সদ্য পাওয়া
Desh TV Logo জাতীয়: হাওরে বাঁধ নির্মাণে কোনো ধরনের গাফিলতি থাকলে কঠোর ব্যবস্থা, দুর্গত এলাকা পরিদর্শন শেষে প্রধানমন্ত্রী; খাদ্যসহ সবধরনের সহায়তা, বিনামূল্যে কৃষি উপকরণের আশ্বাস Desh TV Logo আগামী বাজেট হবে উচ্চাভিলাষী; করমুক্ত আয় সীমা বাড়তে পারে, কমবে করপোরেট করের হার: অর্থমন্ত্রী Desh TV Logo দেশে আইনের শাসন না থাকায় প্রধান বিচারপতিকে এত কথা বলতে হয়: প্রধান বিচারপতি Desh TV Logo ফর্মুলা না দিয়ে আগামী নির্বাচনের প্রস্তুতি নিতে বিএনপির প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন মো. নাসিম Desh TV Logo কাল সকাল ১০টায় নয়াপল্টন থেকে মে দিবসের র্যা লী করবে শ্রমিক দল Desh TV Logo মানবতাবিরোধী অপরাধ প্রমাণ না হলে কাউকে রাজাকার বলা যাবে না: আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল Desh TV Logo দিন দিন অবনতি হচ্ছে হাওরের বন্যা পরিস্থিতি; খাবার, বিশুদ্ধ পানি এবং গবাদী পশুর খাদ্যে সঙ্কট দেখা দিয়েছে Desh TV Logo ফরিদপুরের সালথায় দুই ইউপি চেয়ারম্যান সমর্থকদের সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ২০ Desh TV Logo বিশিষ্ট আবৃত্তিকার কাজী আরিফের প্রথম জানাজা নিউইয়র্কে অনুষ্ঠিত, মঙ্গলবার সকালে মরদেহ ঢাকায় পৌঁছাবে; প্রধানমন্ত্রীর শোক Desh TV Logo আন্তর্জাতিক: যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হিসেবে ১০০তম দিনে আয়োজিত সমাবেশে আবারো গণমাধ্যমের ওপর চড়াও হলেন ট্রাম্প, গণমাধ্যমে তার সমালোচনাকে ‘ভুয়া খবর’ হিসেবে উল্লেখ করেছেন; ট্রাস্পের জলবায়ু নীতির বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ Desh TV Logo কিউবায় সামরিক বিমান বিধ্বস্ত হয়ে ৮ সেনা সদস্য নিহত Desh TV Logo খেলা: ফুটবল: স্প্যানিশ লা লিগা: রিয়াল মাদ্রিদ ২-১ ভ্যালেন্সিয়া, লাস পালমাস ০-৫ অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ, এস্পানিওল ০-৩ বার্সেলোনা; এক ম্যাচ বেশি খেলে শীর্ষে বার্সা Desh TV Logo জার্মান বুন্দেসলিগা: উলফসবার্গ ০-৬ বায়ার্ন মিউনিখ, বায়ার্নের টানা ৫ম লিগ শিরোপা জয় Desh TV Logo টেনিস: স্টুটগার্ড ওপেনের সেমিফাইনাল থেকে বিদায় মারিয়া শারাপোভার, বার্সেলোনা ওপেনের শেষ চার থেকে বাদ পড়লেন অ্যান্ডি মারে Desh TV Logo দেশ টিভির সংবাদ দেখুন সকাল সাড়ে ৭টা, ১০টা, বেলা ১২টা, দুপুর ২টা, বিকেল ৪টা, সন্ধ্যা ৭টা, রাত ৯টা, ১১টা এবং ১টায়

ঘটনাবহুল ওয়ান ইলেভেন

রবিবার, ২৯ জানুয়ারী, ২০১৭ (১৪:০১)
ঘটনাবহুল-ওয়ান-ইলেভেন-আজ

তত্ত্বাবধায়ক সরকার

ঘটনাবহুল ওয়ান ইলেভেন আজ (বুধবার)— দশ বছর আগে এমন দিনেই জরুরি অবস্থা ঘোষণার মধ্য দিয়ে দেশের শাসনভার নিয়েছিল সেনা সমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক সরকার। রাজনৈতিক দলগুলোর হানাহানি আর মতানৈক্যের জেরে ক্ষমতায় আসা ওই সরকার পাল্টে দিয়েছিল দেশের রাজনৈতিক ইতিহাসের গতি প্রকৃতি।

তবে সেই ওয়ান ইলেভেনের দশ বছর পরও রাজনীতিকরা মতৈক্য আর একাত্মবোধের রাজনীতির শিক্ষা নেননি-এমনটাই মত বিশ্লেষকদের? আর ঘটনার দশ বছর পর এসে তাদের করণীয়ই বা কী?

ঘটনা দশ বছর আগে ২০০৭ সালের ১১ জানুয়ারি— জাতীয় নির্বাচন নিয়ে রাজনৈতিক দলগুলোর মতানৈক্যের প্রেক্ষাপটে আসে জরুরি অবস্থা আর সেনা সমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক শাসন। চ্যালেঞ্জের মুখে পড়ে গোটা রাজনৈতিক ব্যবস্থাই।

গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রব্যবস্থায় একটি রাজনৈতিক সরকারের মেয়াদ শেষে যে নির্বাচনের মধ্য দিয়ে ক্ষমতার পালাবদল, সেই স্বতঃসিদ্ধ বিধানটাই ভুলুণ্ঠিত হয়েছিল ২০০৭-০৮ সালের এক-এগারোয়। দুই শীর্ষ রাজনৈতিক নেত্রীকে টার্গেট করে এজেন্ডা ছিল মাইনাস টু ফর্মূলা। জেলে যেতে হয় শেখ হাসিনা, খালেদা জিয়াসহ দেড় শতাধিক রাজনীতিককে।

তবে যে মতানৈক্যের জেরে আসে ওয়ান ইলেভেন তা থেকে কী শিক্ষা নিয়েছেন রাজনীতিবিদরা? সহনশীলতা কী ফিরেছে রাজনীতিতে?

বিশ্লেষকরা রাজনৈতিক সহনশীলতার ওপর জোর দিলেও রাজনীতিকরা বিষয়টিকে দেখছেন ভিন্নভাবে। ওয়ান ইলেভেন আর ফিরবে না; আইন করে সে প্রেক্ষাপট বন্ধের বিষয়টিকে সামনে আনছেন তারা।

পারস্পরিক শ্রদ্ধাবোধের রাজনীতি আর সহনশীলতাকে রাজনীতিকরা কৌশলে এড়িয়ে যেতে চাইলেও; বিশ্লেষকদের মতে, জাতীয় স্বার্থে ঐক্যে পৌঁছতে হবে রাজনৈতিক দলগুলোকে। করতে হবে সুষ্ঠু গণতান্ত্রের চর্চা।

এর বিপরীতে আবারও উত্থান হতে পারে ওয়ান ইলেভেন কিংবা তার চেয়েও ক্ষতিকর কিছু আর এক্ষেত্রে রাজনীতিবিদদের আরও দায়িত্বশীল ভূমিকা প্রত্যাশা করেন বিশ্লষকরা।

এই ক্যাটাগরীর আরও খবর

পুরনো সংবাদ

শুক্র
শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
 
০১
০২
০৩
০৪
০৫
০৬
০৭
০৮
০৯
১০
১১
১২
১৩
১৪
১৫
১৬
১৭
১৮
১৯
২০
২১
২২
২৩
২৪
২৫
২৬
২৭
২৮
২৯
৩০