বিশেষ প্রতিবেদন

শুক্রবার, ০৯ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮ (১৫:০৬)

নেত্রীর রায় ঘোষণার পর বদলে গেছে বিএনপির হিসাব নিকাশ

খালেদা জিয়া

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সাজা হলে দল কীভাবে চলবে এ নিয়ে দলের নেতা-কর্মীদের মধ্যে যে নানা আলোচনা হিসাব-নিকাশ ছিল নেত্রীর রায় ঘোষণার পর তা বদলে গেছে।

বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে দলটির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান করা হয়েছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে রাজধানীর নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে দেয়া এক বিজ্ঞপ্তিতে তারেক রহমানকে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

বিকেলে আদালত থেকে বের হয়ে দলটির শীর্ষ নেতারা বলেছেন-দলের ভার এখন খালেদা জিয়ার বড় ছেলে বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ওপর। দলের সকল নির্দেশনা এখন তারেক রহমান ও স্থায়ী কমিটির সদস্যদের কাছ থেকেই আসবে বলে মন্তব্য করেছেন কেউ কেউ। যদিও নেতাদের কেউ কেউ বলছেন- খালেদা জিয়া যেখানেই থাকেন তার নির্দেশেই দল পরিচালিত হবে।

গত কয়েকদিন ধরে সর্বত্রই আলোচনার কেন্দ্র বিন্দুতে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার রায়ের দিকে যেমন ছিল তেমনি এ নিয়ে প্রশ্নও উঠেছিল খালেদা জিয়ার সাজা হলে দল চালাবে কে?

চেয়ারপারসনের অনুপস্থিতিতে দলের ভেতর যাতে কোনো ভাঙন সৃষ্টি না হয় সেজন্য এক রকম গোপনেই বিএনপির গঠনতন্ত্রে পরিবর্তন আনা হয়।

বলা হচ্ছিল- খালেদা জিয়ার সাজা পরবর্তী সময়ে আন্দোলন সংগ্রামসহ দল পরিচালনার দায়িত্ব পড়বে মহাসচিবসহ শীর্ষ ৭ নেতার কাঁধে।

বিএনপির গঠনতন্ত্র অনুযায়ী চেয়ারপারসনের অনুপস্থিতিতে স্থায়ী কমিটি ও নির্বাহী কমিটির সভা ডাকাসহ চেয়ারপারসনের অন্যসব ক্ষমতা প্রয়োগ করতে পারেন দলের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

কিন্তু তিনিও দেশের বাইরে এবং একই মামলায় দণ্ডিত। আবার দলের অনেকেই বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন যেখানেই থাকুন সেখান থেকেই দলের সকল সিদ্ধান্ত দেবেন।

অন্যদিকে রায় ঘোষণার একদিন আগে সংবাদ সম্মেলন করে দলের নেতা-কর্মীদের সর্তক থাকার পাশাপাশি শান্তি পূর্ণ আন্দোলনের নির্দেশও দেন বিএনপি চেয়ারপারসন।

বৃহস্পতিবার আদালতের রায়ে খালেদা জিয়ার সাজা হওয়ার পরই বিএনপির শীর্ষ নেতারা জানান- দলের পরবর্তী কার্যক্রম দলের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানই পরিচালনা করবেন।

সংবাদ সম্মেলনে এ নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবেও এই বিষয় নিয়ে কথা বলেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

এছাড়াও রয়েছে

ঈদে ফিটনেস বিহীন গাড়ি চলাচলে নিষেধাজ্ঞা জারি

সহসাই মুক্তি পাচ্ছেন না খালেদা জিয়া

শান্তি চুক্তি বাস্তবায়িত না হওয়াই পার্বত্য অঞ্চলে অস্থিরতা

এবারও অর্জিত হচ্ছে না রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা

তারেককে ফেরানো কঠিন হবে আসামি প্রত্যার্পণ চুক্তি না থাকায়

কোটা বাতিলে সাংবিধানিকভাবে সমস্যা নেই, সংস্কারই শ্রেয়

সরকারি চাকরিতে কোটা পদ্ধতির সংস্কার চান বিশ্লেষকেরা

সহায়ক বাণিজ্য পরিবেশ পেলে ব্যবসায়ীরা চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত

ইন্টারনেটের গতি স্বাভাবিক হবে শনিবার থেকে

শেষ হলো ভাষা দক্ষতা যাচাই, বিজয়ীরা যাচ্ছেন চীনে

পারমাণবিক অস্ত্র পরীক্ষা কেন্দ্রের সুড়ঙ্গ ধ্বংস করল উ. কোরিয়া

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ১০