পরিবেশ

সোমবার, ২৫ জুলাই, ২০১৬ (১৪:০৪)

কুড়িগ্রামে বন্যা অবস্থার অবনতি, দুর্ভোগে জনজীবন

বন্যা

ব্রহ্মপুত্র, ধরলা, তিস্তা, দুধকুমার, ফুলকুমারসহ সব নদ-নদীর পানি বেড়ে বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হওয়ায় কুড়িগ্রামের সার্বিক বন্যা পরিস্থিতির মারাত্মক অবনতি হয়েছে। নতুন করে তলিয়ে গেছে বিস্তৃর্ণ এলাকার ঘরবাড়ি, রাস্তাঘাট ও ফসলি জমি।

বিশুদ্ধ পানি ও খাদ্যের অভাবে অবর্ণনীয় দুর্ভোগে পড়েছেন বানভাসী তিন লাখেরও বেশি মানুষ। যমুনা ও তিস্তার পানি বেড়ে যাওয়ায় বন্যা পরিস্থিতির আরো অবনতি হয়েছে জামালপুর, নীলফামারী ও লালমনিরহাটে।

উত্তরবঙ্গের এসব জেলায় প্রশাসনের পক্ষ থেকে ত্রাণ দেওয়া হলেও প্রয়োজনের তুলনায় তা অপ্রতুল বলে অভিযোগ বানভাসী মানুষের।

পানি উন্নয়ন বোর্ড জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় কুড়িগ্রামে ধরলা নদীর পানি ৩০ সেন্টিমিটার বেড়ে বিপদসীমার ১০০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এছাড়া জেলার অন্যান্য নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় ৯টি উপজেলায় পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন ৩ লাখেরও বেশি মানুষ। বিশুদ্ধ পানি ও খাদ্য সংকটে দুর্ভোগ বেড়েছে বানভাসী মানুষের।

বাড়িঘর তলিয়ে যাওয়ায় গবাদি পশুসহ উঁচু স্থানে আশ্রয় নিয়েছেন অনেকে। সরকারিভাবে ত্রান তৎপরতা শুরু হলেও তা জুটছে না অনেকের ভাগ্যে। কাঁচা-পাকা সড়ক তলিয়ে যাওয়ায় বিছিন্ন হয়ে পড়েছে যোগাযোগ ব্যবস্থা। তলিয়ে গেছে আমন ধানের সব বীজতলা। পাশাপাশি নষ্ট হয়েছে সব ধরণের ফসলের ক্ষেত।

দুর্গত এলাকায় খাদ্য সংকট কাটাতে নতুন করে ৫শ মেট্রিক টন চাল ও ১০ লাখ টাকা বরাদ্দ চাওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক আকতার হোসেন আজাদ।

এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় যমুনা নদীর পানি বাহাদুরাবাদ পয়েন্টে ২৭ সেন্টিমিটার বৃদ্ধি পেয়ে বিপদসীমার ৬৩ সেন্টিমিটার উপর দিয় প্রবাহিত হয়ে বন্যা পরিস্থিতির আরো অবনতি হয়েছে জামালপুরে।

জেলার ইসলামপুর, দেওয়ানগঞ্জ, মেলান্দহ ও মাদারগঞ্জ উপজেলার ১৫টি ইউনিয়ন প্লাবিত হওয়া পানি বন্দি হয়ে পড়েছেন কমপক্ষে ৫০ হাজার মানুষ। জামালপুরের প্রশাসনের পক্ষ থেকে ত্রাণ বিতরণ করা হলেও তা যথেষ্ট নয় বলে জানিয়েছেন বন্যার্তরা।

নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়া আবারো লালমনিরহাটেও বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে। বিশুদ্ধ পানি ও খাদ্য সংকট ছাড়াও বন্যা কবলিত এলাকায় দেখা দিয়েছে পানিবাহিত নানা রোগ ।

এছাড়া তিস্তা নদীর পানি ডালিয়া পয়েন্টে ২ সেন্টিমিটার কমে বিপদসীমার ৫ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে নীলফামারীতে। বাড়ি-ঘর তলিয়ে যাওয়ায় দিশেহারা হয়ে পড়েছেন প্রায় ২৫ হাজার মানুষ। এখানেও বন্যা কবলিত এলাকায় দেখা দিয়েছে পানীয় জল ও খাদ্য সংকট।

এদিকে, সুরমা নদীর পানি বিপদসীমার ৭২ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হওয়ায় প্লাবিত হয়েছে সুনামগঞ্জের নিম্নাঞ্চল। সেখানেও দেখা দিয়েছে জনদুর্ভোগ।

ইউটিউবে দেশ টেলিভিশনের জনপ্রিয় সব নাটক ও অনুষ্ঠান দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Desh TV YouTube Channel

এছাড়াও রয়েছে

ঢাকাসহ আশপাশের অবৈধ ইটভাটা বন্ধের নির্দেশ

উপকূলীয় ৯ জেলায় ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত

আজ থেকে ২২ দিন ইলিশ ধরা বন্ধ

রাইট লাইভলিহুড এওয়ার্ড পেল পরিবেশকর্মী গ্রেটা থুনবার্গ

বিশ্ব নদী দিবস আজ

রবিবার থেকে দেশে বৃষ্টিপাত বাড়বে

বিশ্বের অনিরাপদ নগরীর তালিকায় পঞ্চম ঢাকা

তাপমাত্রা স্বাভাবিক, হালকা-মাঝারি বৃষ্টি হতে পারে

সর্বশেষ খবর

দুর্নীতির জন্য সব অর্জন ম্লান হয়: শেখ হাসিনা

খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন খারিজ

মোটরসাইকেল পোড়ানোর মামলায় ফখরুল-রিজভীসহ আসামি ১৩৫

সবার জন্য উন্মুক্ত কনসার্ট ফর ডিজিটাল বাংলাদেশ