রাজধানী

মানা হচ্ছে না ওয়েবিল-চেকার বাতিলের নির্দেশনা

 ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

রাজধানীতে গণপরিবহনে বাড়তি ভাড়া আদায় নিয়ে সমালোচনার মুখে পড়া ওয়েবিল প্রথা বাতিলের ঘোষণা দিলেও মানা হচ্ছে না।বুধবার থেকেই এটি কার্যকর বলে ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতি পক্ষ থেকে গণমাধ্যমে জানানো হলেও রাজধানীতে এর প্রভাব দেখা যায়নি।

ওয়েবিল প্রথা বাতিলের পাশাপাশি এক স্টপেজ থেকে আরেক স্টপেজ পর্যন্ত বাসের দরজা বন্ধ রাখা এবং রুট পারমিট অনুযায়ী স্টপেজ অনুযায়ী বাস থামানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

সোমবার(৮ আগস্ট) বৈঠক করে সিদ্ধান্ত নেয় ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতি ।

শহরতলির বাস-মিনিবাসে দীর্ঘদিন ধরে প্রচলিত ওয়েবিল প্রথায় নির্দিষ্ট কয়েকটি জায়গায় বাস কর্তৃপক্ষ পরিদর্শন বা চেক করার কাজ করেন। ঢাকার রাস্তায় কোনো স্টপেজ থেকে একটি বাস কখন ছাড়ল, বাসে কতজন যাত্রী ছিল ইত্যাদির হিসাব রাখতে অনেক গণপরিবহনে ওয়েবিল ব্যবহৃত হয়ে আসছিল।

ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতি জানিয়েছে, ঢাকা শহর ও শহরতলী রুটে চলাচলকারী গাড়ির ওয়েবিলে কোনো স্ল্যাব থাকবে না। রাস্তায় কোনো চেকার থাকবে না। এক স্টপেজ থেকে আরেক স্টপেজ পর্যন্ত গাড়ির দরজা বন্ধ থাকবে, খোলা রাখা যাবে না। রুট পারমিটের স্টপেজ অনুযায়ী গাড়ি থামাতে হবে।

এছাড়া বিআরটিএর চার্ট অনুযায়ী ভাড়া আদায় করতে হবে- চার্টের বাইরে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় না করা ও প্রতিটি গাড়িতে দৃশ্যমান স্থানে ভাড়ার চার্ট অবশ্যই টানিয়ে রাখার ব্যাপারে জানায় তারা।

কোনো পরিবহনের গাড়িতে বিআরটিএর পুনঃনির্ধারিত ভাড়ার অতিরিক্ত ভাড়া যাতে আদায় না করা হয়, সে বিষয়ে সভায় মালিকদের সমন্বয়ে ৯টি ভিজিলেন্স টিম গঠন করা হয়। এসব টিম বিআরটিএর ম্যাজিস্ট্রেটদের সঙ্গে থেকে সব অনিয়ম তদারকিসহ আইনানুগ ব্যবস্থা নেবে।

সড়ক পরিবহন আইন অনুসারে, ওয়েবিল প্রথা, সিটিং সার্ভিস, গেটলক সার্ভিস অবৈধ। বাড়তি ভাড়া আদায়ের দায়ে সংশ্লিষ্ট পরিবহন কোম্পানির চলাচলের অনুমতি বাতিল করার বিধান আছে। কিন্তু সড়ক পরিবহন মন্ত্রণালয় আইনের এই কঠোর ব্যবস্থা প্রয়োগ করেনি।

অবশ্য সড়ক পরিবহন আইনে এসব বিষয় মানা বাধ্যতামূলক। কিন্তু পরিবহনমালিকেরা তালিকা টানানো এবং সেই অনুযায়ী ভাড়া আদায় করেন না। সরকারও কোনো কার্যকর ব্যবস্থা নিতে পারেনি।

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ) নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দিয়ে নির্দিষ্ট কিছু স্থানে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার মাধ্যমে কিছু জরিমানা করে। এবারও ঢাকায় ৯টি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এসব আদালতের সঙ্গে পরিবহনমালিকদের একটি করে দল থাকবে বলে জানিয়েছে ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতি। তারা বাড়তি ভাড়া আদায় রোধে ভ্রাম্যমাণ আদালতকে সহায়তা করবে।

এর আগে, জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধিতে বাসভাড়া বাড়ায় বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ)। ৭ আগস্ট থেকে নতুন এ ভাড়া কার্যকর হয়। তেলের মূল্য যে হারে বৃদ্ধি পেয়েছে, এর চেয়ে বেশি হারে বাসের ভাড়া বাড়ানো হয়েছে। এরপরও পরিবহনমালিক-শ্রমিকেরা বাড়তি ভাড়া আদায় করে যাচ্ছে।

দেশটিভি/এসএফএইচ
দেশ-বিদেশের সকল তাৎক্ষণিক সংবাদ, দেশ টিভির জনপ্রিয় সব নাটক ও অনুষ্ঠান দেখতে, সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল:

এছাড়াও রয়েছে

আরটিভির সাংবাদিকের বাসায় চুরি

রাজধানীতে সাততলা থেকে পড়ে উদয়নের শিক্ষার্থীর মৃত্যু

রাজধানীতে ট্রাকচাপায় বৃদ্ধ নিহত

রাজধানীতে বাসের ধাক্কায় লেগুনাচালক নিহত, আহত ১৫

রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে আটক ৩৬

রাজধানীতে সহকর্মীর আঘাতে শ্রমিক নিহত

রাজধানীর তেজগাঁওয়ে সড়ক দুর্ঘটনায় স্কুলছাত্রের মৃত্যু

পৈতৃক সম্পত্তিতে হিন্দু নারীর অধিকার দাবিতে মানববন্ধন

সর্বশেষ খবর

একুশে পদকপ্রাপ্ত সাংবাদিক রণেশ মৈত্র আর নেই

সিকিউরিটি চাকরির আড়ালে মাদক ব্যবসা

পঞ্চগড়ে নৌকাডুবিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৩৩

সিপিএলে ঝড়ো ফিফটিতে দল জিতিয়ে ম্যাচসেরা সাকিব