সদ্য পাওয়া
Desh TV Logo জাতীয়: রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেয়ায় জাতিসংঘ মহাসচিব প্রশংসা করেছেন, তিনি বাংলাদেশের পাশেই আছেন, রোহিঙ্গা শরণার্থীদের ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমারকে চাপ প্রয়োগে ওআইসি’র প্রতি আহ্বান, রোহিঙ্গা ইস্যুতে বিশ্ব সম্প্রদায় বাংলাদেশের প্রশংসা করেছে: নিউইয়র্কে সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা Desh TV Logo রোহিঙ্গা সংকটের স্থায়ী সমাধানে জাতিসংঘে ৫ দফা প্রস্তাব প্রধানমন্ত্রীর, দ্রুত কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণে জাতিসংঘ ও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান Desh TV Logo রাখাইনে রোহিঙ্গা গ্রামে বাড়িঘরে এখনো আগুন জ্বলছে: অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল Desh TV Logo রোহিঙ্গা শরণার্থীদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ ও পুনর্বাসনে সেনাবাহিনী কাজ শুরু করেছে Desh TV Logo জঙ্গি অর্থায়নে জড়িত থাকার অভিযোগে রাজধানী থেকে ১১ জনকে গ্রেপ্তার করেছে র্যা ব Desh TV Logo নওগাঁয় বাসের ধাক্কায় ২ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত Desh TV Logo আন্তর্জাতিক: জম্মু ও কাশ্মির সীমান্তে ভারতীয় সেনাবাহিনীর গুলিতে ৬ পাকিস্তানি নাগরিক নিহত, দাবি পাকিস্তান সেনাবাহিনীর Desh TV Logo মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এবং উত্তর কোরীয় নেতা উনের বাকযুদ্ধকে কিন্ডাগার্টেনের শিশুদের ঝগড়ার সঙ্গে তুলনা করেছেন রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী Desh TV Logo জার্মানিতে কাল জাতীয় নির্বাচনের ভোটগ্রহণ, জনমত জরিপে প্রতিদ্বন্দ্বী মার্টিন শুলজের চেয়ে এগিয়ে চ্যান্সেলর মেরকেল Desh TV Logo ইন্দোনেশিয়ার বালিতে আগ্নেয়গিরির অগ্নুৎপাতের আশঙ্কা, সর্বোচ্চ সতর্কতা জারি, ১০ হাজার লোককে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে Desh TV Logo খেলা: ক্রিকেট: বেনোনিতে প্রস্তুতি ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ব্যাট করছে বাংলাদেশ; স্কোর: বাংলাদেশ-৩০৬/৭ ডি. ও ৬/০ (ইমরুল ৪*, লিটন ২*), দক্ষিণ আফ্রিকা আমন্ত্রিত একাদশ ৩১৩/৮ ডি. Desh TV Logo ই ডেন গার্ডেন্সে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে অস্ট্রেলিয়াকে ৫০ রানে হারিয়েছে ভারত Desh TV Logo ফুটবল: উলফসবুর্গের বিপক্ষে ঘরের মাঠে ২-২ গোলে ড্র করেছে বায়ার্ন মিউনিখ Desh TV Logo দেশ টিভির সংবাদ দেখুন সকাল সাড়ে ৭টা, ১০টা, বেলা ১২টা, দুপুর ২টা, বিকাল ৪টা, সন্ধ্যা ৭টা, রাত ৯টা, ১১টা এবং ১টায়

ঘটনাবহুল ওয়ান ইলেভেন

রবিবার, ২৯ জানুয়ারী, ২০১৭ (১৪:০১)
ঘটনাবহুল-ওয়ান-ইলেভেন-আজ

তত্ত্বাবধায়ক সরকার

ঘটনাবহুল ওয়ান ইলেভেন আজ (বুধবার)— দশ বছর আগে এমন দিনেই জরুরি অবস্থা ঘোষণার মধ্য দিয়ে দেশের শাসনভার নিয়েছিল সেনা সমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক সরকার। রাজনৈতিক দলগুলোর হানাহানি আর মতানৈক্যের জেরে ক্ষমতায় আসা ওই সরকার পাল্টে দিয়েছিল দেশের রাজনৈতিক ইতিহাসের গতি প্রকৃতি।

তবে সেই ওয়ান ইলেভেনের দশ বছর পরও রাজনীতিকরা মতৈক্য আর একাত্মবোধের রাজনীতির শিক্ষা নেননি-এমনটাই মত বিশ্লেষকদের? আর ঘটনার দশ বছর পর এসে তাদের করণীয়ই বা কী?

ঘটনা দশ বছর আগে ২০০৭ সালের ১১ জানুয়ারি— জাতীয় নির্বাচন নিয়ে রাজনৈতিক দলগুলোর মতানৈক্যের প্রেক্ষাপটে আসে জরুরি অবস্থা আর সেনা সমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক শাসন। চ্যালেঞ্জের মুখে পড়ে গোটা রাজনৈতিক ব্যবস্থাই।

গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রব্যবস্থায় একটি রাজনৈতিক সরকারের মেয়াদ শেষে যে নির্বাচনের মধ্য দিয়ে ক্ষমতার পালাবদল, সেই স্বতঃসিদ্ধ বিধানটাই ভুলুণ্ঠিত হয়েছিল ২০০৭-০৮ সালের এক-এগারোয়। দুই শীর্ষ রাজনৈতিক নেত্রীকে টার্গেট করে এজেন্ডা ছিল মাইনাস টু ফর্মূলা। জেলে যেতে হয় শেখ হাসিনা, খালেদা জিয়াসহ দেড় শতাধিক রাজনীতিককে।

তবে যে মতানৈক্যের জেরে আসে ওয়ান ইলেভেন তা থেকে কী শিক্ষা নিয়েছেন রাজনীতিবিদরা? সহনশীলতা কী ফিরেছে রাজনীতিতে?

বিশ্লেষকরা রাজনৈতিক সহনশীলতার ওপর জোর দিলেও রাজনীতিকরা বিষয়টিকে দেখছেন ভিন্নভাবে। ওয়ান ইলেভেন আর ফিরবে না; আইন করে সে প্রেক্ষাপট বন্ধের বিষয়টিকে সামনে আনছেন তারা।

পারস্পরিক শ্রদ্ধাবোধের রাজনীতি আর সহনশীলতাকে রাজনীতিকরা কৌশলে এড়িয়ে যেতে চাইলেও; বিশ্লেষকদের মতে, জাতীয় স্বার্থে ঐক্যে পৌঁছতে হবে রাজনৈতিক দলগুলোকে। করতে হবে সুষ্ঠু গণতান্ত্রের চর্চা।

এর বিপরীতে আবারও উত্থান হতে পারে ওয়ান ইলেভেন কিংবা তার চেয়েও ক্ষতিকর কিছু আর এক্ষেত্রে রাজনীতিবিদদের আরও দায়িত্বশীল ভূমিকা প্রত্যাশা করেন বিশ্লষকরা।

এই ক্যাটাগরীর আরও খবর

পুরনো সংবাদ

শুক্র
শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
০১
০২
০৩
০৪
০৫
০৬
০৭
০৮
০৯
১০
১১
১২
১৩
১৪
১৫
১৬
১৭
১৮
১৯
২০
২১
২২
২৩
২৪
২৫
২৬
২৭
২৮
২৯
৩০