বিশেষ প্রতিবেদন

বৃহস্পতিবার, ০৯ নভেম্বর, ২০১৭ (১৪:১৭)

শেষ ধাপে রয়েছে একুশ আগস্ট গ্রেনেড হামলা-মামলার বিচার প্রক্রিয়া

শেষ-ধাপে-রয়েছে-একুশ-আগস্ট-গ্রেনেড-হামলা-মামলার-বিচার-প্রক্রিয়া

একুশ আগস্ট গ্রেনেড হামলা

একুশ আগস্ট গ্রেনেড হামলার মামলাটি বিচার প্রক্রিয়ার শেষ ধাপে রয়েছে তবে কত দিনে শেষ হবে সে বিষয়ে নিশ্চিত করে কিছু বলতে পারেননি মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি রেজাউর রহমান।

দেশ টিভির সঙ্গে একান্ত সাক্ষাতকারে এসব কথা বলেন তিনি।

চাঞ্চল্যকর এ মামলাটি দ্রুত শেষ করতে রাষ্ট্রপক্ষ সচেষ্ট রয়েছে তবে আসামিপক্ষের কালক্ষেপণের জন্য কিছুটা সময় লাগছে। এছাড়া, এই মামলার আসামিরা বেশ কয়েকটি মামলায় আসামি হওয়ার কারণেও কিছুটা ধীর গতিতে চলছে ২১ আগস্ট হামলার মামলার কার্যক্রম।

গত ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট বিএনপি-জামাত জোট সরকারের সময় রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে বিরোধীদল আওয়ামী লীগের জনসভা চলাকালে গ্রেনেড হামলা চালায় জঙ্গিরা। এ হামলায় আওয়ামী লীগের ২৪ জন নেতা-কর্মী নিহত আর আহত হন শতাধিক। তদন্তে বেরিয়ে আসে হামলায় সরাসরি সম্পৃক্ত ছিলো জঙ্গি সংগঠন হরকাতুল জিহাদ আর এতে সহায়তা করেছেন তৎকালিন স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর।

হামলার কয়েকদিন আগে জঙ্গি সংগঠন হরকাতুল জিহাদের সঙ্গে হাওয়া ভবনে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার ছেলে তারেক রহমানের বৈঠকের কথাও বেরিয়ে আসে।

এরইমধ্যে মামলাটির আইনি প্রক্রিয়ার সিংহভাগ শেষ হয়েছে বলে জানান রেজাউর রহমান।

২২৫ জন সাক্ষী ও ২০ জন সাফাই সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হয়েছে— সাক্ষী ও সাফাই সাক্ষীদের জেরাও শেষ করেছেন রাষ্ট্রপক্ষ ও আসামিপক্ষের আইনজীবীরা। এরইমধ্যে রাষ্ট্রপক্ষ তাদের যুক্তিতর্ক পাঁচ কার্যদিবস উপস্থাপন করেছেন।

খুব দ্রুতই শেষ হবে যুক্তিতর্ক উপস্থান—এ কথা উল্লেখ করে রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি রেজাউর রহমান বলেন, চাঞ্চল্যকর মামালাটির ধীরগতির বেশ কিছু কারণ রয়েছে। তার মধ্যে মামলার আসামিরা বেশ কয়েকটি মামলায় আসামি হওয়ার কারণেও কিছুটা ধীর গতিতে চলছে।

তথ্য বিভ্রাটের কারণে ২৯২ দিন মামলাটি কার্যক্রম বন্ধ ছিল জানিয়ে তিনি বলেন, আসামিপক্ষ অযথা সময় নষ্ট না করলে মামলাটি দ্রুততম সময়ের মধ্যে শেষ হবে।

এরইমধ্যে মামলাটির বেশ কয়েকজন আসামির ফাঁসি হয়েছে অন্য মামলায়। মামলার অন্যতম আসামি লুৎফুজ্জামান বাবর কারাগারে এবং অপর আসামি তারেক রহমান বিদেশে অবস্থান করছেন।

এই ক্যাটাগরীর আরও খবর

বেড়েছে শিশুদের ওপর হত্যা-ধর্ষণের ঘটনা

আগামী নির্বাচনে জনগণের ভোটাধিকার নিশ্চিত হয়, মতামত বিশিষ্টজনদের

সাফল্য-ব্যর্থতা, সংকট-সুরাহায় নানা উদ্যোগের মধ্যদিয়েই শেষ হলো ২০১৭

সহিংসতামুক্ত বাংলাদেশ দেখতে চান দেশের বিশিষ্টজনেরা

আরও খবর

রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের পাশে থাকার আশ্বাস ভারতের

রাজধানীতে কভার্ডভ্যানের চাপায় ২ যুবকের মৃত্যু

টঙ্গীতে জোড়া খুন মামলার প্রধান আসামিসহ গ্রেপ্তার ৫

খাদ্য সহায়তার তালিকায় সিরিয়া-ইয়েমেন-বাংলাদেশের শরণার্থীরা গুরুত্ব পাবে

অলিম্পিকে এক পতাকা তলে দুই কোরিয়া

অনূর্ধ্ব-১৯ যুব বিশ্বকাপ: বাংলাদেশকে হারালো ইংল্যান্ড

হঠাৎ অসুস্থ আইভী, আনা হলো ঢাকায়

খালেদার মামলা ২৩-২৪-২৫ জানুয়ারি পর্যন্ত মুলতবি

সেই অস্ত্রধারীর নাম নিয়াজুল ইসলাম খান

না’গঞ্জ সংঘর্ষ, অস্ত্র বহনকারীকে খোঁজা হচ্ছে: কামাল