যুক্তরাষ্ট্র টিপিপি ছাড়ায় বাংলাদেশের স্বস্তি

শনিবার, ২৮ জানুয়ারী, ২০১৭ (১৫:৫৯)
যুক্তরাষ্ট্র-টিপিপি-ছাড়ায়-বাংলাদেশের-স্বস্তি

যুক্তরাষ্ট্র টিপিপি ছাড়ায় বাংলাদেশের স্বস্তি

ট্রাম্প সরকার ট্রান্সপারেন্সি প্যাসিফিক পার্টনারশিপ (টিপিপি) চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্র সরে যাওয়ায় বাংলাদেশের তৈরি পোশাকের জন্য একটি ইতিবাচক পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। টিপিপি চুক্তির ফলে যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে বাংলাদেশের যে প্রতিবন্ধকতা বা বৈষম্যর শিকার হওয়ার শংকা সৃষ্টি হয়েছিল চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্র সরে দাড়ানোয় এখন আর তা থাকছেনা। এমন মন্তব্য ব্যবসায়ী ও উদ্যোক্তাদের।

শুধু টিপিপির সুবিধা কাজে লাগাতে নয় পাশাপাশি বাংলাদেশকে বিশ্ববাজারের প্রতিযোগিতায় জায়গা করে নিতে নতুন নতুন বাজারের সন্ধান এবং নিজেদের সক্ষমতা বাড়ানোর ও কর্মপরিবেশ উন্নত করার পরামর্শ অর্থনীতি বিশ্লেষকদের।

প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের ১২টি দেশের মধ্যে মুক্ত বাণিজ্যের উদ্দেশ্যে যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বে স্বাক্ষরিত হয়েছিল ট্রান্স প্যাসিফিক পার্টনারশিপ (টিপিপি) চুক্তি। এরফলে যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে এসব দেশ পণ্য রপ্তানিতে শুল্কমুক্ত সুবিধা পেতো।

যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে বাংলাদেশকে ১৬% শুল্ক দিয়ে তৈরি পোশাক রপ্তানি করতে হয়। কিন্তু টিপিপি চুক্তির ফলে বাংলাদেশের অন্যতম প্রধান প্রতিদ্বন্ধী ভিয়েতনাম বিনাশুল্কে রপ্তানির সযোগ পেতো। ফলে টিপিপি চুক্তি বাস্তবায়িত হলে বাংলাদেশকে বিরুপ পরিস্থিতিতে পড়তে হতো।

সোমবার ডোনাল্ড ট্রাম্প টিপিপি চুক্তি থেকে যুক্তরাস্ট্রকে সরিয়ে নেয়ার নির্বাহী আদেশে স্বাক্ষর করায় সাম্ভাব্য সংকটজনক পরিস্থিতি থেকে রক্ষা পেয়েছে বাংলাদেশ।

বাংলাদেশে গার্মেন্টস মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ বলছে, এটি বাংলাদেশের জন্য একটি ইতিবাচক দিক।

উদ্যোক্তারা বলছেন, শুধু তৈরি পোশাক খাতই নয় বাংলাদেশের অন্যান্য রপ্তানিপণ্যও যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে এর সুবিধা পাবে। ফলে নতুন উদ্যোক্তারা লাভবান হবেন।

আর অর্থনীতি বিশ্লেষকরা বলছেন, টিপিপি চুক্তি বাতিলের সুবিধা কাজে লাগাতে বাংলাদেশকে এখনো কমপক্ষে সাত আট বছর অপেক্ষা করতে হবে। এ সুবিধার পাশাপাশি তৈরি পোশাকের নতুন বাজারের সন্ধান ও নিজেদের সক্ষমতা ও দক্ষতা বাড়ানোর পরামর্শ তাদের।

এই ক্যাটাগরীর আরও খবর

ঠাকুরপাড়ায় হিন্দু বাড়িগুলোতে হামলায় নেতৃত্ব দেয় জামাত-বিএনপি-জাপা

চলছে রাজনৈতিক দরকষাকষি, নির্বাচন করতে পারবে না জামাত

ভয়াল ১২ নভেম্বর: প্রলয়ঙ্করী ঘূর্ণিঝড় কেড়ে নিয়েছিল ৫ লাখ মানুষের জীবন

শেষ ধাপে রয়েছে একুশ আগস্ট গ্রেনেড হামলা-মামলার বিচার প্রক্রিয়া

উচ্চ পর্যায়ে ক্ষমতার অভিলাসেরই পরিণতি ৭ নভেম্বর

অভ্যুত্থান সফল না হওয়ার জন্য মোশাররফের অদূরদর্শিতাই দায়ী