ড. ইউনুস কর ফাঁকি নিয়ে ভুল ব্যাখ্যা দিচ্ছেন: মতামত বিশেষজ্ঞদের

সোমবার, ৩০ জানুয়ারী, ২০১৭ (১৫:০২)
ড-ইউনুস-কর-ফাঁকি-নিয়ে-ভুল-ব্যাখ্যা-দিচ্ছেন-মতামত-বিশেষজ্ঞদের

ড. ইউনুস

গ্রামীণফোনের শেয়ার এবং ড. ইউনুসের কর ফাঁকি নিয়ে ইউনুস সেন্টার ভুল ব্যাখ্যা দিচ্ছে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

তাদের মতে, যেহেতু গ্রামীণ টেলিকম, গ্রামীণ ব্যাংকের একটি সাবসিডিয়ারি কোম্পানি তাই এর লভ্যাংশের মালিকানাও গ্রামীণ দুঃস্থ নারীদের।

বিষয়টি নিয়ে দেশটিভির সঙ্গে একান্ত সাক্ষাতকারে এ মত তুলে ধরেন ঢাবির সাবেক শিক্ষক একে মনোয়ার উদ্দিন আহমদ ও বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ফরাস উদ্দিন।

এই লভ্যাংশের ১৭ হাজার কোটি টাকা গ্রামীণ ব্যাংকের হাতে ফিরিয়ে দিতে মামলা করার পরামর্শ দিয়েছেন তারা। আর ড. ইউনুসের কাছে বকেয়া করের পরিমাণ নির্ধারণ করতে রিভিউ করার মতামতও দিয়েছেন তারা।

গত ২৫ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সংসদে বলেন, ড. ইউনুস একজন প্রতারক—প্রতিশ্রতি অনুযায়ী গ্রামীণ ফোনের মুনাফার টাকা তিনি গ্রামীণ ব্যাংকে দেননি।

গত শনিবার, নিজেদর ওয়েবসাইটে প্রধানমন্ত্রীর এ বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়েছে ইউনুস সেন্টার। তাতে বলা হয়েছে, প্রতিষ্ঠার সময় গ্রামীণফোনে গ্রামীণব্যাংকের কোনো শেয়ার ছিল না, এই প্রতিষ্ঠান করা হয়েছে সরোস ফাউন্ডেশন থেকে অর্থ ধার করে।

কিন্তু ইউনুস সেন্টারের এই বক্তব্যের সঙ্গে একমত হতে পারছেন না বিশেষজ্ঞরা।

সংসদে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ড. ইউনুস কর দেন না, কর এড়ানোর জন্য মামলা করেছেন।

প্রধানমন্ত্রীর এ বক্তব্যকেও সম্পূর্ণ মিথ্যা দাবি করেছে ইউনুস সেন্টার। তারা বলছে, ড. ইউনুস প্রতিবছর বিপুল পরিমাণে কর দিয়ে থাকেন। তাদের দাবি, দীর্ঘদিন ধরে প্রচলিত কর আইনের একটি ধারার ব্যাখ্যা পরিবর্তন করার কারণে ড. ইউনুসের করের উপর প্রভাব পড়ে। এর ফলে আকস্মিকভাবে তাকে একটি বড় অংকের বকেয়া করের মুখোমুখী হতে হয়। ড. ইউনুস এ বিষয়ে সুবিচারের জন্য আদালতে গেছেন।

ঢাবির সাবেক শিক্ষক একে মনোয়ার উদ্দিন আহমদ ও বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ফরাস উদ্দিনের পরামর্শ, কাউকে হেয় প্রতিপন্ন করার উদ্দেশ্য না নিয়ে সঠিকভাবে বিচার বিশ্লেষণ করে এ বিষয়গুলো জনসম্মুখে আনা উচিত।

এই ক্যাটাগরীর আরও খবর

ঠাকুরপাড়ায় হিন্দু বাড়িগুলোতে হামলায় নেতৃত্ব দেয় জামাত-বিএনপি-জাপা

চলছে রাজনৈতিক দরকষাকষি, নির্বাচন করতে পারবে না জামাত

ভয়াল ১২ নভেম্বর: প্রলয়ঙ্করী ঘূর্ণিঝড় কেড়ে নিয়েছিল ৫ লাখ মানুষের জীবন

শেষ ধাপে রয়েছে একুশ আগস্ট গ্রেনেড হামলা-মামলার বিচার প্রক্রিয়া

উচ্চ পর্যায়ে ক্ষমতার অভিলাসেরই পরিণতি ৭ নভেম্বর

অভ্যুত্থান সফল না হওয়ার জন্য মোশাররফের অদূরদর্শিতাই দায়ী