অপরাধ

সোমবার, ২৯ এপ্রিল, ২০১৯ (১৬:৩৩)

নুসরাত হত্যা: নিজের সংশ্লিষ্টতার কথা স্বীকার করল অভিযুক্ত অধ্যক্ষ সিরাজ

অভিযুক্ত অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলা

ফেনীর সোনাগাজীর মাদ্রাসা ছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় নিজের সংশ্লিষ্টতার কথা স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে মাদ্রাসার অভিযুক্ত অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলা।

এদিকে, ধানমন্ডিতে পিবিআই সদরদপ্তরে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে সংস্থার প্রধান, ডিআইজি বনজ কুমার মজুমদার এ তথ্য দেন। মে মাসেই মামলার চার্জশিট দেয়া হবে বলেও জানান পিবিআই প্রধান।

রোববার বিকেল ৩টায় সিরাজ উদ দৌলাকে ফেনীর জ্যেষ্ঠ বিচারক জাকির হোসেনের আদালতে হাজির করা হয়। সেখানে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেয় সে।

জেলহাজতে থেকে তার নির্দেশেই নুসরাতের গায়ে আগুন ধরিয়ে হত্যার পরিকল্পনা করা হয়। পরে তা আত্মহত্যা বলে চালানোর নির্দেশও দেয় সে। আসামিদের মধ্যে সিরাজ উদ দৌলা ও শাহাদাত হোসেন শামীমকে নতুন করে রিমান্ডে নেয়ার পর আদালতে জবাববন্দি দেয় অভিযুক্ত মাদ্রাসা অধ্যক্ষ।

এদিকে, নুসরাতকে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় ১৬ জন জড়িত থাকার প্রমাণ পেয়েছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন-পিবিআই। ১৬ জনই আটক হয়েছে এবং ৯ জন এরইমধ্যে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।

গত ৬ এপ্রিল আলিমের আরবি প্রথম পত্র পরীক্ষা দিতে সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসা কেন্দ্রে যায় নুসরাত। এরপর কৌশলে তাকে পাশের ভবনের ছাদে ডেকে নেয়া হয়। সেখানে বোরকা পরা ৪/৫ ব্যক্তি ওই ছাত্রীর শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়।

পরে ওই ছাত্রীকে উদ্ধার করে তার স্বজনরা প্রথমে সোনাগাজী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাকে ফেনী সদর হাসপাতালে পাঠান।

সেখান প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়ার পর তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে পাঠানো হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১০ এপ্রিল নুসরাত মারা যায়।

এছাড়াও রয়েছে

দেবরের পুরুষাঙ্গ কর্তনের মামলায় ভাবি কারাগারে

পদ্মা ব্যাংকের অর্থ আত্মসাৎ মামলায় সাহেদকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে দুদক

তিন কিশোর হত্যা : ৫ কর্মকর্তাকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু

যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের সহকারী পরিচালকসহ গ্রেফতার ৫

১২ শ' কোটি টাকার চেক জব্দ, যুবলীগ নেতাসহ গ্রেপ্তার ৩

দ্বিতীয় দিনের মতো দুদকে স্বাস্থ্যের সাবেক ডিজি

সাবেক ডিজি আবুল কালাম আজাদ দুদকে

প্রাইভেটকারে তুলে চোখ বেঁধে অপহরণ, ১২ ঘণ্টা পর উদ্ধার

আরও খবর

  • ঢাকা-বঙ্গবন্ধু সেতুপূর্ব মহাসড়‌কে গা‌ড়ির দীর্ঘ সা‌রি

    ঢাকা-বঙ্গবন্ধু সেতুপূর্ব মহাসড়‌কে গা‌ড়ির দীর্ঘ সা‌রি

  • টুইটারে টিপ জার, পাঠানো যাবে অর্থ

    টুইটারে টিপ জার, পাঠানো যাবে অর্থ

  • খালেদা জিয়ার সুস্থতা কামনায় ঢাকাস্থ রাষ্ট্রদূত-হাইকমিশনারদের চিঠি ও উপহার

    খালেদা জিয়ার সুস্থতা কামনায় ঢাকাস্থ রাষ্ট্রদূত-হাইকমিশনারদের চিঠি ও উপহার

  • খালেদা জিয়া দেশের বাইরে গেলে ফিরবেন না, এটা ভুল ধারণা: মির্জা ফখরুল

    খালেদা জিয়া দেশের বাইরে গেলে ফিরবেন না, এটা ভুল ধারণা: মির্জা ফখরুল

সর্বশেষ খবর

দেশে করোনায় আরও ৪০ মৃত্যু

মিতু হত্যায় স্বামী বাবুল আক্তার ৫ দিনের রিমান্ডে

ফেরিতে পদদলিত হয়ে ৫ জনের মৃত্যু

চাঁদ দেখা যায়নি, ঈদ শুক্রবার