বিজ্ঞান-প্রযুক্তি

বিশ্ব জলবায়ু সম্মেলন: প্রত্যাশা-প্রাপ্তিতে অনেক ফারাক

শুক্রবার, ১৮ নভেম্বর, ২০১৬ (১৭:১৩)
বিশ্ব-জলবায়ু-সম্মেলন-প্রত্যাশা-প্রাপ্তিতে-অনেক-ফারাক

বিশ্ব জলবায়ু সম্মেলন: প্রত্যাশা-প্রাপ্তিতে অনেক ফারাক

বিশ্ব জলবায়ু সম্মেলন কপ-টোয়েন্টি টুতে প্রত্যাশা আর প্রাপ্তিতে অনেক ফারাক রয়েই গেছে—এ পর্যন্ত আলোচনায় উন্নত বিশ্বের কার্বন নিঃসরণ কমানোর অঙ্গীকার এবং অভিযোজনের মত মূল দুটি বিষয়ে কোনো উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি হয়নি বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

গ্রিন ক্লাইমেট ফান্ড থেকে অনুদান প্রাপ্তির ক্ষেত্রেও কোনো অগ্রগতি নেই-কপ টোয়েন্টি টুতে। তবে এর জন্য বাংলাদেশের প্রকল্প গ্রহণ এবং বাস্তবায়ন দক্ষতারও ঘাটতি আছে বলেও তারা মনে করছেন।

মরোক্কোর মারাকেশে বিশ্ব জলবায়ু সম্মেলনের ২২তম আসরের মুল বিষয় ছিল প্যারিস চুক্তি বাস্তবায়নের রুপরেখা তৈরি করা। কিন্তু সম্মেলন শেষ হয়ে আসলেও এখন পর্যন্ত উন্নত দেশগুলো কার্বন নিঃসরণ কমানোর ব্যাপারে সুনির্দিষ্ট কোনো রুপরেখা দেয়নি।

জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাবে ক্ষতিগ্রস্ত দেশগুলোর অনুদানের দাবিও শুধু দাবিই রয়ে গেছে।

তাই এ সম্মেলন থেকে বাংলাদেশসহ ক্ষতিগ্রস্ত দেশগুরোর দাবি এবং প্রাপ্তির মধ্যে বিস্তর ফারাক রয়েছে বলে মনে করেন বাংলাদেশ সমন্বয় ক্লাইমেট চেঞ্জ নেগোসিয়েশন টিমের সদস্য ড. কাজী খলিকুজ্জামান।

ক্ষতিগ্রস্ত দেশগুলোকে সহায়তার জন্য যে গ্রিন ক্লাইমেট ফান্ড-জিসিএফ গঠন করা হয়েছে তা থেকে সহায়তা পাওয়ার কঠিন শর্ত একটুও শিথিল হয়নি।

তবে এ ব্যাপারে দুর্বলতা আছে বাংলাদেশরও। জিসিএফ থেকে অর্থ প্রাপ্তির জন্য, বাংলাদেশ পারছে না সুনির্দিষ্ট কোনো প্রকল্প প্রণয়ন করতে। বাস্তবায়ন সক্ষমতার ঘাটতিও চিরায়ত।

ক্লাইমেট চেঞ্জ রেজিলিয়েন্স ফান্ডের বাস্তবানয়ন চিত্র থেকেই অদক্ষতার বিষয়টি স্পস্ট। ২০১১ সালে গঠন করা এ ফান্ড থেকে ৫ বছরে প্রায় ২০ কোটি ডলার ব্যয় করার শর্ত ছিল। কিন্তু বাস্তবায়ন হয়েছে ৯ কোটিরও কম। ৫ বছর শেষে তাই তহবিল ফেরত নিয়েছে দাতারা।

এই ক্যাটাগরীর আরও খবর

নারীর ক্ষমতায়নে বিনামূল্যে ২০ লাখ ‘অপরাজিতা’ সিম বিতরণ শুরু

চালু হলো পে-প্যাল

টিভি, স্মার্টফোন, ট্যাবের স্ক্রিন থেকে শিশুকে দূরে রাখুন

১৯ অক্টোবর চালু হচ্ছে অনলাইন অর্থ স্থানান্তর পেপাল

আইনস্টাইনের মহাকর্ষ তরঙ্গ গবেষণায় ৩ বিজ্ঞানীর নোবেল জয়

অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমচালিত স্মার্টফোন ব্যবহার করছেন বিল গেটস