বিশেষ প্রতিবেদন

রবিবার, ৩১ ডিসেম্বর, ২০১৭ (১৭:৪০)

সহিংসতামুক্ত বাংলাদেশ দেখতে চান দেশের বিশিষ্টজনেরা

আসছে নতুন বছরে নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সহিংসতামুক্ত বাংলাদেশ দেখতে চান দেশের বিশিষ্টজনেরা

আসছে নতুন বছরে নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সহিংসতামুক্ত বাংলাদেশ দেখতে চান দেশের বিশিষ্টজনেরা।

দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রেখে সমাজে বৈষম্য কমিয়ে আনার পাশাপাশি রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে সুষ্ঠু গণতন্ত্রের চর্চা হোক- এমনটাই প্রত্যাশা তাদের।

সাম্প্রদায়িকতা, নারীর প্রতি সহিংসতা বন্ধ করে সব রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহণে একটি সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের প্রত্যাশী সবাই। তবে সেইসঙ্গে নির্বাচনকে কেন্দ্র করে শিক্ষা ব্যবস্থাসহ জনজীবনে কোনও ধরনের প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে রাজনৈতিক দলগুলোর প্রতি আহবান তাদের।

শীতের কুয়াশা ভেদ করে ২০১৮ সালের প্রথম ভোরের সূর্য যেন জানান দেয়ার আশায় আর মাত্র কয়েকঘণ্টা।

গত বছরের সকল ব্যর্থতার মেঘ সরিয়ে নতুন বছর বয়ে আনবে সাফল্যের নতুন নতুন বারতা এমনটাই কামনা তাদের।

দেশ আর দেশের মানুষকে নিরাপদ আর শান্তিতে রাখা অর্থনৈতিকভাবে সমৃদ্ধ করার দায়িত্ব রাষ্ট্রেরই। সেই দায়িত্ব পালনে বিগত বছরে সরকার শতভাগ সাফল্য দেখাতে না পারলেও সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদের আস্ফালন দেখতে হয়নি দেশবাসীকে। তবে এ অর্জনের ধারাবাহিকতায় নতুন বছরে যেন ধর্ষণ, হত্যা, গুমের মতো ঘটনা আর দেখতে না হয় সে প্রত্যাশা বিশিষ্টজনদের।

২০১৮ এ একাদশ জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে এ সালটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। অতীত অভিজ্ঞতা থেকেই নির্বাচন কেন্দ্রিক সহিংসতা নিয়ে রয়েছে উদ্বেগও। তাই পরিস্থতি সামাল দিতে এখনই ব্যাবস্থা নেয়ার তাগিদ দিয়েছেন নারী নেত্রী অ্যারোমা দত্ত।

নারায়ণগঞ্জ আর রংপুর সিটি নির্বাচনকে মডেল ধরে জাতীয় নির্বাচনেও সব দলের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে সরকারকে উদ্যোগ নেয়ার পরামর্শ তাদের।

সেইসঙ্গে সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় রাখতে রাজনৈতিক দলগুলোকেও আন্তরিক হতে হবে বলে মনে করেন সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা রাশেদা কে চৌধুরী।

অন্যদিকে, দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের অন্যতম অংশীদার হিসেবে নারীদের পেছনে রেখে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জন সম্ভব নয় বলেও আইনজীবী সালমা খান।

তাই বিগত বছরের মতো নারীর ওপর সহিংসতার পুনরাবৃত্তি যেন নতুন বছরেও দেখতে না হয় সে প্রত্যাশা নারী নেত্রীদের।

নতুন বছরে অর্থনীতিতে বেগবান হওয়ার পাশাপাশি মানবাধিকার পরিস্থিতির উন্নয়ন, শিক্ষাক্ষেত্রে নৈরাজ্য দূর আর সাধারণ মানুষের জীবনবোধেও পরিবর্তন আসবে বলে প্রত্যাশা বিশিষ্টজনদের।

এই ক্যাটাগরীর আরও খবর

নেত্রীর রায় ঘোষণার পর বদলে গেছে বিএনপির হিসাব নিকাশ

আপিল নিষ্পত্তি না পর্যন্ত নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন খালেদা জিয়া

খালেদার রায়ে কোনো রাজনৈতিক প্রভাব নেই: ব্যারিস্টার সফিক

খালেদা জিয়া নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন, মতামত আইনজ্ঞদের

বেড়েছে শিশুদের ওপর হত্যা-ধর্ষণের ঘটনা

আগামী নির্বাচনে জনগণের ভোটাধিকার নিশ্চিত হয়, মতামত বিশিষ্টজনদের

সাফল্য-ব্যর্থতা, সংকট-সুরাহায় নানা উদ্যোগের মধ্যদিয়েই শেষ হলো ২০১৭

পুরনো গল্পে আর কবিতাই ফিরছে নতুন মলাটে পাঠ্যবই

রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে সেনাবাহিনীর হামলা আগে থেকে পরিকল্পিত: অ্যামনেস্টি

অল্প করুক আর বেশিই করুক খালেদা দুর্নীতি করেছে: মেনন

সুরকার-সংগীত পরিচালক আলী আকবর রুপু না ফেরার দেশে

সমাবেশর অনুমতি নেই, তাই নমনীয় কর্মসূচি বিএনপির