দেশকে মুসলিম রাষ্ট্রে পরিণত করতেই সংখ্যালঘুদের ওপর সহিংসতা

রবিবার, ১৩ নভেম্বর, ২০১৬ (১৯:২০)
দেশকে-মুসলিম-রাষ্ট্রে-পরিণত-করতেই-সংখ্যালঘুদের-ওপর-সহিংসতা

দেশকে মুসলিম রাষ্ট্রে পরিণত করতেই সংখ্যালঘুদের ওপর সহিংসতা

বাংলাদেশকে মুসলিম রাষ্ট্রে পরিণত করতেই ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের ওপর সহিংসতা চালানো হচ্ছে বলে মনে করছেন দেশের বিশিষ্টজনেরা।

এ বিষয় নিয়ে রোববার দেশ টিভির সঙ্গে একান্ত আলাপচারিতায় ছিলেন শাহরিয়ার কবীর ও আবেদ খান।

১৯৪৭' এর দাঙ্গার ধারাবাহিকতা এখনও অব্যাহত উল্লেখ করে একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সংগঠক শাহরিয়ার কবীর ও বিশিষ্ট সাংবাদিক আবেদ খান বলেন, একাত্তরের পরাজিত শক্তি কখনও বিএনপি, কখনও আওয়ামী লীগকে ব্যবহার করে এমন নৃশংস ঘটনা ঘটাচ্ছে।

মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় অসাম্প্রদায়িক দেশ গঠনে আওয়ামী লীগকে জামাতমুক্ত করার পরামর্শ তাদের—একই সঙ্গে সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তায় একটি আইন করারও প্রস্তাব দিয়েছেন তারা।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে পোস্টের কারণে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতের অভিযোগের জের ধরে ২০১২ সালে কক্সবাজারের রামুতে বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের বাড়িঘর ও উপসানালয়ে হামলা-ভাঙচুর চালায় দুর্বৃত্তরা। ওই ঘটনায় দেশ জুড়ে নিন্দা-প্রতিবাদের ঝড় ওঠে। একই ধরনের ঘটনার জেরে সম্প্রতি ব্রাক্ষ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরসহ দেশের কয়েকটি জায়গায় হামলা হয়েছে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের মন্দির ও বসতবাড়িতে। তার রেশ না কাটতেই জমি-জমাকে কেন্দ্র করে গাইবান্ধায় সাঁওতালদের ওপর হামলা চালিয়ে হত্যা করা হয়েছে তাদের কয়েকজনকে।

আবেদ খান মনে করেন, ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের ওপর এমন হামলা কোনো বিচ্ছিন্ন ঘটনা নয় বরং তা পরিকল্পিত।

১৯৪৭ সালের জাতিগত দাঙ্গার ধারাবাহিকতায় এদেশ থেকে ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের বিতাড়িত করতেই এসব ঘটানো হচ্ছে। একাত্তরের পরাজিত শক্তি আওয়ামী লীগ কিংবা বিএনপির ছত্রছায়ায় এ ধরনের ঘটনা ঘটাচ্ছে বলে মনে করেন তারা।

এসব ঘটনার মূল পরিকল্পনাকারীদের সরকার কিংবা আইন শৃংখলা বাহিনী শাস্তির আওতায় নিয়ে আসেনি বরং তাদেরকে দলে সরকারে জায়গা দিয়ে প্রতিষ্ঠিত করছে বলেও সমালোচনা করেন তারা।

শাহরিয়ার কবীর বলেন, এ দাঙ্গা বন্ধ করতে হলে দলকে জামাত মুক্ত করতে হবে— পাশাপাশি যুদ্ধাপরাধী বিচারের মতো সংখ্যালঘুদের জন্যও আলাদা আইন করার তাগিদ দেন।

দুজনেই বলেন, এ ধরনের ঘটনা ঠিক এখনই যদি বন্ধ না করা হয় তাহলে ভবিষ্যতে দেশের ভাবমূর্তি টিকিয়ে রাখা এবং আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা রীতিমতো কঠিন হয়ে পড়বে।

এই ক্যাটাগরীর আরও খবর

ঠাকুরপাড়ায় হিন্দু বাড়িগুলোতে হামলায় নেতৃত্ব দেয় জামাত-বিএনপি-জাপা

চলছে রাজনৈতিক দরকষাকষি, নির্বাচন করতে পারবে না জামাত

ভয়াল ১২ নভেম্বর: প্রলয়ঙ্করী ঘূর্ণিঝড় কেড়ে নিয়েছিল ৫ লাখ মানুষের জীবন

শেষ ধাপে রয়েছে একুশ আগস্ট গ্রেনেড হামলা-মামলার বিচার প্রক্রিয়া

উচ্চ পর্যায়ে ক্ষমতার অভিলাসেরই পরিণতি ৭ নভেম্বর

অভ্যুত্থান সফল না হওয়ার জন্য মোশাররফের অদূরদর্শিতাই দায়ী