ্লাইওভার থেকে জনগণ কাঙ্খিত সুবিধা পাবে কিনা সে বিষয়ে সংশয় আছে বলে মনে করছেন তারা।

বিশেষজ্ঞদের মতে পুরোনো নকশা যাচাই বাছাই না করেই নির্মাণকাজে হাত দেয়ায় এসব জটিলতা তৈরি হয়েছে।

এদিকে, প্রকল্প পরিচালক নাজমুল আলম এখনো বলছেন মগবাজার-মৌচাক ফ্লাইওভারে কোনো ত্রুটি নেই।

তবে এ কথাটিই ক্যামেরার সামনে বলতে রাজি হননি এ কর্মকর্তা।

বাম হাতে চালিত গাড়ির কথা মাথায় রেখে ২০০৩ সালে যুক্তরাষ্ট্রের একটি প্রতিষ্ঠান মগবাজার-মৌচাক ফ্লাইওভারের নকশা প্রণয়ন করে। যদিও বাংলাদেশে সবগাড়িই চলে ডান হাতে। ফলে এই ফ্লাইওভারটিতে বামদিকে মোড় নেয়ার ব্যবস্থা থাকলেও ডানদিকে মোড় নেয়ার কোনো ব্যবস্থা নেই। সেইসঙ্গে নামার তুলনায় ওঠার র্যা ম্পটি তুলনামূলক বেশি ঢালু হওয়ার কথা কিন্তু এর ক্ষেত্রে হয়েছে উল্টো। ২০১১ সালে এ ভুল নকশা ধরেই প্রকল্পটি একনেকে পাস করা হয় এবং ২০১৩ সালে শুরু হয় এর নির্মাণকাজ। আর এরপরেই মূলত নকশার গলদ বের হয়ে আসে। ফলে নকশা সংশোধনে বুয়েটের দ্বারস্থ হয় নির্মাণকারী সংস্থা। তবে নির্মাণকাজ শুরু হয়ে যাওয়ায় তাতে খুব বেশি লাভ হয়নি।

গত ৩০ মার্চ এসব ত্রুটি নিয়েই মগবাজার-মৌচাক ফ্লাইওভারের একাংশের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। উদ্বোধনের পরে যানবাহন চলাচলে কিছু জটিলতা দেখা দিলে পরেরদিনই এ ফ্লাইওভারটিসহ ঢাকার অন্যান্য ফ্লাইওভারের পরিকল্পনাগত কোনো ত্রুটি ছিল কিনা সে বিষয়টি খতিয়ে দেখতে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির তিনজন সদস্যকে নিয়ে একটি উপকমিটি গঠন করা হয়েছে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন , নির্মাণকাজ শেষ হওয়ার পর এর ত্রুটি খতিয়ে দেখে আদতে কোনো লাভ হবে না। একটি ফ্লাইওভার নির্মাণে এত পরিকল্পনাগত ত্রুটি থাকায় জনগণ এর সুফল থেকে অনেকাংশেই বঞ্চিত হবেন বলেও মনে করছেন তারা।

এ ফ্লাইওভারটির কারণে প্রকল্প এলাকায় ভবিষ্যতে কোনো উন্নয়ন পরিকল্পনা বাস্তবায়নে বিঘ্ন ঘটবে বলেও মত তাদের – সেইসঙ্গে রাজধানীর ফ্লাইওভার নির্মাণকারী সংস্থাগুলোর মধ্যে সমন্বয় না থাকাও পরিকল্পনাগত ত্রুটির কারণ বলে মনে করেন তারা।

এদিকে, প্রকল্প পরিচালক নাজমুল আলম এখনো বলছেন মগবাজার-মৌচাক ফ্লাইওভারে কোনো ত্রুটি নেই।

তবে এ কথাটিই ক্যামেরার সামনে বলতে রাজি হননি এ কর্মকর্তা।

ইউটিউবে দেশ টেলিভিশনের জনপ্রিয় সব নাটক ও অনুষ্ঠান দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Desh TV YouTube Channel

এছাড়াও রয়েছে

শ্রীলংকায় সাম্প্রদায়িক সহিংসতা নয়, অভ্যন্তরীণ রাজনৈতিক সংকট

অগ্নি-ঝুঁকি: রাজধানী ঘিরে যে মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নের পরামর্শ

নিরাপদ সড়ক প্রতিষ্ঠায় পরিবহন মালিক-চালকদের দায়বদ্ধের তাগিদ

অপরিকল্পিত নগরায়ন, আইন না মানার প্রবণতা সব মিলিয়েই ঝুঁকিতে রাজধানীবাসী

পাট থেকে তৈরি হচ্ছে লেমিনেটেড ব্যাগ-স্লাইবার ক্যানশিট

পাইলটকে ফিরে দেয়া মানেই ভারত-পাকিস্তান উত্তেজনার শেষ নয়

সৌদির সঙ্গে সামরিক সমঝোতা স্মারক চুক্তি পররাষ্ট্রনীতির পরিপন্থি

শেখ হাসিনা বিকল্পহীন, বললেন বিশ্লেষকরা

সর্বশেষ খবর

কাশ্মীর সীমান্তে পাকিস্তানি সেনাদের গুলিতে ভারতীয় সেনা নিহত

২২ আগস্ট গ্রুপ চ্যাট বন্ধ করে দিচ্ছে ফেসবুক

ফিরতি হজ ফ্লাইট শুরু আজ

ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জয়শঙ্কর আসছেন মঙ্গলবার