জেলার খবর

বীর মুক্তিযোদ্ধা হত্যায় ৬ জেএমবির মৃত্যুদণ্ড

ছবি সংগৃহীত
ছবি সংগৃহীত

কুড়িগ্রামে বীর মুক্তিযোদ্ধা হোসেন আলী হত্যা মামলায় ছয় জেএমবি সদস্যকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) জেলা ও দায়রা জজ আব্দুল মান্নান এ রায় দেন।

রাষ্ট্রপক্ষে যুক্তিতর্ক উপস্থাপন করেন পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) এস এম আব্রাহাম লিংকন এবং আসামিপক্ষে লিগ্যাল এইড নিয়োজিত অ্যাডভোকেট হুমায়ূন কবীর।

মৃত্যুদণ্ড হওয়া আসামিরা হলো- জাহাঙ্গীর ওরফে রাজিব ওরফে রাজীব গান্ধী, রিয়াজুল ইসলাম ওরফে মেহেদী, গোলাম রাব্বানী, হাসান ফিরোজ ওরফে মোখলেস, মাহবুব হাসান মিলন ওরফে হাসান, আবু নাসির ওরফে রুবেল। রিয়াজুল ইসলাম ছাড়া অন্য আসামিরা রায় ঘোষণার সময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, মুক্তিযোদ্ধা হোসেন আলী হত্যা মামলায় ১০ জেএমবি সদস্যকে আসামি করে মামলা হয়েছিল। চার্জশিট দাখিলের আগেই পুলিশের গুলিতে তিন আসামি এবং চার্জশিট দাখিলের পর আরও এক আসামি নিহত হয়। এ কারণে তাদের মামলা থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়।

হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে বাকি ছয়জনের বিরুদ্ধে এবং জাহাঙ্গীর ওরফে রাজীব গান্ধী, মো. রিয়াজুল ইসলাম ওরফে মেহেদী এবং গোলাম রব্বানী নামে তিন আসামির বিরুদ্ধে বিস্ফোরক আইনে পৃথক দুটি অভিযোগ গঠন করেন আদালত।

২০১৬ সালের ২২ মার্চ সকাল ৭টার দিকে কুড়িগ্রাম জেলা শহরের গড়ের পাড় এলাকায় প্রাত ভ্রমণে বের হয়েছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা হোসেন আলী। এসময় ওৎ পেতে থাকা জঙ্গিরা তাকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে হত্যা করে। পরে জঙ্গিরা ভীতিকর অবস্থা তৈরি করতে বিভিন্ন স্থানে ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় ওই দিনই নিহতের ছেলে রুহুল আমিন আজাদ বাদী হয়ে কুড়িগ্রাম সদর থানায় হত্যা মামলা এবং বিস্ফোরক দ্রব্য আইনে দুটি মামলা করেন। একই বছরের ৫ নভেম্বর মামলাগুলোর অভিযোগপত্র আদালতে দাখিল করা হয়। এরপর ২০১৮ সালের ২১ অক্টোবর আদালতে মামলাগুলোর অভিযোগ গঠন করা হয়। মামলায় মোট ৩২ জন সাক্ষীর মধ্যে ২১ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়।

কুড়িগ্রামের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) এস এম আব্রাহাম লিংকন গণমাধ্যমকে বলেন, এ হত্যা মামলা প্রমাণে রাষ্ট্রপক্ষ, পুলিশ ও প্রসিকিউসনের সমর্থন পেয়েছি। খুনি চক্র ধর্মের অপব্যাখ্যা করে বিভ্রান্ত হয়ে পরিকল্পিতভাবে এমন নৃশংস খুন করে রাষ্ট্র ও সরকারকে বেকায়দায় ফেলতে চেয়েছিল।

দেশটিভি/এসএফএইচ
দেশ-বিদেশের সকল তাৎক্ষণিক সংবাদ, দেশ টিভির জনপ্রিয় সব নাটক ও অনুষ্ঠান দেখতে, সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল:

এছাড়াও রয়েছে

গাজীপুরে বসত ঘরে মিললো গৃহবধূর লাশ

নাজিরপুরে বাসচাপায় স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা নিহত

নেত্রকোনায় বন্যার পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু

হাটহাজারিতে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে নির্মাণ শ্রমিক নিহত

চট্টগ্রামে আরএনবি'র ১২ সিপাহী বদলি

সীতাকুণ্ডের বিএম ডিপোতে মিললো দেহাবশেষ

রিমান্ড শেষে কারাগারে পদ্মা সেতুর নাট খোলা বায়েজিদ

বাসচাপায় সাবেক ব্যাংক কর্মকর্তার পা বিচ্ছিন্ন

সর্বশেষ খবর

  • আগাম নির্বাচনের দাবি প্রত্যাখ্যান বরিস জনসনের

    -১৬৪২৮ সেকেন্ড আগে
    আগাম নির্বাচনের দাবি প্রত্যাখ্যান বরিস জনসনের
  • শিক্ষকদের ওপর হামলার ঘটনায় ইউনিসেফের উদ্বেগ-নিন্দা

    -১৪১৬৭ সেকেন্ড আগে
    শিক্ষকদের ওপর হামলার ঘটনায় ইউনিসেফের উদ্বেগ-নিন্দা
  • গাজীপুরে বসত ঘরে মিললো গৃহবধূর লাশ

    -১২৫১২ সেকেন্ড আগে
    গাজীপুরে বসত ঘরে মিললো গৃহবধূর লাশ
  • সরকারের অব্যবস্থাপনায় বিদ্যুতের সংকট: জাফরুল্লাহ

    -১০৫৯৭ সেকেন্ড আগে
    সরকারের অব্যবস্থাপনায় বিদ্যুতের সংকট: জাফরুল্লাহ
  • তদারকির গাফিলতিতেই সীতাকুণ্ডে অগ্নিকাণ্ড, বললো তদন্ত কমিটি

    -৮৮৬৬ সেকেন্ড আগে
    তদারকির গাফিলতিতেই সীতাকুণ্ডে অগ্নিকাণ্ড, বললো তদন্ত কমিটি

সর্বশেষ খবর

আগাম নির্বাচনের দাবি প্রত্যাখ্যান বরিস জনসনের

শিক্ষকদের ওপর হামলার ঘটনায় ইউনিসেফের উদ্বেগ-নিন্দা

গাজীপুরে বসত ঘরে মিললো গৃহবধূর লাশ

সরকারের অব্যবস্থাপনায় বিদ্যুতের সংকট: জাফরুল্লাহ