বিশেষ প্রতিবেদন

সোমবার, ০২ মার্চ, ২০১৫ (১৯:২২)

হামলার ধরণ পাল্টাচ্ছে নাশকতাকারীরা

দেশ টিভির গাড়িতে আগুন

বিএনপি-জামাতের নেতৃত্বাধীন ২০ দলের অবরোধ-হরতালে জনসাড়া না মেলায় নাশকতায় জড়িত ক্যাডাররা পাল্টাচ্ছে তাদের হামলার ধরন। এলাকা টার্গেট করে রাজপথে জনারণ্যে মিশে গিয়ে প্রশিক্ষিত ক্যাডার গ্রুপ ককটেল-বোমাবাজির পর গাড়ি ভাঙচুর করে পেট্রোল ঢেলে আগুন দিচ্ছে।

দেশ টিভি ভবনের সামনের ঘটনাসহ তিন দিনে বিভিন্ন এলাকায় এরকমভাবে অর্ধশত গাড়ি ভাঙচুর ও আগুন দেয়ার ঘটনা ঘটেছে। তাদের ঢাল-সরঞ্জাম ছিলো লাঠি-রড, পেট্রোল ও বিস্ফোরক। ব্যবহার করে ক্রিকেট স্ট্যাম্প। পোশাকে ছিল ফিটফাট। পুলিশ বলছে, ছবি ও ফুটেজ দেখে তারা সন্ত্রাসীদের শনাক্ত করার চেষ্টা করছেন।

২০ দলের ডাকা অবরোধের ৫৬তম দিনে সপ্তমবারের মতো ৭২ ঘণ্টার হরতাল চলছে। কিন্তু এ হরতাল-আবরোধে জনগণের সাড়া নেই। বেপরোয়া নাশকতাকারীরা পাল্টেছে তাদের আক্রমণের ধরন।

অবরোধের শুরুতে তারা মোটরসাইকেলে করে পেট্রোল বোমা ছুড়ে মানুষ পুড়িয়ে মেরেছে। গত ফ্রেব্রুয়ারি রাজধানীর কাজীপাড়া এলাকায় নাশকতাকারীরা এমনিভাবে বাসে পেট্রোল বোমা ছুঁড়ে মারলে ১২ জন দগ্ধ হন।

এখন তারা পথচারীর বেশে জনারণ্যে মিশে গিয়ে ছোট ছোট গ্রুপে ভাগ হয়ে স্পট বাছাই করে হামলা চালিয়ে মুহূর্তেই পালিয়ে যাচ্ছে।

গত শনিবার দেশ টিভির সামনের সড়কে তারা আগে থেকে অবস্থান নিয়ে গাড়ি ভাঙচুর করে। আগে থেকে সাধারণ বাজারের ব্যাগে রাখা পেট্রোল গাড়িতে ঢেলে আগুন ধরিয়ে ককটেল ফাটিয়ে ঝটিকাগতিতে পালিয়ে যায়।

রোববারও তারা বনশ্রী, নিউমার্কেট, বংশাল ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এফ রহমান হলে ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায়। আহত হয় ৭ জন।

সোমবার গুলশান, বিজয়নগর ও হাতিরঝিলে প্রায় একই কায়দায় গাড়ি ভাঙচুর পেট্রোল ঢেলে গাড়িতে আগুন ও ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটিয়েছে ক্যাডারা।

বিশেষ করে শনিবার দেশ টিভির সামনের সড়কে যেভাবে হামলা চালানো হয়েছে একই কায়দায় গুলশান নিকেতন- এক নম্বর গেটের কাছে হাতিরঝিলে ১৫/২০ জন তরুণ, সোমবার সকালে ক্রিকেট স্ট্যাম্প ব্যবহার করে গাড়ি ভাঙচুর, পেট্রোল ঢেলে গাড়িতে আগুন ও পরে ককটেল ফাটিয়ে ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে মুহূর্তেই পালিয়ে যায়। পুরো কাজে তারা ১০ মিনিটের বেশি সময় নেয়নি।

ডিএমপি মুখপাত্র মনিরুল ইসলাম বলেন, নাশকতঅকারীদের আক্রমণের এই ধরন নিয়ে ওয়াকিবহাল রয়েছেন। ছবি ও ফুটেজ দেখে অপরাধীদের শনাক্তের চেষ্টা চলছে।

তবে এমন আক্রমনের ঘটানো ঠেকাতে পুলিশের তৎপরতায় কোনো ধরনের অবহেলা রয়েছে কি না, তা-ও খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানান, পুলিশে এই কর্মকর্ত।

তবে, ভিডিও ফুটেজ বা ছবি দেখে গত তিন দিনের ঘটনায় জড়িত কাউকেই পুলিশ এখন পর্যন্ত গ্রেপ্তার করতে পারেনি।

ইউটিউবে দেশ টেলিভিশনের জনপ্রিয় সব নাটক ও অনুষ্ঠান দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Desh TV YouTube Channel

এছাড়াও রয়েছে

শ্রীলংকায় সাম্প্রদায়িক সহিংসতা নয়, অভ্যন্তরীণ রাজনৈতিক সংকট

অগ্নি-ঝুঁকি: রাজধানী ঘিরে যে মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নের পরামর্শ

নিরাপদ সড়ক প্রতিষ্ঠায় পরিবহন মালিক-চালকদের দায়বদ্ধের তাগিদ

অপরিকল্পিত নগরায়ন, আইন না মানার প্রবণতা সব মিলিয়েই ঝুঁকিতে রাজধানীবাসী

পাট থেকে তৈরি হচ্ছে লেমিনেটেড ব্যাগ-স্লাইবার ক্যানশিট

পাইলটকে ফিরে দেয়া মানেই ভারত-পাকিস্তান উত্তেজনার শেষ নয়

সৌদির সঙ্গে সামরিক সমঝোতা স্মারক চুক্তি পররাষ্ট্রনীতির পরিপন্থি

শেখ হাসিনা বিকল্পহীন, বললেন বিশ্লেষকরা

সর্বশেষ খবর

খালেদার মুক্তির দাবিতে আজ বিএনপির বিক্ষোভ কর্মসূচি

এসএ গেমসে পদক জয়ীদের গণভবনে আমন্ত্রণ

আশুলিয়ায় গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে শ্রমিক নিহত

তুমুল বিতর্কের মধ্যেই ভারতে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল পাস