বিশেষ প্রতিবেদন

শুক্রবার, ০৯ জানুয়ারী, ২০১৫ (১৮:২৮)

রাষ্ট্রীয় দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে মৃত্যু

জোবায়দুল হক

দশম জাতীয় নির্বাচনে রাষ্ট্রীয় দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে বিএনপি-জামাত দূর্বৃত্তদের হামলায় নিহত হন ঠাকুরগাঁও সালন্দর ডিগ্রি মহাবিদ্যালয়ের পরিদর্শক জোবায়দুল হক। নাশকতা হতে পারে এমন আশঙ্কায় অনেকেই ভোটকেন্দ্রে দায়িত্ব পালন করতে তাকে নিষেধ করেছিলেন।

তবে রাষ্ট্রীয় দায়িত্ব এড়ানো ঠিক নয় এমনটি জানিয়ে তিনি নির্বাচনের আগের দিনই ভোট কেন্দ্রে যান। নাশকতার আশঙ্কায় অনেকেই ভোট কেন্দ্রে দায়িত্ব পালন থেকে সরে দাঁড়ালেও পিছু হটেননি জোবায়দুল হক। সেই দায়িত্ব পালন করতে গিয়েই বিএনপি-জামাতের হামলার শিকার হন তিনি।

এ ঘটনায় ১২৪ জনকে আসামি করে মামলা করেন কনস্টেবল জাহিরুল। এ মামলায় ১৪ জনকে গ্রেপ্তার হলেও সবাই জামিনে আছেন।

পুলিশ ও স্থানীয়দের মতে, ভোটকেন্দ্রে পেট্রলবোমা নিক্ষেপের পর বিএনপি-জামাতের কর্মীরা ভোট গ্রহণের কাজে নিয়োজিত লোকজনের ওপর হামলা চালান। হামলায় জোবায়দুল হক ও ২ জন পুলিশ কনস্টেবল আহত হন। খবর পেয়ে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ঘটনাস্থলে পৌঁছে তাঁদের উদ্ধার করে ঠাকুরগাঁও সদর হাসপাতালে পাঠায়। সেখানে কর্মরত চিকিৎসক জোবায়দুল হককে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

কেন্দ্রে দায়িত্বে থাকা আনসার-ভিডিপির গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর ইউনিয়ন প্রধান রেহেনা বেগম বলেন, ‘হামলার সময় স্যার ভোটের ব্যালট ও কাগজপত্র কিছুতেই হামলাকারীদের হাতে দিতে চাচ্ছিলেন না। কাগজগুলো বুকে চেপে ধরেছিলেন।’

জোবায়দুলের ছোট ভাই জিয়াউল হক বলেন, শনিবার বেলা সাড়ে তিনটার দিকে মা-বাবার কাছে বিদায় নিয়ে ভোটকেন্দ্রে চলে যান। রাত ১১টার দিকে খবর আসে তিনি মারা গেছেন।

তিনি আরো বলেন, জোবায়দুলের স্ত্রী, এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছেন। ঘটনার পর থেকেই স্ত্রী অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। মেয়ে রেজওয়ানা হক দুই সন্তানের মা। আর ছেলে রকিবুল হক বেসরকারি একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ছেন।

সালন্দর ডিগ্রি মহাবিদ্যালয়ের শিক্ষক আফজাল হোসেন বলেন, ‘জোবায়দুল ভাই ভদ্র ও বিনয়ী মানুষ ছিলেন। সব সময় তিনি নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করতেন। আর দায়িত্ব পালন করতে গিয়েই তাঁর মৃত্যু হলো। একজন ভালো মানুষকে এভাবে মরতে হবে কখনো ভাবিনি।’

এদিকে, জোবায়দুল মারা যাবার পর প্রধানমন্ত্রী জোবায়দুলের স্ত্রীকে ২০ লাখ টাকার সঞ্চয়পত্র দিয়েছেন আর নির্বাচন কমিশন দেয় সাড়ে ৫ লাখ টাকা।

এছাড়াও রয়েছে

শ্রীলংকায় সাম্প্রদায়িক সহিংসতা নয়, অভ্যন্তরীণ রাজনৈতিক সংকট

অগ্নি-ঝুঁকি: রাজধানী ঘিরে যে মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নের পরামর্শ

নিরাপদ সড়ক প্রতিষ্ঠায় পরিবহন মালিক-চালকদের দায়বদ্ধের তাগিদ

অপরিকল্পিত নগরায়ন, আইন না মানার প্রবণতা সব মিলিয়েই ঝুঁকিতে রাজধানীবাসী

পাট থেকে তৈরি হচ্ছে লেমিনেটেড ব্যাগ-স্লাইবার ক্যানশিট

পাইলটকে ফিরে দেয়া মানেই ভারত-পাকিস্তান উত্তেজনার শেষ নয়

সৌদির সঙ্গে সামরিক সমঝোতা স্মারক চুক্তি পররাষ্ট্রনীতির পরিপন্থি

শেখ হাসিনা বিকল্পহীন, বললেন বিশ্লেষকরা

আরও খবর

  • ড্রাগ চ্যাট আমার, এনসিবিতে স্বীকার করলেন দীপিকা

    ড্রাগ চ্যাট আমার, এনসিবিতে স্বীকার করলেন দীপিকা

  • প্রধানমন্ত্রী আজ জাতিসংঘ অধিবেশনে ভাষণ দেবেন

    প্রধানমন্ত্রী আজ জাতিসংঘ অধিবেশনে ভাষণ দেবেন

  • পাকিস্তান সফরে কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে না জিম্বাবুয়েকে

    পাকিস্তান সফরে কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে না জিম্বাবুয়েকে

  • ক্রেডিট কার্ডের সর্বোচ্চ সুদ নির্ধারণ করল কেন্দ্রীয় ব্যাংক

    ক্রেডিট কার্ডের সর্বোচ্চ সুদ নির্ধারণ করল কেন্দ্রীয় ব্যাংক

সর্বশেষ খবর

এমসি কলেজে গৃহবধূকে গণধর্ষণ: আসামি সাইফুর রহমান গ্রেপ্তার

সিলেটে গণধর্ষণ মামলার আরেক আসামি অর্জুন গ্রেফতার

করোনায় মৃতের সংখ্যা ১০ লাখ ছুঁইছুঁই

বাফুফেকে নিয়ে অপমানজনক পোস্ট দিলে মামলা