জাতীয়

রবিবার, ০৬ অক্টোবর, ২০১৯ (১৫:৫৭)

দ্রুততম সময়ে তিস্তা চুক্তির আশা মোদির

দ্রুততম সময়ে তিস্তা চুক্তির আশা মোদির

সম্ভাব্য দ্রুততম সময়ে প্রস্তাবিত তিস্তা চুক্তি স্বাক্ষরে ভারতীয় পক্ষ কাজ করছে বলে জানিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

নয়াদিল্লিতে শনিবার বাংলাদেশ ও ভারতের প্রধানমন্ত্রীর বৈঠকের পর এক যৌথ বিবৃতিতে এতথ্য জানানো হয়। খবর বাসসের

বিষয়টি নিয়ে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আট বছর আগে দুই দেশের সরকারের সম্মতি অনুযায়ী বাংলাদেশ এ চুক্তি আশু স্বাক্ষরের জন্য গভীর আগ্রহ নিয়ে অপেক্ষা করছে।

যৌথ বিবৃতিতে বলা হয়, ‘ভারতের প্রধানমন্ত্রী মোদি (শেখ হাসিনাকে) অবহিত করেছেন যে তার সরকার ভারতে সংশ্লিষ্ট সকল পক্ষকে নিয়ে সম্ভাব্য দ্রুততম সময়ে চুক্তিটি সম্পাদনের জন্য কাজ করছে।’

এতে বলা হয়, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা '২০১১ সালে দুই সরকারের সম্মতি অনুযায়ী তিস্তা নদীর পানি বণ্টনে ফ্রেমওয়ার্ক অব ইন্টেরিম এগ্রিমেন্ট আশু স্বাক্ষর ও বাস্তবায়ন’-এর জন্য বাংলাদেশের জনগণ অপেক্ষায় রয়েছে একথা বলার পরিপ্রেক্ষিতে মোদি তার বক্তব্য দেন।

বিবৃতি অনুযায়ী দুই প্রধানমন্ত্রী যুগপৎভাবে অপর ছয়টি অভিন্ন নদীর পানি বণ্টনেও দ্রুততার সাথে সর্বশেষ তথ্য-উপাত্ত বিনিময় এবং ফ্রেমওয়ার্ক অব ইন্টেরিম এগ্রিমেন্টের খসড়া প্রস্তুত করার জন্য যৌথ নদী কমিশনের কারিগরি পর্যায়ের কমিটিকে নির্দেশ দিয়েছেন।

অপর নদীগুলো মনু, মুহুরী, খোয়াই, গোমতী, ধরলা ও দুধকুমার উল্লেখ করে এতে বলা হয়, দুই নেতা ফেনী নদীর পানি বণ্টনে খসড়া ফ্রেমওয়ার্ক অব ইন্টেরিম এগ্রিমেন্ট সুনির্দিষ্ট করারও নির্দেশ দেন।

মোদির সঙ্গে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাতকারে রোহিঙ্গা সমস্যাও উঠে আসে উল্লেখ করে বলা হয়, মোদি এসব বাস্তুচ্যুত লোকদের নিরাপদ, দ্রুত ও স্থায়ীভাবে মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে তাদের নিজ বাড়ি-ঘরে প্রত্যাবাসনের প্রক্রিয়া ত্বরান্বিত করার প্রয়োজনীয়তার বিষয়ে একমত হন।

৫৩-দফা বিবৃতিতে বলা হয়, মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে নিরাপত্তা পরিস্থিত ও আর্থ-সামাজিক অবস্থার উন্নতিসহ তাদের (রোহিঙ্গাদের) ফিরে যাওয়া সুগম করতে আরো বৃহত্তর প্রয়াস গ্রহণের প্রয়োজনীয়তার বিষয়েও তারা (দুইনেতা) একমত পোষণ করেন।

এতে বলা হয়, ভারতের প্রধানমন্ত্রী ‘মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্য থেকে জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত ব্যক্তিদের’ আশ্রয় ও মানবিক সহায়তা দেয়ার ক্ষেত্রে বাংলাদেশের উদারতার প্রশংসা করেন।

তিনি বলেন, নয়াদিল্লী কক্সবাজারের অস্থায়ী ক্যাম্পে রোহিঙ্গাদের আশ্রয়দানে বাংলাদেশ সরকারের মানবিক প্রয়াসে সহায়তা করতে পঞ্চম কিস্তি মানবিক সহায়তা সরবরাহ করবে।

মোদি বলেন, সহায়তার এ কিস্তিতে থাকবে তাবু, ত্রাণ ও উদ্ধার সরঞ্জাম এবং মিয়ানমার থেকে আসা জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত নারীদের দক্ষতা উন্নয়নে এক হাজারটি সেলাই মেশিন।

বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়, ভারত রাখাইন রাজ্যে এ পর্যন্ত ২৫০টি বাড়ি তৈরির প্রথম প্রকল্প সম্পন্ন করেছে এবং দেশটি এখন ওই এলাকায় অপর একগুচ্ছ আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নের প্রস্তুতি নিচ্ছে।

শেখ হাসিনা মিয়ানমার থেকে বাস্তুচ্যুত লোকদের প্রয়োজন অনুযায়ী সহায়তায় ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বর থেকে ভারতের মানবিক সহায়তার জন্য বাংলাদেশের কৃতজ্ঞতা জানান।

এছাড়াও রয়েছে

রিজার্ভ থেকে নিজেরাই প্রকল্পের জন্য ঋণ নিতে পারি

করোনায় ২৪ ঘণ্টায় সংক্রমিত ৩২০১, মৃত্যু ৪৪

সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত

ভুতুড়ে বিলকাণ্ডে বরখাস্ত ৪, শোকজ ৩৬ প্রকৌশলী

পাটকল শ্রমিকদের বেতনের জন্য ৫৮ কোটি টাকা বরাদ্দ

দেশে করোনায় মৃত্যু ২ হাজার ছাড়াল, নতুন শনাক্ত ২৭৩৮

দেশে একদিনে নতুন শনাক্ত ৩২৮৮, মৃত্যু ২৯

১০ বছরে ৮০ প্রকল্প নেবে সরকার

আরও খবর

  • রাজধানীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ২ যুবক নিহত

    রাজধানীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ২ যুবক নিহত

  • লঞ্চে যৌন হয়রানি থেকে বাঁচতে কিশোরীর নদীতে ঝাঁপ

    লঞ্চে যৌন হয়রানি থেকে বাঁচতে কিশোরীর নদীতে ঝাঁপ

  • টিকে রইল বার্সেলোনা

    টিকে রইল বার্সেলোনা

  • নোয়াখালীতে আ.লীগ নেতাকে গুলি

    নোয়াখালীতে আ.লীগ নেতাকে গুলি

সর্বশেষ খবর

রিজার্ভ থেকে নিজেরাই প্রকল্পের জন্য ঋণ নিতে পারি

চলে গেলেন এন্ড্রু কিশোর

প্রকাশ্যে ‘বাহুবলি’ সিনেমার প্রথম দিনের শুটিংয়ের দৃশ্য

মঙ্গলবার রাজধানীর যেসব এলাকায় গ্যাস থাকবে না