বিশেষ প্রতিবেদন

শুক্রবার, ২৯ জানুয়ারী, ২০১৬ (১৩:৫২)

পর্যটনের সবচেয়ে বড় আকর্ষণ সুন্দরবন

সুন্দরবন

দেশের পর্যটন স্থানগুলোর উন্নয়নের জন্য ২০১৬ সালকে পর্যটন বর্ষ হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে।

বাংলাদেশে পর্যটনের সবচেয়ে বড় আকর্ষণ সুন্দরবন। তবে বিভিন্ন কারণে সুন্দরবনও হারাতে বসেছে তার নিজস্বতা। বনএলাকা সংকুচিত হয়ে পড়ছে। মূল আকর্ষণ রয়েল বেঙ্গল টাইগারের সংখ্যাও কমছে।

বিশ্ব ঐতিহ্য সুন্দরবনের সৌন্দর্যরাশি ছড়িয়ে আছে দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের বিশাল এলাকাজুড়ে। ম্যানগ্রোভ বন আর বিশ্বখ্যাত রয়েল বেঙ্গল টাইগার সুন্দরবনের আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দুতে থাকলেও গভীর বন আর গাড় সবুজের এ সমারোহে চোখ খুললেই দেখা মিলবে চিত্রল হরিণসহ বিভিন্ন জীবজন্তু, পাখ-পাখালি আর কীট-পতঙ্গের সঙ্গে গোলপাতা, গাছ-গাছালি ও নানা উদ্ভিদের প্রাণবৈচিত্র।

বঙ্গোপসাগর থেকে ছুটে আসা জলভেজা লবণাক্ত বাতাসে এ সৌন্দর্যে আছে ভয় মেশানো এক শিহরণ। প্রকৃতির এক অকৃপণ সৃষ্টি।

তবে হরমামেশাই প্রশ্ন ওঠে সেই সুন্দরবন কী আর আছে? কখনো প্রাকৃতিক বিপর্যয়, কখনো মানবসৃষ্ট দুর্যোগও লুট করে নিচ্ছে এর নিজস্বতা।

২০০৭ সালে সিডর ও ২০০৯ সালে আইলার আঘাতে অনেক ঝড় গেছে সুন্দরবনের ওপর দিয়ে। সংকট সৃষ্টি করেছে সুন্দরবনের ভেতর দিয়ে নৌ-চ্যানেল চালু হওয়ায়। ভবিষ্যতের উদ্বেগ রামপালে নির্মিতব্য

কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎপ্রকল্প— এর পাশাপাশি জলদস্যুদের উৎপাত, চোরাকারবার আর চোরা শিকারিদের তৎপরতা ও গাছপালা কেটে উজাড় হওয়ায় সংকুচিত হয়ে যাচ্ছে সুন্দরবন।

২০০ বছর আগে মূল সুন্দরবনের বিস্তৃতি ছিল প্রায় ১৬ হাজার ৭০০ বর্গকিলোমিটার। সংকুচিত হতে হতে বর্তমানে আয়তন এসে দাঁড়িয়েছে প্রায় ১০ হাজার বর্গকিলোমিটারে। এর মধ্যে ৫ হাজার ৮০০ বর্গকিলোমিটার নিয়ে বাংলাদেশের সুন্দরবন।

এ অবস্থায় এবার বছরজুড়ে পর্যটনবর্ষ কী বার্তা দেবে সুন্দরবন সম্পর্কে? বন উজাড় ও প্রাকৃতিক ভারসাম্য নষ্ট হতে থাকায় বাঘের অস্তিত্বও আজ হুমকির মুখে। কয়েক বছর আগে সুন্দরবনে চারশ বাঘ আছে বলা হলেও বর্তমানে সে সংখ্যা একশোর বেশি নয় বলেই জানানো হয়।

তাই বলে বন্ধ হয় না পর্যটকদের ছুটে আসা। ২০১৩ সালে সুন্দরবনে দেশি-বিদেশি মিলিয়ে পর্যটক আসেন এক লাখ ৫৫ হাজার ৩১৭ জন। ২০১৪ সালে এক লাখ ৫৪০ জন। আর ২০১৫ সালে এক লাখ ৮১৭ জন।

পর্যটকদের অভিযোগ, সুন্দরবনে ঘুরে বেড়ানো ও থাকার সুব্যবস্থা নেই। পর্যটন বর্ষে সরকারের নজর সেদিকেই।

সুন্দরবনকে ইকো ট্যুরিজমের আওতায় আনার পরিকল্পনার কথা জানিয়ে পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন বলেন, সুন্দরবনের দর্শনীয় স্থানগুলোয় একসঙ্গে কতজন পর্যটক যেতে পারবেন তার সংখ্যা নির্ধারণের কাজও চলছে।

ইউটিউবে দেশ টেলিভিশনের জনপ্রিয় সব নাটক ও অনুষ্ঠান দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Desh TV YouTube Channel

এছাড়াও রয়েছে

শ্রীলংকায় সাম্প্রদায়িক সহিংসতা নয়, অভ্যন্তরীণ রাজনৈতিক সংকট

অগ্নি-ঝুঁকি: রাজধানী ঘিরে যে মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নের পরামর্শ

নিরাপদ সড়ক প্রতিষ্ঠায় পরিবহন মালিক-চালকদের দায়বদ্ধের তাগিদ

অপরিকল্পিত নগরায়ন, আইন না মানার প্রবণতা সব মিলিয়েই ঝুঁকিতে রাজধানীবাসী

পাট থেকে তৈরি হচ্ছে লেমিনেটেড ব্যাগ-স্লাইবার ক্যানশিট

পাইলটকে ফিরে দেয়া মানেই ভারত-পাকিস্তান উত্তেজনার শেষ নয়

সৌদির সঙ্গে সামরিক সমঝোতা স্মারক চুক্তি পররাষ্ট্রনীতির পরিপন্থি

শেখ হাসিনা বিকল্পহীন, বললেন বিশ্লেষকরা

সর্বশেষ খবর

বিদেশগামী জনগণের সাথে প্রতারণা ঠেকাতে নজরদারি জোরদারের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

আমিরাতের সর্বোচ্চ সম্মাননায় ভূষিত হলেন নরেন্দ্র মোদি

আসছে Matrix এর নতুন পর্ব

আইভি রহমান স্মরণে মিলাদে ও দোয়া মাহফিলে প্রধানমন্ত্রী