সোনালী মেঘের ভেলা

ধারাবাহিক নাটক

রবি থেকে বৃহস্পতি রাত ১০টা ৩০ মিনিটে

রচনা: এম. আসলাম লিটন

পরিচালনা: তৌহিদ খান বিপ্লব ও মনিরুজ্জামান লিপন

অভিনয়ে: উর্মিলা শ্রাবন্তী কর, আরমান পারভেজ মুরাদ, দীপা খন্দকার, ওয়াহিদা মল্লিক জলি, মাসুদ আলি খান, তানিয়া হোসাইন, দিহান, শাহাদাত হোসেন, তৃপ্তি চক্রবর্তী, সারা যাকের

মধ্যবিত্ত পরিবারের শিক্ষিত মেয়ে অনন্যা। নিজেকে আত্মনির্ভরশীল করে গড়ে তুলতে চায়। কিন্তু বড়ভাই সাব্বীর তার বিয়ে দিয়ে দিতে চায়। অনন্যা ঠিক করে নিজের পায়ে দাঁড়ানোর আগে বিয়ে করবে না। সে লেখাপড়া শেষ করে হাত খরচের টাকার জন্য টিউশনি করছে আর চাকরি খুঁজছে। শ্রাবণীর হাজবেন্ড সাব্বীর উচ্চ শিক্ষা এবং প্রাইভেট ব্যাঙ্কে ভাল চাকরি করা সত্বেও ভীষণরকম রক্ষনশীল স্বভাবের। সন্দেহ, পশ্চাদপদ ভাবনা সবসময় জড়িয়ে থাকে তাকে। সে কিছুতেই অনন্যাকে চাকরি করতে দেবে না। অনন্যাও দমে থাকবার পাত্র নয়।
অনন্যাকে দেখে উৎসাহিত হয় ভাবী শ্রাবণী। শ্রাবণীও আত্ম-নির্ভরশীল হতে চায়। কেননা তাদের ছয় বছরের বিবাহিত জীবনে এখনো কোন সন্তান আসেনি। পরীক্ষায় জানা গেছে সাব্বীর সন্তান জন্ম দেয়ায় অক্ষম। শ্রাবণী তাই বাকি জীবনের অবলম্বন এখন থেকেই তৈরি করতে চায়।

শুরু হয় অশান্তি। শুরু হয় দুই নারীর সামনে এগিয়ে যাওয়ার লড়াই। এ লড়াই আরো তীব্র হয়ে ওঠে যখন অভিনেত্রী  বান্ধবী নওশিনের সহযোগিতায় অনন্যা টিভি সিরিয়ালে এ্যাকটিংএর অফার পায়, অপর দিকে শ্রাবণী পায় বাইং হাউজের চাকরি। অবসরপ্রাপ্ত বাবা মেয়ে ও পুত্রবধুর প্রতি পূর্ণ সমর্থন রয়েছে। কিন্তু মা দোদুল্যমান। পুরনো ধ্যান ধারণার সাথে আধুনিক চিন্তাভাবনার যুক্তি তাকে একেক সময় একে ভাবনায় ফেলে।

একদিকে নিজের বোনের অভিনয়কে পেশা হিসেবে নেয়া আর স্ত্রী শ্রাবণীর বায়িং হাউজে চাকরি নেয়া অন্যদিকে সন্তান জন্ম দেয়ার অক্ষমতা সব মিলিয়ে সাব্বীর দিশেহারা হয়ে ওঠে। তার মনে সন্দেহ প্রবণতাও দেখা দেয়।

অন্যদিকে মিডিয়ায় কাজ করতে এসে ভাল-মন্দ সবকিছুর সম্মুখিন হয় অনন্যা। নতুন অভিজ্ঞতা, নতুন জগত সামনে এসে দাঁড়ায়। সচেতন কৌশলে সবকিছুকে সামলে নেয় সে। শ্রাবণীর সামনেও উপস্থিত হয় বাইং হাউজের কাজের প্রায় একইরকম বাস্তবতা। ঘরে এবং বাইরের নানা প্রতিবন্ধকতাকে সামলে দুই নারী নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করার লড়াইয়ে লিপ্ত হয়। এগিয়ে চলে সামনে।

মুলত কুসংস্কার, বাধা ও বিপত্তিকে পদদলিত করে দুই নারীর এগিয়ে যাওয়ার গল্প ‘সোনালী মেঘের ভেলা’। পাশাপশি জীবন-সংসারের হাসি-কান্না, দুঃখ-বেদনা, প্রেম-ভালবাসা এবং বন্ধনের পারিবারিক গল্পও সোনালী মেঘের ভেলার অন্যতম অলংকরণ।

আরও খবর

  • শুরু হচ্ছে অ্যাভাটার টু সিনেমার শুটিং

    শুরু হচ্ছে অ্যাভাটার টু সিনেমার শুটিং

  • চীনা করোনা মেডিকেল টিম ঢাকায় আসছে ৮ জুন

    চীনা করোনা মেডিকেল টিম ঢাকায় আসছে ৮ জুন

  • লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশি হত্যার মূলহোতা আল-মিশাই নিহত

    লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশি হত্যার মূলহোতা আল-মিশাই নিহত

  • করোনায় পাকিস্তানের প্রাদেশিক মন্ত্রীর মৃত্যু

    করোনায় পাকিস্তানের প্রাদেশিক মন্ত্রীর মৃত্যু