আন্তর্জাতিক

শুক্রবার, ১৮ জুলাই, ২০১৪ (১৬:৩২)

নিঃসন্দেহে ত্রুটিপূর্ণ ছিল ৫ জানুয়ারির নির্বাচন: বার্নিকাট

মার্সিয়া স্টিফেন্স ব্লুম বার্নিকাট

গত ৫ জানুয়ারির নির্বাচন ‘নিঃসন্দেহে ত্রুটিপূর্ণ’ ছিল এবং নিয়োগ পেলে তিনি ওয়াশিংটনের নীতি এগিয়ে নিতে কাজ করবেন বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশে যুক্তরাষ্ট্রের হবু রাষ্ট্রদূত মার্সিয়া স্টিফেন্স ব্লুম বার্নিকাট। বৃহস্পতিবার ওয়াশিংটনে যুক্তরাষ্ট্র পররাষ্ট্র সম্পর্ক বিষয়ক সিনেট কমিটির সামনে বাংলাদেশের বিষয়ে তার বক্তব্য উপস্থাপন করেন

রাষ্ট্রদূত পদের জন্য প্রাথমিকভাবে মনোনীত বার্নিকাট।

তিনি বলেন, গত ৫ জানুয়ারির সংসদ নির্বাচন নিঃসন্দেহে ত্রুটিপূর্ণ ছিল এবং বাংলাদেশের রাজনৈতিক দলগুলোর জরুরি ভিত্তিতে গঠনমূলক সংলাপে অংশগ্রহণ করা দরকার যাতে আরো প্রতিনিধিত্বমূলক সরকার গঠনের দিকে এগিয়ে যাওয়া সম্ভব হয়।

প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা গত মে মাসে বাংলাদেশে যুক্তরাষ্ট্রের নতুন রাষ্ট্রদূত হিসাবে বার্নিকাটকে মনোনয়ন দেন। এই দায়িত্বে তিনি বর্তমান রাষ্ট্রদূত ড্যান মজীনার স্থলাভিষিক্ত হবেন।

সিনেট কমিটিকে বার্নিকাট বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের হয়ে তিনি গত তিন দশকে বিশ্বের পাঁচটি অঞ্চলের আটটি দেশে দায়িত্ব পালন করেছেন।

আমার দুই ছেলে সুমিত নিকোলস ও সুনীল ক্রিস্টোফার ভারতীয় উপমহাদেশে জন্মগ্রহণ করেছে এবং তাদের বাবা অলিভিয়ের বার্নিকাটের মতোই পুরো বিশ্বকে নিজেদের ক্লাসরুম বলে মনে করে।

দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের ‘এক গুরুত্বপূর্ণ’ সময়ে ‘কৌশলগতভাবে গুরুত্বপূর্ণ’ রাষ্ট্র বাংলাদেশে যুক্তরাষ্ট্রের হয়ে দায়িত্ব পালনের জন্য মনোনীত হওয়ায় নিজেকে সম্মানিত বোধ করছেন বলেও উল্লেখ করেন বার্নিকাট।

রাষ্ট্রদূতের দায়িত্ব পেলে বাংলাদেশে শ্রম অধিকার ও কর্মক্ষেত্রের নিরাপত্তা, মানবপাচার রোধ, প্রাকৃতিক দুর্যোগের হুমকি মোকাবেলা, সমুদ্রসীমার নিরাপত্তা, শান্তিরক্ষা, মাদক ও অস্ত্র পাচার রোধ এবং সন্ত্রাসবাদ মোকাবেলাসহ বিভিন্ন বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের নীতি অনুসারে কাজ করার আগ্রহের কথা সিনেট কমিটিকে জানান এই কূটনীতিক।

তিনি বলেন, আমার নিয়োগ চূড়ান্ত হলে আমি বাংলাদেশে জবাবদিহিতার প্রসার এবং মানবাধিকার ও গণতন্ত্র শক্তিশালী করার প্রচেষ্টাকে সহযোগিতা করতে শ্রম দেব।

বার্নিকাট তার বক্তব্যে বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক অগ্রগতির বিষয়টি তুলে ধরে বলেন, প্রবৃদ্ধির পথে এগিয়ে চলা ভারত ও সদ্য উন্মুক্ত হতে চলা বার্মার মাঝে কৌশলগত অবস্থানে অবস্থিত বাংলাদেশ দক্ষিণ ও দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার মধ্য সংযোগ স্থাপনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালনের অবস্থানে রয়েছে।

তিনি বলেন, আমার নিয়োগ চূড়ান্ত হলে আমি সরকার, সুশীল সমাজ ও সকল শ্রেণির বাংলাদেশির সঙ্গে কাজ করব, যাতে সবচেয়ে বিস্তৃত ও ন্যায়সঙ্গত অংশ্রগ্রহণকে উৎসাহিত করে এমন একটি পরিবেশ নিশ্চিত করা যায়। পেশাদার কূটনীতিক বার্নিকাট বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের মানবাধিকার বিষয়ক ব্যুরোর ডেপুটি অ্যাসিসট্যন্ট সেক্রেটারি হিসেবে কাজ করছেন। আফ্রিকান বংশোদ্ভূত এ নারী ২০০৮ থেকে ২০১১ সাল পর্যন্ত গিনি বিসাউ ও সেনেগালে রাষ্ট্রদূতের দায়িত্ব পালন করেন। তার আগে বার্বাডোজ ও মালাবিতে উপরাষ্ট্রদূতের পদেও ছিলেন তিনি।

২৭ বছরের কূটনৈতিক অভিজ্ঞাতসম্পন্ন বার্নিকাট দক্ষিণ এশিয়াতেও কাজ করেছেন। ২০০৬ থেকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের দক্ষিণ এশিয়া ব্যুরোতে ছিলেন তিনি। এ সময় তার আওতায় ছিল ভারত, নেপাল, শ্রীলঙ্কা, মালদ্বীপ ও ভুটান।

১৯৯২ থেকে ১৯৯৫ সাল পর্যন্ত তিনি কাজ করেন যুক্তরাষ্ট্রের নয়াদিল্লি মিশনে। তার আগে ১৯৮৮ থেকে ১৯৯০ সাল পর্যন্ত নেপাল ডেস্ক অফিসার হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন।

সংসদের গত মেয়াদে বিরোধীদলে থাকা বিএনপি ও তাদের শরিকরা ৫ জানুয়ারির নির্বাচন বর্জন করায় অর্ধেকেরও বেশি আসনে প্রার্থীরা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন। শেষ পর্যন্ত নিরঙ্কুশ সংখ্যা গরিষ্ঠতা নিয়ে টানা দ্বিতীয় মেয়াদে সরকার গঠন করে আওয়ামী লীগ।

যুক্তরাষ্ট্র শুরু থেকেই অবিলম্বে নতুন নির্বাচন দেয়ার আহ্বান জানিয়ে আসছে, যাতে সমঝোতার ভিত্তিতে সব দল ভোটে অংশ নিতে পরে।

ইউটিউবে দেশ টেলিভিশনের জনপ্রিয় সব নাটক ও অনুষ্ঠান দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Desh TV YouTube Channel

এছাড়াও রয়েছে

স্বৈরশাসক সিসি'র পদত্যাগের দাবিতে উত্তাল মিসর

সৌদি আরব ও আমিরাতে সেনা পাঠাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র

জাতিসংঘ মিশনের কিউবার ২ সদস্যকে যুক্তরাষ্ট্র ত্যাগের নির্দেশ

আফগানিস্তানে গাড়ি বোমা হামলায় নিহত ১০

ফিলিপাইনে ট্রাক দুর্ঘটনায় ২০ জন নিহত

জননিরাপত্তা আইনে ফারুক আব্দুল্লাকে আটক

ভেঙ্গে পড়লো ভারতীয় প্রতিরক্ষা সংস্থার বিমান

আফগানিস্তানে প্রেসিডেন্টের সমাবেশে বোমা হামলায় নিহত ২৪

সর্বশেষ খবর

স্বৈরশাসক সিসি'র পদত্যাগের দাবিতে উত্তাল মিসর

সৌদি আরব ও আমিরাতে সেনা পাঠাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র

দুর্দান্ত স্পেসিফিকেশন নিয়ে আসছে Redmi 8A, ফাঁস হল ডিজাইন

প্রধানমন্ত্রী আবুধাবি পৌঁছেছেন