আদালত

রবিবার, ২৮ এপ্রিল, ২০১৯ (১৮:১২)

বর্ধমান বিস্ফোরণ: ৩ রোহিঙ্গা ঢাকায় বিস্ফোরক মামলায় দণ্ডিত

  • বর্ধমান-বিস্ফোরণ-৩-রোহিঙ্গা-ঢাকায়-বিস্ফোরক-মামলায়-দণ্ডিত

    বর্ধমান বিস্ফোরণ: ৩ রোহিঙ্গা ঢাকায় বিস্ফোরক মামলায় দণ্ডিত

  • বর্ধমান-বিস্ফোরণ-৩-রোহিঙ্গা-ঢাকায়-বিস্ফোরক-মামলায়-দণ্ডিত

    বর্ধমান বিস্ফোরণ: ৩ রোহিঙ্গা ঢাকায় বিস্ফোরক মামলায় দণ্ডিত

ভারতের বর্ধমানে বিস্ফোরণের ঘটনায় সন্দেহভাজন তিন রোহিঙ্গা জঙ্গিকে ঢাকায় বিস্ফোরক আইনের একটি মামলায় দশ বছর করে কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত।

রোববার ঢাকার চার নম্বর মহানগর বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. রবিউল আলম এ মামলার রায় ঘোষণা করেন।

এছাড়াও দশ বছরের সাজার রায়ের পাশাপাশি তাদের প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে আদালত।

জরিমানার টাকা দিতে না পারলে অনাদায়ে ছয় মাস জেলে কাটাতে হবে তাদের।

দণ্ডিত তিন আসামি হলো- মোহাম্মদ নূর হোসেন ওরফে রফিকুল ইসলাম, ইয়াসির আরাফাত এবং ওমর করিম।

২০১৪ সালের ৩০ নভেম্বর লালবাগের এতিমখানা রোড এলাকা থেকে দুই আসামিকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। আসামিদের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয় পাঁচটি ডেটনেটর, জেল-জাতীয় বিস্ফোরক পদার্থ। এ ঘটনায় ঢাকা মহানগর পুলিশের বম্ব ডিসপোজাল ইউনিটের এস আই রাইসুল ইসলাম বাদী হয়ে লালবাগ থানায় মামলা করেন।

এজাহারে বলা হয়, আসামিরা জিজ্ঞাসাবাদে জানান, নাশকতার জন্য তারা একত্র হয়েছিল। আবদুল মজিদ, সালামত উল্লাহ, কবির, মোহাম্মদ আলম, শফি উল্লাহ, খালেদ, সাদিক হোসেন ও আমজাদ তাদের সব ব্যাপারে সহযোগিতা করে থাকে। এসব লোকজন চট্টগ্রাম, কক্সবাজার ও পার্বত্য এলাকার বাসিন্দা। গ্রেপ্তার দুই আসামি জানায়, তারা সবাই আরএসও, জিআরসি, এআরইউ ও ইসলামি জঙ্গি সংগঠনের সদস্য। যে বিস্ফোরক তাদের কাছে পাওয়া গেছে, তা দিয়ে বোমা বানানোর পরিকল্পনা ছিল তাদের। ভারতের বর্ধমানে বোমা বিস্ফোরণের ঘটনার সঙ্গে তাদের সংশ্লিষ্টতা আছে বলে জানা যায়।

তদন্ত শেষে ঢাকা মহানগর পুলিশের বোমা নিষ্ক্রিয়করণ ইউনিটের এসআই আবদুল কাদের মিয়া তিন রোহিঙ্গার বিরুদ্ধে ২০১৫ সালের ৩ মার্চ আদালতে অভিযোগপত্র দেন।

অভিযোগপত্রে বলা হয়, আসামিরা আন্তর্জাতিক ইসলামি উগ্রপন্থী সংগঠনের সহায়তায় বাংলাদেশে নাশকতা চালানোর পরিকল্পনা করার কথা স্বীকার করে। ভারতের বর্ধমানে বোমা বিস্ফোরণের ঘটনার সঙ্গে তাদের সংশ্লিষ্টতা আছে। আসামিদের কাছ থেকে পাওয়া বিস্ফোরক-জাতীয় পদার্থ উচ্চক্ষমতাসম্পন্ন বিস্ফোরক, যা বড় ধরনের নাশকতামূলক কাজে ব্যবহার করা হয়ে থাকে।

পুলিশের দেওয়া অভিযোগপত্র আমলে নিয়ে ২০১৫ সালের ১২ জুলাই তিন রোহিঙ্গা নাগরিকের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন আদালত। ১৮ জন সাক্ষীর মধ্যে ৯ জনের সাক্ষ্য নেওয়া হয়।

ইউটিউবে দেশ টেলিভিশনের জনপ্রিয় সব নাটক ও অনুষ্ঠান দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Desh TV YouTube Channel

এছাড়াও রয়েছে

তারেক রহমানের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা

আদালতে ফখরুলসহ ৮ নেতার আত্মসমর্পণ

দুদকের মামলায় লতিফ সিদ্দিকীর জামিন নামঞ্জুর

মিন্নির জামিনের বিষয়ে আদেশ আজ

সব আদালত কক্ষে বঙ্গবন্ধুর ছবি টানানোর নির্দেশ

যুদ্ধাপরাধে আসামী ফিরোজ খাঁ’র মামলার রায় আজ

পুঠিয়ার মুসা রাজাকারের মৃত্যুদণ্ড

রেনুর পরিবারকে কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে হাইকোর্টের রুল

সর্বশেষ খবর

শোভন-রাব্বানীর বহিষ্কার প্রমাণ করে দুর্নীতি কি ভয়াবহ আকারে চলছে: ফখরুল

বাড়ির ওপর প্লেন বিধ্বস্ত; কলম্বিয়ায় ৭ জনের প্রাণহানি

পাঁচ ক্যামেরায় চমক লাগানো Huawei Nova 5T

সৌদি শেয়ার বাজারে সূচকে পতন