বিশেষ প্রতিবেদন

মঙ্গলবার, ০৭ নভেম্বর, ২০১৭ (১৩:৫১)

উচ্চ পর্যায়ে ক্ষমতার অভিলাসেরই পরিণতি ৭ নভেম্বর

উচ্চ-পর্যায়ে-ক্ষমতার-অভিলাসেরই-পরিণতি-৭-নভেম্বর

উচ্চ পর্যায়ে ক্ষমতার অভিলাসেরই পরিণতি ৭ নভেম্বর

১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যার পর সেনাবাহিনীর উচ্চ পর্যায়ে ক্ষমতার অভিলাসেরই পরিণতি ৭ নভেম্বর-এমনটাই মনে করেন বিশ্লেষকরা। সেনাছাউনির অভ্যন্তরীণ কোন্দল আর সৈনিকদের অসন্তোষ এ ঘটনাকে বেগবান করে বলে অভিমত তাদের।

৩ নভেম্বরের অভ্যুত্থানে নেতৃত্ব দেয়া কর্মকর্তাদের অদূরদর্শীতাকেও তারা এ জন্য অনেকাংশেই দায়ী করেন রাজনৈতিক বিশ্লেষক ড. সৈয়দ আনোয়ার হোসেন।

ক্ষমতার আকাঙ্খা আর সেনাবাহিনীর অভ্যন্তরীন কোন্দলই ৭ নভেম্বরকে বেগবান করেছিল বলে মনে করেন তিনি।

আর সেনাবাহিনীর ভেতরে পাকিস্তানি ভাবধারার একটি শক্তিও এক্ষেত্রে জোরালো ভূমিকা রাখে বলে মনে করেন অবসরপ্রাপ্ত লে. কর্নেল জাফর ইমাম।

উল্লেখ্য, ৭৫'এর ৩ নভেম্বর গভীর রাতে কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দী থাকা জাতীয় চার নেতাকে হত্যা করা হয়। পরদিনই রাতেই খালেদ মোশাররফের নেতৃত্বে একটি অভ্যুত্থানে অন্তরীণ করা হয় তৎকালীন সেনাপ্রধান জিয়াউর রহমানকে। জেলহত্যার খবর অভ্যুত্থানকারী সেনা কর্মকর্তাদের কাছে পৌঁছায় ৪ নভেম্বর সকালে।

নভেম্বরের ৫ ও ৬ তারিখে কর্নেল তাহেরের নেতৃত্বে চলতে থাকে পাল্টা আরেকটি পরিকল্পনা। সেই পরিকল্পনা অনুযায়ী ৭ নভেম্বর পাল্টা অভ্যুত্থান হয়। হত্যা করা হয় মেজর জেনারেল খালেদ মোশাররফ, মেজর হায়দার ও এটিএন হুদাকে।

এই ক্যাটাগরীর আরও খবর

বেড়েছে শিশুদের ওপর হত্যা-ধর্ষণের ঘটনা

আগামী নির্বাচনে জনগণের ভোটাধিকার নিশ্চিত হয়, মতামত বিশিষ্টজনদের

সাফল্য-ব্যর্থতা, সংকট-সুরাহায় নানা উদ্যোগের মধ্যদিয়েই শেষ হলো ২০১৭

সহিংসতামুক্ত বাংলাদেশ দেখতে চান দেশের বিশিষ্টজনেরা

আরও খবর

রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের পাশে থাকার আশ্বাস ভারতের

রাজধানীতে কভার্ডভ্যানের চাপায় ২ যুবকের মৃত্যু

টঙ্গীতে জোড়া খুন মামলার প্রধান আসামিসহ গ্রেপ্তার ৫

খাদ্য সহায়তার তালিকায় সিরিয়া-ইয়েমেন-বাংলাদেশের শরণার্থীরা গুরুত্ব পাবে

অলিম্পিকে এক পতাকা তলে দুই কোরিয়া

অনূর্ধ্ব-১৯ যুব বিশ্বকাপ: বাংলাদেশকে হারালো ইংল্যান্ড

হঠাৎ অসুস্থ আইভী, আনা হলো ঢাকায়

খালেদার মামলা ২৩-২৪-২৫ জানুয়ারি পর্যন্ত মুলতবি

সেই অস্ত্রধারীর নাম নিয়াজুল ইসলাম খান

না’গঞ্জ সংঘর্ষ, অস্ত্র বহনকারীকে খোঁজা হচ্ছে: কামাল