বিশেষ প্রতিবেদন

শুক্রবার, ১৮ নভেম্বর, ২০১৬ (১৪:০৮)

সাম্প্রদায়িক হামলা বন্ধে মানসিকতার পরিবর্তন আনতে হবে

ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের হত্যা, নির্যাতনের ঘটনাগুলোর সুষ্ঠু বিচার না হওয়ার কারণেই এসব ঘটনা বন্ধ হচ্ছে না বলে অভিযোগ করেছেন হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের নেতারা। তারা বলেন, প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করতে যেভাবে সরব হতে দেখা যায় অনেককে তার উল্টো দেখা যায় সাম্প

ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের হত্যা, নির্যাতনের ঘটনাগুলোর সুষ্ঠু বিচার না হওয়ার কারণেই এসব ঘটনা বন্ধ হচ্ছে না বলে অভিযোগ করেছেন হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের নেতারা।

তারা বলেন, প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করতে যেভাবে সরব হতে দেখা যায় অনেককে তার উল্টো দেখা যায় সাম্প্রদায়িক নির্যাতনের ক্ষেত্রে। এটি একটি গা সওয়া ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে।

এজন্য সংখ্যালঘু নিরাপত্তা আইনসহ বেশ কিছু দাবির কথা তুলে ধরেন তারা। তবে শুধু আইন করে এই সমস্যা সমাধান সম্ভব নয় প্রয়োজন মানসিকতার পরিবর্তনের- অভিমত আইনজ্ঞদের।

গত ২০১১ সাল থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত রামুর বৌদ্ধ বিহার, পাবনার সাঁথিয়া, সাতক্ষীরা, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরসহ অনেক জায়গায় ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের ওপর নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে।

পুলিশ সদরদপ্তরের তথ্যনুযায়ী, গতছয় বছরে সারাদেশে ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের ওপর নির্যাতনের ঘটনায় মামলা হয়েছে ২৭৩টি। এর মধ্যে বিচার হয়েছে মাত্র ১টির। তদন্তাধীন রয়েছে ৩৯টি মামলা। আর প্রমাণ মেলেনি আরো ৯৩টি ঘটনার। পরিসংখ্যান ব্যুরোর তথ্যনুযায়ী গত ১৯৭০ সালে বাংলাদেশে মোট জনসংখ্যার ২০ শতাংশ মানুষ ছিল ধর্মীয় সংখ্যালঘু আর ২০১১ সালে তাদেরই এক জরিপে দেখা যায় এর সংখ্যা কমে এসে দাঁড়িয়েছে ৯ শতাংশে।

ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের হত্যা ও হামলার ঘটনা রাজনৈতিক ও ব্যক্তিগত বলে মনে করেন হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য কাজল দেবনাথ।

তিনি বলেন, জঙ্গিবাদ রোধসহ অন্যান্য ঘটনার পর যেমন তরিৎ ব্যবস্থা নেয়া হয় এক্ষেত্রে দেখা যায় গা ছাড়া ভাব সময় এসেছে দ্রুত এ বিষয়ে নিজেদের অবস্থান পরিস্কার করার।

ভিন্ন ধর্মাবলম্বীদের হত্যা, নির্যাতন ও বিতাড়িত করে যদি মনে করা হয় দেশের উন্নয়ন সম্ভব তবে তা ভুল হবে-বলছেন সংগঠনের নেতারা।

সাম্প্রদায়িক হামলা-নির্যাতন বন্ধে বিশেষ আইন করার পাশাপাশি ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের সমস্যা নিয়ে আলোচনার জন্য সকল ক্ষেত্রে সুযোগে তৈরির দাবি করেন হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক রানা দাশগুপ্ত।

তবে, সাম্প্রদায়িক হামলা বন্ধে যতই পদক্ষেপ নেয়া হোক না কেন মানসিকতার পরিবর্তন না হলে কিছুই কাজে আসবে না বলে মন্তব্য করেছেন সুপ্রিম কোর্টের জ্যেষ্ঠ আইনজীবী জেড আই খান পান্না।

এছাড়াও রয়েছে

সহসাই মুক্তি পাচ্ছেন না খালেদা জিয়া

শান্তি চুক্তি বাস্তবায়িত না হওয়াই পার্বত্য অঞ্চলে অস্থিরতা

এবারও অর্জিত হচ্ছে না রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা

তারেককে ফেরানো কঠিন হবে আসামি প্রত্যার্পণ চুক্তি না থাকায়

কোটা বাতিলে সাংবিধানিকভাবে সমস্যা নেই, সংস্কারই শ্রেয়

সরকারি চাকরিতে কোটা পদ্ধতির সংস্কার চান বিশ্লেষকেরা

সহায়ক বাণিজ্য পরিবেশ পেলে ব্যবসায়ীরা চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত

নেপালে বিমান বিধস্ত: এয়ার কন্ট্রোল রুমের অডিও রেকর্ড সঠিক নয়

৭১তম বিশ্ব স্বাস্থ্য সম্মেলন শুরু

ইতালিয়ান ওপেন টেনিসের শিরোপা জিতেছে নাদাল

ইউরোপিয়ান গোল্ডেন শু জিতলেন মেসি

সিনিয়র ক্রিকেটারের সঙ্গে বৈঠকে গ্যারি কারস্টেন