পরিবেশ

শুক্রবার, ১২ জানুয়ারী, ২০১৮ (১৪:০৬)

পুরো মাসজুড়েই থাকবে শীতের প্রকোপ

পুরো মাসজুড়েই থাকবে শীতের প্রকোপ

দেশের বিভিন্ন এলাকায় তাপমাত্রা কিছুটা বেড়ে শৈতপ্রবাহ পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হলেও পুরো জানুয়ারি মাসজুড়েই থাকবে শীতের প্রকোপ। উত্তরাঞ্চলের জেলাগুলোতে এখনো শীত কমেনি। ঘন কুয়াশায় দেখা মিলছে না সূর্যের আর শীতে বাড়ছে ঠাণ্ডাজনিত রোগের প্রকোপ।

এদিকে, কয়েক দিনের তীব্র শৈত্য প্রবাহের পর তাপমাত্রা ধীরে বাড়তে শুরু করেছে। তবে উত্তরাঞ্চলসহ দেশের অন্যান্য জেলার ওপর দিয়ে এখনও মৃদু থেকে মাঝারি শৈত্য প্রবাহ বইছে। ঘন কুয়াশার সঙ্গে হিমশীতল বাতাসের কারণে কমছে না শীতের তীব্রতা। এতে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে জনজীবন।

সবচেয়ে বেশি কষ্ট হচ্ছে দিনমজুর ও নিম্ন আয়ের মানুষের। কাজে যেতে না পারায় পরিবার -পরিজন নিয়ে বিপাকে পড়েছেন তারা।

শুক্রবার দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়ে নওগাঁর বদলগাছীতে, ৬ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। কুড়িগ্রামে তাপমাত্রা ৭ দশমিক ১ ডিগ্রী, দিনাজপুরে ৭ দশমিক ৭ ডিগ্রী, যশোরে ৮ দশমিক ৭ ডিগ্রী, রংপুরে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৭ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

ঘন কুয়াশার কারণে যশোরে দুরপাল্লার যানবাহন দিনের বেলায়ও হেড লাইট জ্বালিয়ে ধীরগতিতে চলাচল করছে । একান্ত প্রয়োজন ছাড়া কেউ ঘরের বাইরে বের হচ্ছেন না।

ঘন কুয়াশার কারনে মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া ও রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া নৌরুটে প্রায় ৭ ঘণ্টা ফেরি চলাচল বন্ধ ছিল। শুক্রবার সকাল ১০টার পরে ফেরি চলাচল কিছুটা স্বাভাবিক হলেও নদীর দুই পাশে আটকা পড়ে আছে প্রায় দুই শতাধিক যানবাহন।

এছাড়াও রয়েছে

রাতে শক্তিশালী কালবৈশাখীর সম্ভাবনা, ২ নম্বর সতর্ক সংকেত

সোহরাওয়ার্দীর গাছ কাটা নিয়ে সংবাদ সম্মেলন আজ

সুন্দরবনের আগুন ২৪ ঘণ্টায় নেভানো যায়নি

সিগারেটে ৬৫ শতাংশ কর বৃদ্ধি চান সংসদ সদস্যরা

আজও বাড়তে পারে তাপমাত্রা

ঢাকায় ২৬ বছরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা

কালবৈশাখীর পূর্বাভাস, হতে পারে শিলাবৃষ্টি

দেশের ৭ অঞ্চলে কালবৈশাখী ঝড়ের পূর্বাভাস

আরও খবর

  • শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আজ

    শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আজ

  • হোয়াটসঅ্যাপের বিতর্কিত নীতি কার্যকর

    হোয়াটসঅ্যাপের বিতর্কিত নীতি কার্যকর

  • আমি জন্মগতভাবে বেয়াদব: নোবেল

    আমি জন্মগতভাবে বেয়াদব: নোবেল

  • যেসব এলাকায় আজ গ্যাস থাকবে না

    যেসব এলাকায় আজ গ্যাস থাকবে না

সর্বশেষ খবর

সরকার লকডাউনের নামে ক্র্যাকডাউন দিয়েছে: মির্জা ফখরুল

‘বাংলাদেশের ইতিহাস আর কেউ বিকৃত করতে পারবে না’

করোনায় আরও ৩২ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৬৯৮

আদালতে বাবুলের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি