আদালত

বৃহস্পতিবার, ২১ অক্টোবর, ২০২১ (১১:৫০)

আবারও পেছাল এস কে সিনহাসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে মামলার রায়

সাবেক বিচারপতি সিনহাসহ ১১ জনের বিচার শুরু

ফারমার্স ব্যাংক (বর্তমানে পদ্মা ব্যাংক) থেকে চার কোটি টাকা ঋণ নিয়ে আত্মসাতের অভিযোগে সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার (এস কে) সিনহাসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে হওয়া মামলায় রায়ের দিন আবারও পিছিয়েছে। রায়ের জন্য নতুন করে আগামী ৯ নভেম্বর ধার্য করেছেন আদালত।

আজ বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৪-এর বিচারক শেখ নাজমুল আলম নতুন এই দিন ধার্য করেন।

এর আগে গত ৫ অক্টোবর রায়ের দিন ধার্য ছিল। তবে বিচারক ছুটিতে থাকায় ভারপ্রাপ্ত বিচারক ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৩-এর বিচারক মোহাম্মদ আলী হোসাইন রায়ের জন্য ২১ অক্টোবর দিন ধার্য করেন।

এ মামলার অপর আসামিরা হলেন ফারমার্স ব্যাংক লিমিটেডের অডিট কমিটির সাবেক চেয়ারম্যান মো. মাহবুবুল হক চিশতী, ফার্স্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট স্বপন কুমার রায়, ভাইস প্রেসিডেন্ট মো. লুৎফুল হক, সাবেক এমডি এ কে এম শামীম, সাবেক এসইভিপি গাজী সালাহউদ্দিন, টাঙ্গাইলের বাসিন্দা মো. শাহজাহান, নিরঞ্জন চন্দ্র সাহা, ফার্স্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট সাফিউদ্দিন আসকারী, রণজিৎ চন্দ্র সাহা ও তাঁর স্ত্রী সান্ত্রী রায়।

আসামিদের মধ্যে এস কে সিনহাসহ চারজন পলাতক রয়েছেন। পলাতক অপর আসামিরা হলেন ফারমার্স ব্যাংকের ফার্স্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট সাফিউদ্দিন আসকারী, রণজিৎ চন্দ্র সাহা ও তাঁর স্ত্রী সান্ত্রী রায়।

গত বছরের ১০ জুলাই দুদক পরিচালক সৈয়দ ইকবাল হোসেন মামলাটি করেন। তদন্ত শেষে ওই বছরের ৪ ডিসেম্বর কমিশনের সভায় ১১ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র অনুমোদন দেওয়া হয়। এরপর গত বছরের ১০ ডিসেম্বর আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা, দুদকের পরিচালক বেনজীর আহমেদ। গত ২০ ফেব্রুয়ারি ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশ মামলাটির অভিযোগপত্র গ্রহণ করে ঢাকার বিশেষ জজ-৪-এ পাঠানোর আদেশ দেন। গত ১৩ আগস্ট আদালত ১১ জনের অভিযোগ গঠন করে বিচারের আদেশ দেন।

এরপর গত ১৮ আগস্ট আদালতে তাঁদের বিরুদ্ধে মামলার বাদী সৈয়দ ইকবাল হোসেন সাক্ষ্য দেন। এর মধ্য দিয়ে সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয়। এরপর গত ২২ আগস্ট মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বেনজীর আহমেদের জেরার মধ্য দিয়ে এ সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হয়। এ মামলায় ২১ জন সাক্ষীর সবার সাক্ষ্য গ্রহণ করেন আদালত। এরপর গত ২১ সেপ্টেম্বর দুদকের আইনজীবী মীর আহমেদ আলী সালাম যুক্তিতর্ক উপস্থাপন করেন। এ সময় তিনি এস কে সিনহাসহ ১১ আসামির সর্বোচ্চ সাজা যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দাবি করেন।

দুদকের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষ হলে সাত আসামির পক্ষে তাঁদের আইনজীবী বোরহান উদ্দিন ও শাহীনুর ইসলাম যুক্তিতর্ক উপস্থাপন করেন। যুক্তিতর্কে আসামিদের নির্দোষ দাবি করে তাঁদের খালাস দাবি করেন তাঁরা। যুক্তিতর্ক শোনা শেষে আদালত রায়ের জন্য দিন ধার্য করেন। / কালেরকণ্ঠ

এছাড়াও রয়েছে

আবরার হত্যা মামলার রায় পিছিয়ে ৮ ডিসেম্বর

আবরার খুনের মামলায় রায় আজ

বুয়েটের আবরার ফাহাদ হত্যা মামলার রায় রোববার

মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে বিএনপির সাবেক এমপির মৃত্যুদণ্ড

কামরুন্নাহারের মামলা পরিচালনার ক্ষমতা প্রত্যাহার

জাপানি দুই শিশু বাবার কাছে থাকবে: হাইকোর্ট

পারিবারিক আদালতের মামলায় ‘পাওয়ার অব অ্যাটর্নি’ নয়: হাইকোর্ট

আবার পেছালো তিন্নি হত্যা মামলার রায়

আরও খবর

  • বিনিয়োগ শীর্ষ সম্মেলন উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

    বিনিয়োগ শীর্ষ সম্মেলন উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

  • আবরার খুনের মামলায় রায় আজ

    আবরার খুনের মামলায় রায় আজ

  • প্রেসক্লাবে স্বেচ্ছাসেবক দলের সমাবেশ চলছে

    প্রেসক্লাবে স্বেচ্ছাসেবক দলের সমাবেশ চলছে

  • বার্সার আরও একটি জয়

    বার্সার আরও একটি জয়

সর্বশেষ খবর

বিটা-ডেলটার চেয়েও ওমিক্রন বেশি সংক্রামক তবে উপসর্গ মৃদু

বঙ্গবন্ধু ও ৪ নেতার খুনিকে রাষ্ট্রদূত বানান খালেদা জিয়া: জয়

ইউনিলিভারের বিজ্ঞাপন বন্ধে অ্যাটকোর উদ্বেগ ও প্রতিবাদ

বিএনপি বিভ্রান্তির রাজনীতিতে বিশ্বাসী: কাদের