স্বাস্থ্য

বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত বড়পুকুরিয়া তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের শ্রমিকরা

বড়পুকুরিয়া তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের শ্রমিকরা
বড়পুকুরিয়া তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের শ্রমিকরা

কয়লার গুড়া ও ছাইয়ের কারণে শ্বাসকষ্ট, হাঁপানিসহ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন দিনাজপুরের বড়পুকুরিয়া তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের শ্রমিকরা। এদিকে, কয়লার গুঁড়া বা ছাইয়ের কারণে শ্রমিকদের আক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি অস্বীকার করেছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

বেতনভাতা প্রদানের পাশাপাশি নিয়মিত অ্যাশ ভাতা প্রদানের দাবি শ্রমিকেদর।

তবে শ্রমিকদের স্বাস্থ্যহানীর এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রকৌশলী খালেদ মাহমুদ।

আর ছাইয়ের বিষয়টি মারাত্মক আকার ধারণ করলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিয়েছেন বিদ্যুৎ জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয় প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ।

বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের পরিচালনায় দিনাজপুরের বড়পুকুরিয়া তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের দুটি ইউনিটে ২৫০ মেগাওয়াট ক্ষমতাসম্পন্ন বিদ্যুৎ উৎপন্ন হয়।

উল্লেখ্য, দিনাজপুরের পার্বতীপুরে কয়লাভিত্তিক তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের যাত্রা শুরু ২০০৬ সাল থেকে। এই তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের দুটি ইউনিটে কাজ করছেন প্রায় আড়াইশো শ্রমিক। কয়লার গুড়া ও ছাইয়ের কারণে এখানের অনেক শ্রমিকই ভুগছেন শ্বাসকষ্ট, হাঁপানি, কাশিসহ বিভিন্ন রোগে।

শুধু তাই নয়, ২০১৫ সাল থেকে ২৭৫ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন ক্ষমতাসম্পন্ন আরও একটি ইউনিটের নির্মাণ কাজ শুরু হয়। সেখানে কর্মরত প্রায় বারশো শ্রমিকও একই ধরণের রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন।

দেশটিভি/এএ
দেশ-বিদেশের সকল তাৎক্ষণিক সংবাদ, দেশ টিভির জনপ্রিয় সব নাটক ও অনুষ্ঠান দেখতে, সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল:

এছাড়াও রয়েছে

অ্যান্টিবায়োটিকের অপব্যবহার শিগগিরই বন্ধে নতুন আইন : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

ডেঙ্গুতে আরও দুইজনের মৃত্যু, হাসপাতালে ভর্তি ৫৬৮

করোনায় আরও ৫ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৪৮০

একদিনে সর্বোচ্চ ৬৩৫ ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে

আরও ৭০৮ জনের করোনা শনাক্ত, মৃত্যু ১

করোনায় দুইজনের মৃত্যু, শনাক্ত ৬৭৯

ডেঙ্গুতে একজনের মৃত্যু, হাসপাতালে ৫২৪

দেশে করোনা শনাক্তের হার ১৫% ছাড়িয়েছে

সর্বশেষ খবর

পদার্থের নোবেল পেলেন তিন বিজ্ঞানী

মধ্য আফ্রিকায় বিস্ফোরণে তিন বাংলাদেশি শান্তিরক্ষী নিহত

কারো ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেওয়া যাবে না: প্রধানমন্ত্রী

বিদ্যুৎ বিপর্যয় : টেলিযোগাযোগ সেবা বিঘ্নের আশংকা