লাইফস্টাইল

যেভাবে ওজন কমিয়েছিলেন আদনান সামি

আদনান সামি
আদনান সামি

১৬ মাসে ১৫৫ কেজি ওজন কমিয়েছিলেন বলিউডের বিখ্যাত গায়ক আদনান সামি। কি ভাবে এতটা ওজন কমেছিলো তার এমন প্রশ্ন ভক্তদের। আমাদের অনেকেই আছেন যারা ওজন কমাতে চাইলেও পারছেন না। তারা চাইলেই অনুপ্রেরণা নিতে পারেন আদনান সামির থেকে। চলুন দেখে নেওয়া যাক কি ভাবে ওজন কমিয়েছিলেন আদনান সামি।

২০০০ সালে ‘মুজকো ভি তু লিফ্ট কারা দে’ গানটির মাধ্যমে জনপ্রিয়তা অর্জন করেছিলেন তিনি। গানটির আকর্ষণীয় লিরিক্স এবং পেপি বিটগুলোতে মুগ্ধ হয়েছিল শ্রোতা ও দর্শকরা। এই গানটি ছাড়া যেন পূর্ণতা পেত না কোনো অনুষ্ঠান। একজন সুরকার এবং গায়ক হিসেবে অনেক চার্ট বাস্টার মন্থন করেছেন তিনি।

তবে সব সময় যে বিষয়টি তাকে বিতর্কিত করেছে তা হলো তার ওজন। এমনকি ফিল্ম ভ্রাতৃত্বের মানদণ্ড অনুসারে নিখুঁত আকার থেকে দূরে ছিলেন বলে লজ্জা পেয়েছিলেন তিনি। একের পর এক হিট গান দিয়েও ২০০৫ সালে তিনি হঠাৎ করে পর্দা থেকে হারিয়ে যান। এরপর যখন তিনি পর্দায় ফেরেন ২২০ কেজি থেকে তাকে দেখা যায় মাত্র ৬৫ কেজিতে।

আদনানের জীবনের টার্নিং পয়েন্ট : ২০০৫ সালে লিম্ফিডেমার জন্য অস্ত্রোপচার করতে হয়েছিল সামিকে। যার জন্য তাকে তিন মাস বিছানায় বিশ্রামে থাকতে হয়। স্থূলতার কারণে তার শ্বাস নিতে অসুবিধা হত। তখন ডাক্তাররা তাকে সতর্ক করে বলেছিলেন, ওজন না কমালে তিনি মাত্র ৬ মাস বেচে থাকবেন। এরপর পরিবার, বন্ধুদের অসাধারণ সমর্থন এবং হিউস্টনের একজন পুষ্টিবিদের নির্দেশনায় ওজন কমানোর যাত্রা শুরু করেন সামি। একটি সাক্ষাতকারে সামি বলেছিলেন, ওজন কমানোর কাজটি ছিল ৮০ শতাংশ মনস্তাত্ত্বিক এবং মাত্র ২০ শতাংশ শারীরিক। দৃঢ়তা এবং দৃঢ় সংকল্পের কারণে মাত্র ১৬ মাসে প্রায় ১৫৫ কিলো ওজন কমাতে সক্ষম হন তিনি।

আদনান সামির ডায়েট চার্ট : আদনানের পুষ্টিবিদ প্রথমে তাকে অতিরিক্ত খাওয়া থেকে সরিয়ে আনেন। এরপর তাকে একটি কম-ক্যালরিযুক্ত ডায়েট চার্ট দেন। সাদা ভাত, রুটি এবং অস্বাস্থ্যকর জাঙ্ক ফুড বাদ দিতে হয়েছিল তাকে। শুধু সালাদ, মাছ ও সিদ্ধ ডাল খেতেন তিনি। তার দিন শুরু হয় এক কাপ চিনি কম চা দিয়ে। দুপুরের খাবারে তিনি ভেজি সালাদ এবং কিছু মাছ খান। রাতের খাবারে ছিল সাধারণ সিদ্ধ ডাল বা মুরগির মাংস। তিনি শুধুমাত্র চিনি-মুক্ত পানীয় খেতে পারতেন। স্ন্যাকসের জন্য খেতেন ঘরে তৈরি শুকনো পপকর্ন।

আদনানের ব্যায়াম রুটিন : আদনান এতটাই স্থূল হয়ে গিয়েছিল যে শরীরের চাপের কারণে তিনি জিমে যেতে পারেননি। ফলে হার্ট অ্যাটাক হয়। ৪০ কেজি ওজন কমার পর ট্রেডমিলে শুরু করেন হালকা ব্যায়াম। প্রতি মাসে গুণী এই গায়ক ১০ কেজি করে ওজন কমেয়িছেন।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

দেশটিভি/আইআর
দেশ-বিদেশের সকল তাৎক্ষণিক সংবাদ, দেশ টিভির জনপ্রিয় সব নাটক ও অনুষ্ঠান দেখতে, সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল:

এছাড়াও রয়েছে

শিশু নির্যাতন প্রতিরোধে ‘গুড প্যারেন্টিং’ জোরদারের তাগিদ

যেসব সবজি রক্তে ইউরিক অ্যাসিড বাড়ায়

যে সব ভুলে গোসলের সময় হতে পারে হার্ট অ্যাটাক

যা করবেন শিশুর ডেঙ্গু জ্বরের লক্ষণ দেখলে

রোজ যতটা হাঁটলে ঝুঁকি কমবে হার্ট অ্যাটাকের

কর্মীদের মনোবল কমিয়ে দেয় বসের যে কথাগুলো

পেঁয়াজ যেভাবে সাহায্য করে ওজন কমাতে

যে পাঁচ পরিবর্তন বিয়ের পর পুরুষের সুখ বয়ে আনে

সর্বশেষ খবর

  • সরকার দেশ পরিচালনায় সম্পূর্ণ ব্যর্থ: জাপা চেয়ারম্যান

    ৩ ঘণ্টা আগে
    সরকার দেশ পরিচালনায় সম্পূর্ণ ব্যর্থ: জাপা চেয়ারম্যান
  • বিআইসিএমের গবেষণা সেমিনার অনুষ্ঠিত

    ৩ ঘণ্টা আগে
    বিআইসিএমের গবেষণা সেমিনার অনুষ্ঠিত
  • ব্যাংকের খেলাপি ঋণ সোয়া লাখ কোটি টাকা ছাড়ালো

    ৪ ঘণ্টা আগে
    ব্যাংকের খেলাপি ঋণ সোয়া লাখ কোটি টাকা ছাড়ালো
  • গোলাপগঞ্জে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে যুবকের মৃত্যু

    ৪ ঘণ্টা আগে
    গোলাপগঞ্জে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে যুবকের মৃত্যু
  • হাতীবান্ধায় বাসচাপায় বৃদ্ধ নিহত

    ৪ ঘণ্টা আগে
    হাতীবান্ধায় বাসচাপায় বৃদ্ধ নিহত

সর্বশেষ খবর

সরকার দেশ পরিচালনায় সম্পূর্ণ ব্যর্থ: জাপা চেয়ারম্যান

বিআইসিএমের গবেষণা সেমিনার অনুষ্ঠিত

ব্যাংকের খেলাপি ঋণ সোয়া লাখ কোটি টাকা ছাড়ালো

গোলাপগঞ্জে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে যুবকের মৃত্যু