সদ্য পাওয়া
Desh TV Logo জাতীয়: হাওরে হাহাকার, ফসল হারিয়ে সর্বস্বান্ত কৃষক, অনেক জায়গায় ত্রাণ না পৌঁছানোর অভিযোগ হাওরবাসীর; পরবর্তী ফসল না উঠা পর্যন্ত সহায়তা দেবে সরকার: ত্রাণমন্ত্রী Desh TV Logo রাজশাহী শহরে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ‘ব্লক রেইড’ চলছে Desh TV Logo সিলেটের শাহী ঈদগাহ এলাকায় একটি স্কুলে বোমা সদৃশ বস্তুর সন্ধান, উদ্ধারে কাজ করছে র‌্যাব Desh TV Logo ভাস্কর্য ইস্যুতে সুপ্রিম কোর্ট যেন কলুষিত না হয়, ভাস্কর্য সরানোর সিদ্ধান্ত নেবেন প্রধান বিচারপতি: আইনমন্ত্রী Desh TV Logo রাজধানীর পানি নিষ্কাশনে ব্যর্থ ওয়াসা: সাঈদ খোকন Desh TV Logo রাজ্যের স্বার্থ বিসর্জন দিয়ে তিস্তার পানি দেওয়া হবে না, আবারো বললেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় Desh TV Logo গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে গাড়ি ভাঙচুরের মামলায় বিএনপি ও এর অঙ্গসংগঠনের ২৫ নেতাকর্মীর ৫ বছর করে কারাদণ্ড Desh TV Logo বরগুনার বেতাগী উপজেলার বামনা খেয়াঘাটে র‌্যাবের অভিযানে অপহৃত এক শিশু উদ্ধার, ২ জন অপহরণকারী গ্রেপ্তার Desh TV Logo চট্টগ্রামের বাঁশখালীর ফাথরিয়া ইউনিয়নের একটি ভোট কেন্দ্রে আওয়ামী লীগ ও বিদ্রোহী প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষে আহত ৩ Desh TV Logo আন্তর্জাতিক: উত্তর কোরিয়াকে ঘিরে উত্তেজনার প্রেক্ষাপটে দক্ষিণ কোরিয়া পৌঁছেছে মার্কিন সাবমেরিন Desh TV Logo কেনিয়ায় বাস-ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ২৪ Desh TV Logo ফ্রান্সে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন: দ্বিতীয় পর্বে পৌঁছানোর একদিন পরই উগ্র-ডানপন্থী পার্টি ‘এফএন’ প্রধানের পদ ছাড়ার ঘোষণা দিলেন মারি লো পেন Desh TV Logo খেলা: ক্রিকেট: চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি আমাদের জন্য কঠিন হবে, তবে মানসিক শক্তি আমাদের এগিয়ে রাখতে পারে, ত্রিদেশীয় সিরিজে ভালো করতে পারলে আত্মবিশ্বাস বাড়বে: মাশরাফি Desh TV Logo ম্যাচ ফিক্সিংয়ের দায়ে নিষিদ্ধ হলেন সাউথ আফ্রিকার সাবেক বোলার লনওয়াবো সোতসোবে Desh TV Logo ফুটবল: ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ: চেলসি-সাউদাম্পটন (রাত পৌনে ১টা) Desh TV Logo স্প্যানিশ লা লিগা: অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ-ভিয়ারিয়াল (রাত দেড়টা) Desh TV Logo জার্মান কাপ (সেমিফাইনাল): মুনশেনগ্ল্যাডবাখ-ফ্রাঙ্কফুর্ট (রাত পৌনে ১টা) Desh TV Logo দেশ টিভির সংবাদ দেখুন সকাল সাড়ে ৭টা, ১০টা, বেলা ১২টা, দুপুর ২টা, বিকেল ৪টা, সন্ধ্যা ৭টা, রাত ৯টা, ১১টা এবং ১টায়

দেশকে মুসলিম রাষ্ট্রে পরিণত করতেই সংখ্যালঘুদের ওপর সহিংসতা

রবিবার, ১৩ নভেম্বর, ২০১৬ (১৯:২০)
দেশকে-মুসলিম-রাষ্ট্রে-পরিণত-করতেই-সংখ্যালঘুদের-ওপর-সহিংসতা

দেশকে মুসলিম রাষ্ট্রে পরিণত করতেই সংখ্যালঘুদের ওপর সহিংসতা

বাংলাদেশকে মুসলিম রাষ্ট্রে পরিণত করতেই ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের ওপর সহিংসতা চালানো হচ্ছে বলে মনে করছেন দেশের বিশিষ্টজনেরা।

এ বিষয় নিয়ে রোববার দেশ টিভির সঙ্গে একান্ত আলাপচারিতায় ছিলেন শাহরিয়ার কবীর ও আবেদ খান।

১৯৪৭' এর দাঙ্গার ধারাবাহিকতা এখনও অব্যাহত উল্লেখ করে একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সংগঠক শাহরিয়ার কবীর ও বিশিষ্ট সাংবাদিক আবেদ খান বলেন, একাত্তরের পরাজিত শক্তি কখনও বিএনপি, কখনও আওয়ামী লীগকে ব্যবহার করে এমন নৃশংস ঘটনা ঘটাচ্ছে।

মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় অসাম্প্রদায়িক দেশ গঠনে আওয়ামী লীগকে জামাতমুক্ত করার পরামর্শ তাদের—একই সঙ্গে সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তায় একটি আইন করারও প্রস্তাব দিয়েছেন তারা।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে পোস্টের কারণে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতের অভিযোগের জের ধরে ২০১২ সালে কক্সবাজারের রামুতে বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের বাড়িঘর ও উপসানালয়ে হামলা-ভাঙচুর চালায় দুর্বৃত্তরা। ওই ঘটনায় দেশ জুড়ে নিন্দা-প্রতিবাদের ঝড় ওঠে। একই ধরনের ঘটনার জেরে সম্প্রতি ব্রাক্ষ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরসহ দেশের কয়েকটি জায়গায় হামলা হয়েছে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের মন্দির ও বসতবাড়িতে। তার রেশ না কাটতেই জমি-জমাকে কেন্দ্র করে গাইবান্ধায় সাঁওতালদের ওপর হামলা চালিয়ে হত্যা করা হয়েছে তাদের কয়েকজনকে।

আবেদ খান মনে করেন, ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের ওপর এমন হামলা কোনো বিচ্ছিন্ন ঘটনা নয় বরং তা পরিকল্পিত।

১৯৪৭ সালের জাতিগত দাঙ্গার ধারাবাহিকতায় এদেশ থেকে ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের বিতাড়িত করতেই এসব ঘটানো হচ্ছে। একাত্তরের পরাজিত শক্তি আওয়ামী লীগ কিংবা বিএনপির ছত্রছায়ায় এ ধরনের ঘটনা ঘটাচ্ছে বলে মনে করেন তারা।

এসব ঘটনার মূল পরিকল্পনাকারীদের সরকার কিংবা আইন শৃংখলা বাহিনী শাস্তির আওতায় নিয়ে আসেনি বরং তাদেরকে দলে সরকারে জায়গা দিয়ে প্রতিষ্ঠিত করছে বলেও সমালোচনা করেন তারা।

শাহরিয়ার কবীর বলেন, এ দাঙ্গা বন্ধ করতে হলে দলকে জামাত মুক্ত করতে হবে— পাশাপাশি যুদ্ধাপরাধী বিচারের মতো সংখ্যালঘুদের জন্যও আলাদা আইন করার তাগিদ দেন।

দুজনেই বলেন, এ ধরনের ঘটনা ঠিক এখনই যদি বন্ধ না করা হয় তাহলে ভবিষ্যতে দেশের ভাবমূর্তি টিকিয়ে রাখা এবং আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা রীতিমতো কঠিন হয়ে পড়বে।

এই ক্যাটাগরীর আরও খবর

পুরনো সংবাদ

শুক্র
শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
 
০১
০২
০৩
০৪
০৫
০৬
০৭
০৮
০৯
১০
১১
১২
১৩
১৪
১৫
১৬
১৭
১৮
১৯
২০
২১
২২
২৩
২৪
২৫
২৬
২৭
২৮
২৯
৩০