সদ্য পাওয়া
Desh TV Logo জাতীয়: দুর্নীতি দমনে কঠোর অবস্থান নিতে জেলা প্রশাসকদের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর; সরকারি সেবা গ্রহণে সাধারণ মানুষ যাতে হয়রানির শিকার না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে বললেন Desh TV Logo পাহাড় ধসে কক্সবাজারে ৪ জনের প্রাণহানি Desh TV Logo মওদুদ আমহদের বিরুদ্ধে জ্ঞাত-আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জন ও তথ্য গোপনের মামলা চলবে, আবেদন খারিজ হাইকোর্টে Desh TV Logo আগামী নির্বাচন বানচাল করতে খালেদা জিয়া লন্ডনে বসে ষড়যন্ত্র শুরু করেছেন: মোহাম্মদ নাসিম Desh TV Logo ইয়াবাকে ‘ক’ শ্রেণীর মাদকদ্রব্যে অন্তর্ভুক্ত করে মৃত্যুদণ্ডের বিধান রেখে নতুন আইন হচ্ছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী Desh TV Logo হবিগঞ্জে চাঞ্চল্যকর ৪ শিশু হত্যা মামলার রায় কাল Desh TV Logo আন্তর্জাতিক: ভারতের ১৪ তম রাষ্ট্রপতি হিসেবে শপথ নিলেন রামনাথ কোবিন্দ; বললেন ভারতের সাফল্যের মূলমন্ত্র বৈচিত্রের মধ্যে ঐক্য Desh TV Logo জেরুজালেমে হারাম আল শরীফের প্রবেশ পথ থেকে মেটাল ডিটেক্টর সরিয়ে নিচ্ছে ইসরায়েল Desh TV Logo খেলা: ক্রিকেট: বাংলাদেশের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে সন্তুষ্ট অস্ট্রেলিয়ার নিরাপত্তা দল; ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে শিগগিরই খেলোয়াড়দের ঝামেলা মিটে গেলে বাংলাদেশে আসতে কোনো আপত্তি নেই Desh TV Logo বোর্ড দাবি না মানলে বাংলাদেশ সফরে আসবে না অজি ক্রিকেটাররা; খেলোয়াড়দের সংগঠনের প্রধান নির্বাহীর সঙ্গে বৈঠকের পর সিদ্ধান্ত Desh TV Logo ফুটবল: ইউরো নারী চ্যাম্পিয়নশিপ: নেদারল্যান্ডস ২-১ বেলজিয়াম ও নরওয়ে ০-১ ডেনমার্ক; ‘এ’ গ্রুপ থেকে শেষ আটে নেদারল্যান্ডস ও ডেনমার্ক Desh TV Logo দেশ টিভির সংবাদ দেখুন সকাল সাড়ে ৭টা, ১০টা, বেলা ১২টা, দুপুর ২টা, বিকাল ৪টা, সন্ধ্যা ৭টা, রাত ৯টা, ১১টা এবং ১টায়

শিক্ষা বইয়ে অপ্রাসঙ্গিকভাবেই আনা হয়েছে ধর্মীয় বিষয়

শুক্রবার, ২০ জানুয়ারী, ২০১৭ (১৪:৪৮)
শিক্ষা-বইয়ে-অপ্রাসঙ্গিকভাবেই-আনা-হয়েছে-ধর্মীয়-বিষয়

পাঠ্যবই

নতুন পাঠ্যপুস্তকে অসংখ্য ভুলের সঙ্গে রয়েছে নানা অসঙ্গতি এবং অপ্রাসঙ্গিক বিষয়ও— নিখাঁদ সাহিত্য ও ভাষা শিক্ষার বইয়ে অপ্রাসঙ্গিকভাবেই তুলে আনা হয়েছে ধর্মীয় বিষয়।

হিন্দুত্ববাদের দোহাই দিয়ে বাদ দেয়া হয়েছে প্রগতিশীল লেখকদের গল্প, কবিতা। প্রাথমিক ও মাধ্যমিক দুই স্তরেই যুক্ত করা হয়েছে ধর্মীয় ভাবধারার একাধিক গল্প, কবিতা।

শিক্ষাবিদদের মতে, পাঠ্যবইয়ে এমন পরিবর্তন উদ্দেশ্য প্রণোদিত, সুপরিকল্পিতভাবে শিক্ষা ব্যবস্থায় মৌলবাদ ঢুকিয়ে দেয়া হয়েছে। বিষয়টিকে বাঙালি জাতিকে সাম্প্রদায়িকীকরণের সংকেত হিসেবে দেখছেন তারা।

এবারের পাঠ্যবইয়ে ভুলভ্রান্তির পাশাপাশি বিতর্ক সৃষ্টি করেছে নতুন লেখা যোগ করা এবং পুরনো লেখা বাদ দেয়ার বিষয়। আর নয়টি শ্রেনিরই পাঠ্যবইয়ে কোনও না কোনো ভুল, বিকৃত তথ্য, কবিতার শব্দ ফেলে দিয়ে নতুন শব্দ বসানোর নজির তো আছেই।

অনুসন্ধানে জানা গেছে, প্রাথমকি ও মাধ্যমিক দুই স্তরের বাংলা বই থেকে ২০১২ সালে যে বিষয়গুলো বাদ দেয়া হয়েছিল, তার সবই ফিরে এসেছে ২০১৭ সালের সংস্করণে। আবার ২০১২ সালের বইয়ে নতুন যে বিষয় অন্তর্ভূক্ত হয়েছিল সেগুলো বাদ দেয়া হয়েছে।

প্রাথমিক স্তরের পরিমার্জিত নতুন বাংলা বইয়ে যুক্ত হয়েছে, দ্বিতীয় শ্রেনির বাংলা বইয়ে অর্ন্তভুক্ত হয়েছে ‘সবাই মিলে করি কাজ’, তৃতীয় শ্রেনিতে ‘খলিফা হযরত আবু বকর (রা.)’, চতুর্থ শ্রেনিতে ‘খলিফা হযরত ওমর (রা.)’, পঞ্চম শ্রেনিতে ‘বিদায় হজ’ ও ‘শহীদ তিতুমীর’ ‘শিক্ষাগুরুর মর্যাদা’।

আর বাদ পড়েছে, বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ হুমায়ুন আজাদের লেখা ‘বই’, কবি মোস্তফা রচিত ‘প্রার্থনা’।

এরমধ্যে ‘সবাই মিলে করি কাজ’ হযরত মুহাম্মদ (সা.) জীবনচরিত ‘খলিফা হযরত আবু বকর (রা.)’ এবং ‘খলিফা হযরত ওমর (রা.)’ শীর্ষক বিষয়গুলো বাংলা বইয়ে না থাকলেও ইসলাম ও নৈতিক শিক্ষায় অর্ন্তভুক্ত ছিল।

শিক্ষাবিদদের মতে, পাঠ্যবইয়ে এ পরিবর্তন ‘জাতীয় শিক্ষানীতি’ এবং সংবিধান পরিপন্থি।

হলি আর্টিজান, শোলাকিয়াসহ জঙ্গি কর্মকাণ্ডে শিক্ষার্থীদের সম্পৃক্ততা উল্লেখ অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী করে বলেন, এ পাঠ্যপুস্তকের মধ্য দিয়ে শিশুরা মৌলবাদ শিখে বেড়ে উঠবে, যা মুক্তিযুদ্ধের চেতনার গড়া বাংলাদেশের জন্য বড় ধরনের হুমকি।

মূল ধারার শিক্ষা ব্যবস্থাকে মাদ্রাসা শিক্ষার দিকে ঠেলে দিয়ে, একটি গোষ্ঠীর দাবি মেটাতে সরকার আগামী প্রজন্মকে মৌলবাদি চিন্তা ধারায় গড়ে ওঠার যে প্রক্রিয়া শুরু করেছে, তা থেকে বের হয়ে আসার তাগিদ আরেক শিক্ষাবিদের।

২০১৩ সালে সংস্করণ করা পাঠ্যপুস্তকের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে বেশ কিছু সুপারিশ তুলে ধরেছিল হেফাজতে ইসলাম। বিশেষজ্ঞদের মতে, সেই দাবিরই প্রতিফলন ঘটেছে এবারের পাঠ্যপুস্তকে।

এই ক্যাটাগরীর আরও খবর

পুরনো সংবাদ

শুক্র
শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
 
০১
০২
০৩
০৪
০৫
০৬
০৭
০৮
০৯
১০
১১
১২
১৩
১৪
১৫
১৬
১৭
১৮
১৯
২০
২১
২২
২৩
২৪
২৫
২৬
২৭
২৮
২৯
৩০
৩১