বিশেষ প্রতিবেদন

রবিবার, ০৩ আগস্ট, ২০১৪ (১৬:৩৯)

শান্তিপূর্ণ আন্দোলনেই বিএনপির অঙ্গীকারাবদ্ধ

বিএনপি

ভাঙচুর, জ্বালাও-পোড়াও কিংবা নাশকতা নয় জনসমর্থন আদায়ে শান্তিপূর্ণ আন্দোলনই করতে চায় বিএনপি কারণ সরকারদলীয় লোকজন এবারো নাশকতা চালিয়ে তার দায় বিএনপির ওপর চাপানোর চেষ্টা করতে পারে। দেশ টিভিকে দেয়া একান্ত সাক্ষাতকারে দলের সহযোগী শীর্ষ নেতারা এসব কথা বলেন।

দলের সহযোগী সংগঠনগুলোর নেতারা বলেন, জনমনে ভীতি সঞ্চার নয়, তারা প্রশাসনের ভিত নাড়িয়ে দিতে আন্দোলনে নামবেন। বিএনপির শীর্ষ পর্যায় থেকে আন্দোলনের ধরন কেমন হবে এরইমধ্যে সে বিষয়টি স্পষ্ট করা হয়েছে।

এর আগে ঢাকা মহানগর বিএনপির ইফতারে অংশ নিয়ে দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া বলেন, আন্দোলন হবে শান্তিপূর্ণ ও জনসম্পৃক্ত। তবে বাধা আসলে তা প্রতিহতের হুঁশিয়ারিও দেন তিনি।

খালেদা জিয়া বলেন, ‘আমরা শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি পালন করবো। পুলিশ দিয়ে বাঁধা সৃষ্টি করলে পাল্টা জবাব দেয়ার জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে। এছাড়া, আর আমাদের কোনো পথ খোলা থাকবে না।’

আন্দোলন সফল করতে যুবদেলের সভাপতি মোয়াজ্জেম আলাল বলেন, হিংসাত্মক কোনো কর্মকাণ্ড চালাবেন না তারা। তবে হয়রানির শিকার হলে প্রতিরোধ গড়ে তোলা হবে।

তিনি বলেন, ‘মানুষের মনের ওপর বিরোধীদলের ভীতি সঞ্চার হয় এমন কিছু করা হবে না। তবে সরকারের প্রশাসনের ভিতরে ভীতের সঞ্চার হয় এমন কাজ করা হবে। অতি উৎসায়ী অফিসাররা সরকারের প্রশয়ে এমন হয়েছে, কন্টাকে টাকা নিয়ে মানুষ খুনের মহোৎসবে মেতে উঠেছে। সুতরাং তারা যদি এরকম গণবিরোধী কর্মকাণ্ডে সম্পৃক্ত হয় সেখানে জনগণের মাধ্যমে তাদের প্রতিহত করা হবে। আন্দোলনে কোনো বীভৎসা বা সাপোর্ট সরকারের পক্ষে থেকে করা হলে সেজন্য সরকার ও তার এজেন্সিগুলো দায়ী থাকবে। আমাদের কর্মসূচির মধ্যে কোনো হিংসাত্বক কিছু থাকবে না।’

ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রশীদ হাবিব বলেন, আওয়ামী লীগ আমাদের আন্দোলন মাঠে প্রতিহত করতে পারে না। আমাদের প্রতিহত করার মতো সাংগঠনিক ক্ষমতা তাদের নেই। আমাদের আন্দোলন সংগ্রাম করতে হচ্ছে প্রশাসনের বিরুদ্ধে। এ সরকার ভুল করে আমাদের সহযোদ্ধাদের পঙ্গু করেছে, যেসব সহযোদ্ধারা শাহাদাত বরণ করেছেন তাদের রক্তের কাছে আমরা দায়বদ্ধ। সুতরাং তাদের রক্তের ঋণ শোধ করতে হবে। তাদের রক্তের ঋণ হচ্ছে বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক অধিকার ফিরিয়ে আনা।

সদ্য দায়িত্বপ্রাপ্ত ঢাকা মহানগরের সদস্য সচিব ও স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি হাবিবুন্নবী খান সোহেলও বলেন, সরকারের সবধরনের অপতৎপরতা সম্পর্কে সজাগ দৃষ্টি রাখা হবে।

তিনি বলেন, ‘অতীতে আমাদের যে আন্দোলন সেই আন্দোলন ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার জন্য সরকার নানাভাবে ষড়যন্ত্র করেছে এবং তারা আগামীতেও করতে পারে। নারা অপকর্ম করে আমাদের ওপর দায় দিতে পারে। দাবি থেকেই জনগণের আন্দোলন থেকে বিচ্যুতি করা যাবে না।’

ইউটিউবে দেশ টেলিভিশনের জনপ্রিয় সব নাটক ও অনুষ্ঠান দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Desh TV YouTube Channel

এছাড়াও রয়েছে

শ্রীলংকায় সাম্প্রদায়িক সহিংসতা নয়, অভ্যন্তরীণ রাজনৈতিক সংকট

অগ্নি-ঝুঁকি: রাজধানী ঘিরে যে মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নের পরামর্শ

নিরাপদ সড়ক প্রতিষ্ঠায় পরিবহন মালিক-চালকদের দায়বদ্ধের তাগিদ

অপরিকল্পিত নগরায়ন, আইন না মানার প্রবণতা সব মিলিয়েই ঝুঁকিতে রাজধানীবাসী

পাট থেকে তৈরি হচ্ছে লেমিনেটেড ব্যাগ-স্লাইবার ক্যানশিট

পাইলটকে ফিরে দেয়া মানেই ভারত-পাকিস্তান উত্তেজনার শেষ নয়

সৌদির সঙ্গে সামরিক সমঝোতা স্মারক চুক্তি পররাষ্ট্রনীতির পরিপন্থি

শেখ হাসিনা বিকল্পহীন, বললেন বিশ্লেষকরা

সর্বশেষ খবর

বঙ্গবন্ধু বিপিএলের জমকালো উদ্বোধন আজ, প্রস্তুত মিরপুর স্টেডিয়াম

দশজনের দল নিয়েও জিতল রিয়াল

কেনিয়ায় বাসে বন্দুক হামলা, নিহত ১০

সাতক্ষীরায় স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যার পর স্বামীর আত্মহত্যা