বিশেষ প্রতিবেদন

বৃহস্পতিবার, ১৭ মার্চ, ২০১৬ (১০:১২)

ধানমণ্ডির ৩২ নম্বরের বাড়ি ও সুধাসদন

ধানমণ্ডির ৩২ নম্বরের বাড়ি

একটি বাড়ি, একটি ইতিহাস— ধানমণ্ডির ৩২ নম্বরের সেই বাড়ি। যার প্রতিটি গাঁথুনিতে বাংলাদেশ সৃষ্টির নেপথ্যের ইতিহাস। পাকিস্তানের শাসন, শোষন আর নীপিড়নের বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিবাদের প্রতীক এ বাড়ি। এখান থেকেই বাঙালিকে তার মুক্তির জন্য জীবন বাজি ধরতে শিখিয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু—আসে স্বাধীনতার ঘোষণা।

পঁচাত্তরের ১৫ আগস্ট ঘাতকের বুলেটে ধানমণ্ডির ৩২ নম্বরের বাড়িতেই শাহাদাত বরণ করেন বঙ্গবন্ধু।

রাজনীতি কখনো সুস্থির থাকতে দেয়নি বঙ্গবন্ধুর পরিবারকে—আজ মন্ত্রীর বাসভবন তো কাল ভাড়াটিয়া। ঢাকাতে স্থায়ী কোন বাসস্থান না থাকায় পঞ্চাশের দশকে বারবার বাসা বদল করে কেটেছে পরিবারটির। ১৯৫৭ সালে ধানমণ্ডি এলাকায় প্লট বরাদ্দ দেয়া হচ্ছিল পিডব্লিউডি থেকে।

বঙ্গবন্ধুর পিএস নুরুজ্জামান একটি আবেদন ফরম শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের নামে পূরণ করে জমা দেন। এক বিঘার এ প্লটটির দাম ছিল তখন ৬ হাজার টাকা। ধানমণ্ডির ৩২ নম্বর বাড়িটির এই ইতিহাস একটি বইয়ে তুলে ধরেছেন প্রবাসী লেখক নজরুল ইসলাম।

১৯৬১’র পহেলা অক্টোবর পরিবার-পরিজন নিয়ে ধানমণ্ডির ৩২ নম্বরের বাড়িতে প্রথম ওঠেন বঙ্গবন্ধু। এরপর থেকে বাংলাদেশের অভ্যুদয়ের নানা ঘাত-প্রতিঘাত, আইয়ুবের সামরিক চোখ রাঙানোর দিনগুলোতে বঙ্গবন্ধুর গর্জে ওঠা, বাঙালিকে স্বাধীনতার মন্ত্রে দীক্ষিত করে তোলা- বাঙালির মুক্তির প্রতিটি আন্দোলন সংগ্রামের নেপথ্যের সাক্ষী ধানমণ্ডির ৩২ নম্বরের বাড়ি।

কখনো দলীয় নেতাকর্মী, কখনো বা ছাত্রনেতা-এ বাড়িতেই গোপন সব সভা করতেন শেখ মুজিব, দিতেন পরবর্তী দিক-নির্দেশনা।

একাত্তরের উত্তাল মার্চের ৭ তারিখের দুপুরে ঐতিহাসিক ভাষণ দিতে এ বাড়ি থেকেই বের হন বঙ্গবন্ধু। এ বাড়ির বারান্দা থেকেই ২৩ মার্চের বিকেলে স্বাধীন বাংলার পতাকা ওড়ান তিনি।

আন্দোলন-সংগ্রামের ধারাবাহিকতায় ২৬ মার্চের প্রথম প্রহরে এ বাড়ি থেকেই স্বাধীনতার ঘোষণা দেন শেখ মুজিব। এরপরই পাকিস্তানি হানাদাররা বঙ্গবন্ধুকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে যায়। মুক্ত স্বাধীন দেশে এ বাড়িতেই ঘাতকের বুলেটে সপরিবারের নিহত হন জাতির জনক।

১৯৮১ সালে এ বাড়িটির মালিকানা বুঝে পান শেখ হাসিনা। এরপর তিনি বাড়িটি দেখভালের জন্য একটি ট্রাস্টি বোর্ড গঠন করেন। ১৯৯৪ সাল থেকে এটি বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর হিসেবে পরিচালিত হয়ে আসছে।

এ বাড়িটিকে নিয়ে লেখা ‘৩২ নম্বরের বাড়ি ও সুধাসদন—যে ইতিহাস সবার জানা দরকার’ নামে বইটি বঙ্গবন্ধুর ৯৭তম জন্মদিনে প্রকাশিত হয়েছে, সুবর্ণ প্রকাশনা থেকে।

ইউটিউবে দেশ টেলিভিশনের জনপ্রিয় সব নাটক ও অনুষ্ঠান দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Desh TV YouTube Channel

এছাড়াও রয়েছে

শ্রীলংকায় সাম্প্রদায়িক সহিংসতা নয়, অভ্যন্তরীণ রাজনৈতিক সংকট

অগ্নি-ঝুঁকি: রাজধানী ঘিরে যে মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নের পরামর্শ

নিরাপদ সড়ক প্রতিষ্ঠায় পরিবহন মালিক-চালকদের দায়বদ্ধের তাগিদ

অপরিকল্পিত নগরায়ন, আইন না মানার প্রবণতা সব মিলিয়েই ঝুঁকিতে রাজধানীবাসী

পাট থেকে তৈরি হচ্ছে লেমিনেটেড ব্যাগ-স্লাইবার ক্যানশিট

পাইলটকে ফিরে দেয়া মানেই ভারত-পাকিস্তান উত্তেজনার শেষ নয়

সৌদির সঙ্গে সামরিক সমঝোতা স্মারক চুক্তি পররাষ্ট্রনীতির পরিপন্থি

শেখ হাসিনা বিকল্পহীন, বললেন বিশ্লেষকরা

সর্বশেষ খবর

বন্দরে গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যা, স্বামী গ্রেপ্তার

পদত্যাগের ঘোষণা ইতালি প্রধানমন্ত্রীর

আর্জেন্টিনা দলে নেই মেসি

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে গুরুত্ব দেবে ভারত: জয়শঙ্কর