জাতীয়

বাবার মতোই ইতিহাসের পাতায় অধ্যাপক জামিলুর চৌধুরী

  •  আবিদ রেজা-অধ্যাপক জামিলুর রেজা চৌধুরী( ছবি বাঁ দিক থেকে)
    আবিদ রেজা-অধ্যাপক জামিলুর রেজা চৌধুরী( ছবি বাঁ দিক থেকে)
  •  আবিদ রেজা-অধ্যাপক জামিলুর রেজা চৌধুরী( ছবি বাঁ দিক থেকে)
    আবিদ রেজা-অধ্যাপক জামিলুর রেজা চৌধুরী( ছবি বাঁ দিক থেকে)

যারা সিলেট হয়ে মেঘালয় বেড়াতে যান তারা ডাউকি সেতু পার হন। যারা জাফলং জিরো পয়েন্ট ঘুরতে যান, তারা সেখানে ভারতের একটি ঝুলন্ত সেতু দেখতে পান। এই সেতুটি নির্মিত হয়েছিল ১৯৩২ সালে। সেতু নির্মাণে প্রধান প্রকৌশলী ছিলেন সিলেটের সন্তান আবিদ রেজা চৌধুরী।

সেতুটি নির্মাণের ইতিহাসও বেশ চমকপ্রদ। ১৯১৯ সালে কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর শিলং বেড়াতে এসেছিলেন। এটা শুনে তৎকালীন শ্রীহট্টে (বর্তমান সিলেট) কবিকে নিয়ে আসার তোড়জোর শুরু হয়। কিন্তু বিপত্তি দেখা দেয় যাত্রাপথ। তখন উমগট নদীর ওপর কোন সেতু ছিল না, গাড়ি চলার পথও সেভাবে ছিল না।

মানুষ পার হতো মানুষের পিঠে চড়ে! রবীন্দ্রনাথ মানুষের পিঠে চড়ে এভাবে আসতে রাজি হননি। অনেকটা ঘুরে তাই ট্রেনে করে তিনি সিলেটে আসেন গৌহাটি-বদরপুর-লাতু (বড়লেখার শাহবাজপুর)-কুলাউড়া পথ দিয়ে।

এরপরই সিলেট-শিলং সরাসরি সড়ক পথটি নির্মাণের আলোচনা জোরালো হয়। তখনকার প্রভাবশালী কংগ্রেস নেতা ও মন্ত্রী সিলেটের বুরঙ্গা গ্রামের বসন্ত কুমার দাস বিষয়টি নিয়ে উদ্যোগী হন। তার চেষ্টায় বাজেট বরাদ্দও হয়ে যায়। কিন্তু উমগট নদীতে খাসিয়া ও জৈন্তিয়া পাহাড়কে যুক্ত করতে কঠিন একটি সেতু নির্মাণের দরকার পড়ে।

তখন আবিদ রেজা চৌধুরী প্রকৌশলী হিসেবে শিলংয়ে চাকরি করছিলেন। আবিদ রেজার বাড়ি ছিল তৎকালীন সিলেটের করিমগঞ্জে, পরে তার পরিবার বড়লেখার শাহবাজপুরে থিতু হয়েছিল। তার ওপরই পড়ে সেতুর নকশার ভার। ১৯৩০ সালে আবিদ রেজার নকশা, নির্দেশনায় তৈরি হতে থাকে এই সেতু।

ডাউকি সেতু-পদ্মা সেতু

ডাউকি সেতু-পদ্মা সেতু

ব্রিটিশ ভারতে আসাম প্রদেশের রাজধানী ছিল শিলং। আর সিলেট ছিল আসামের একটি জেলা শহর। দুই গুরুত্বপূর্ণ শহরের মধ্যে ৯০ বছর আগে তৈরি হয় সরাসরি যোগাযোগের পথ। যা আজও চলমান।

গল্পটি এই সময়ে প্রাসঙ্গিক কারণ আবিদ রেজার ছেলে অধ্যাপক জামিলুর রেজা চৌধুরীও আরেকটি ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ সেতুর ইতিহাসে নাম উঠালেন। প্রয়াত জামিলুর রেজা ছিলেন পদ্মা সেতুর প্রধান পরামর্শক। মানুষের চলাচলের ব্যবস্থাকে সহজ করে দেওয়া দুই কীর্তিমানকে শ্রদ্ধা।

উল্লেখ্য, পদ্মা সেতু নির্মাণ সূচনা প্রকল্পে দেশি-বিদেশি প্রকৌশলীদের সমন্বয়ে গঠন করা হয় একটি বিশেষজ্ঞ কমিটি। সেই কমিটির মূল সমন্বয়ক ছিলেন জাতীয় অধ্যাপক জামিলুর রেজা চৌধুরী। ২০২০ সালের ২৮ এপ্রিল ৭৬ বছর বয়সে মারা যান তিনি। (লেখাটি ফেসবুক থেকে নেওয়া)

দেশটিভি/এমএনকে
দেশ-বিদেশের সকল তাৎক্ষণিক সংবাদ, দেশ টিভির জনপ্রিয় সব নাটক ও অনুষ্ঠান দেখতে, সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল:

এছাড়াও রয়েছে

পুলিশ প্রধান হিসেবে দায়িত্ব নিলেন চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন

বিনিয়োগ বাড়াতে বাংলাদেশের পরিচিতি বাড়ানোর আহ্বান তুরস্কের

আট মাসে ৫৭৪ কন্যাশিশু ধর্ষণের শিকার

আওয়ামী লীগ পরিচয়েও অনেকে অপকর্ম করছে: ওবায়দুল কাদের

জনগণ এখন স্বাধীনভাবে ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারছে: প্রধানমন্ত্রী

৮০ ভাগ রোগী বিদেশে চিকিৎসা নিতে যাচ্ছে: পরিকল্পনামন্ত্রী

পুলিশের অভিযানে গ্রেপ্তার ৫৯, মামলা ৩৯

রাজধানীতে বাসচাপায় প্রাণ গেল যুবলীগ নেতার

সর্বশেষ খবর

আরও ৭০৮ জনের করোনা শনাক্ত, মৃত্যু ১

পুলিশ প্রধান হিসেবে দায়িত্ব নিলেন চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন

শিক্ষায় মানিকগঞ্জে শ্রেষ্ঠ উপজেলা চেয়ারম্যান রাজা

বিনিয়োগ বাড়াতে বাংলাদেশের পরিচিতি বাড়ানোর আহ্বান তুরস্কের