বিশেষ প্রতিবেদন

সোমবার, ১০ জুলাই, ২০১৭ (১৪:৫৪)

চিকুনগুনিয়া ভাইরাসে আতঙ্কিত নগরবাসী

চিকুনগুনিয়া-ভাইরাসে-আতঙ্কিত-নগরবাসী

চিকুনগুনিয়া ভাইরাসে আতঙ্কিত নগরবাসী

রাজধানীতে ব্যাপকভাবে বাড়ছে চিকুনগুনিয়া ভাইরাসের বিস্তৃতি—এতে আতঙ্কিত নগরবাসী।

দেশের বিভিন্ন জায়গাতে দেখা দিচ্ছে এই ভাইরাসের প্রকোপ। জ্বর আর প্রচণ্ড ব্যথার লক্ষণযুক্ত এ ভাইরাস মোকাবেলায় সচেতনতা আর এর বাহক এডিস মশা নিধনের ওপর জোর দিচ্ছেন চিকিৎসকরা।

এক্ষেত্রে মশা নিধনে সিটি করপোরেশন প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নিচ্ছে না বলে অভিযোগ করেছেন নগরবাসীর অনেকেই।

তারা বলছেন, সিটি করপোরেশনের পর্যাপ্ত উদ্যোগের অভাবেই চিকুনগুনিয়ার সংক্রমণ বাড়ছে। আবার কোনো কোনো এলাকায় মশা নিধনে স্প্রে করা হলেও ওষুধের মান নিয়ে প্রশ্ন রয়েছে মানুষের মধ্যে।

এডিস প্রজাতির এডিস ইজিপ্টি এবং এডিস এলবোপিকটাস মশার মাধ্যমে চিকুনগুনিয়া রোগের সংক্রমণ ঘটে। চিকুনগুনিয়া ভাইরাসটি টোগা ভাইরাস গোত্রের। মশাবাহিত হওয়ার কারণে একে ভাইরাসও বলে। ডেঙ্গু ও জিকা ভাইরাসও এই মশার মাধ্যমে ছড়ায়, রোগের লক্ষণও প্রায় একই রকম। এ ধরণের মশা সাধারণত ভোরবেলা অথবা সন্ধ্যায় কামড়ায়। একটি পরিবারের একজন আক্রান্ত হলে মশার মাধ্যমে অন্যদেরও আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি থাকে।

রাজধানীর পূর্ব তেজকুনিপাড়ার বাসিন্দা, ব্যবসায়ী জাভেদ চৌধুরী দুদিন ধরে জ্বরে ভুগছেন। একই এলাকার শহীদুল ইসলাম বাদলও কয়েকদিন আগে জ্বর থেকে উঠেছেন। তাদের অভিযোগ, মশা নিধনে সিটি করপোরেশন কার্যকর ব্যবস্থা না নেয়ায় এই ভাইরাস ব্যাপকভাবে ছড়িয়েছে।

তবে কোনো কোনো এলাকায় মশা নিধনের তৎপরতাও দেখা গেছে।

দক্ষিণ সিটি কপোরেশনের ২৬ নম্বর এই ওয়ার্ডে বাড়ি বাড়ি গিয়ে দিনে দু'বার করে স্প্রে করা হয়।

এই ভাইরাস প্রতিরোধে জনসচেতনতা বাড়ানোর কথা বলেন কাউন্সিলর হাসিবুর রহমান মানিক।

একই কথা জানান একই সিটি কপোরেশনের ৩৩ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আওয়াল হোসেনও।

তবে মশা নিধনে ব্যবহৃত ওষুধের মান সম্পর্কে তিনি প্রশ্ন তুললেন।

এদিকে, চিকুনগুনিয়ায় আক্রান্তদের ক্ষতিপূরণ দিতে কেনো নিদের্শ দেয়া হবে না তা জানতে চেয়ে রোববার রুল জারি করে হাইকোর্ট।

স্বাস্থ্যসচিব, স্থানীয় সরকার সচিব, ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র এবং সিটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তাকে তিন সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

এই ক্যাটাগরীর আরও খবর

বেড়েছে শিশুদের ওপর হত্যা-ধর্ষণের ঘটনা

আগামী নির্বাচনে জনগণের ভোটাধিকার নিশ্চিত হয়, মতামত বিশিষ্টজনদের

সাফল্য-ব্যর্থতা, সংকট-সুরাহায় নানা উদ্যোগের মধ্যদিয়েই শেষ হলো ২০১৭

সহিংসতামুক্ত বাংলাদেশ দেখতে চান দেশের বিশিষ্টজনেরা

আরও খবর

রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের পাশে থাকার আশ্বাস ভারতের

রাজধানীতে কভার্ডভ্যানের চাপায় ২ যুবকের মৃত্যু

টঙ্গীতে জোড়া খুন মামলার প্রধান আসামিসহ গ্রেপ্তার ৫

খাদ্য সহায়তার তালিকায় সিরিয়া-ইয়েমেন-বাংলাদেশের শরণার্থীরা গুরুত্ব পাবে

অলিম্পিকে এক পতাকা তলে দুই কোরিয়া

অনূর্ধ্ব-১৯ যুব বিশ্বকাপ: বাংলাদেশকে হারালো ইংল্যান্ড

লেগানেসের বিপক্ষে জয় পেল রিয়াল মাদ্রিদ

ফ্রেডিরিকের তাণ্ডবে বিপর্যস্ত ইউরোপ

আমরণ অনশন কর্মসূচির পঞ্চম দিনে শিক্ষকরা

শতাধিক রোহিঙ্গা বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে: রয়টার্স