রাজনীতি

শনিবার, ০৫ জানুয়ারী, ২০১৯ (১৪:২১)

মির্জা ফখরুল একজন ব্যর্থ রাজনীতিক

ওবায়দুল কাদের

আন্দোলন ও নির্বাচনে ব্যর্থ বিএনপির বিদেশিদের কাছে নালিশ ছাড়া গতি নেই- এমন মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

শনিবার সকালে বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আগামী ১৯ জানুয়ারির মহাসমাবেশ সফল করতে সহযোগি সংগঠনের নেতাদের সঙ্গে যৌথ সভায় তিনি এ কথা বলেন।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, বিদেশিদের কাছে নালিশ করা ছাড়া এখন তাদের আর অবলম্বন কী? ১০ বছর ধরে একটা আন্দোলন করতে পারেনি। জাতীয় নির্বাচনে অংশ নিয়েছে, আমরা তাদেরকে ধন্যবাদ জানাই। কিন্তু নির্বাচনেও তারা চরমভাবে ব্যর্থ। আন্দোলনে ব্যর্থ, নির্বাচনেও ব্যর্থ, এখন তাদের আর অবলম্বন কী আছে? দেশের লোকের কাছে তো অনেক বলেছে, এখন বিদেশিদের কাছে তারা নালিশ করে যাচ্ছে। সেটা তাদের পুরানো অভ্যাস, পুরোনো অভ্যাসের পুনরাবৃত্তি হচ্ছে। এখানে আমাদের কী বলার আছে।

তিনি বলেন, বিএনপি নেতা মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের কথাবার্তা, একজন ব্যর্থ রাজনীতিকের অসংলগ্ন সংলাপ।

তিনি বলেন, মির্জা ফখরুল যেসব কথা বলছেন, এটা আন্দোলন ও নির্বাচনে ব্যর্থ একজন রাজনীতিকের অসংলগ্ন সংলাপ। একটি উদাহরণ দিয়ে বলি। শুধু হাতিয়ার দিকে দেখুন। সেখানে সাংগাঠনিকভাবে সমস্যা সংকুল। যেখানে বার বার আমরা চেষ্টা করেও নেতাদের এক করতে পারি নাই। অনেক চেষ্টা হয়েছে সেখানে সংগঠনকে ঐক্যবদ্ধ করতে, বারবার চেষ্টা করেছি। এবার কঠিন ঐক্য ছিল, হাতিয়া সবার আগে ঐক্যবদ্ধ ছিল, এক মঞ্চে সবাই। এখন পর্যন্ত নির্বাচনের পরেও তারা ঐক্যবদ্ধ আছে। আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ছিল ১৭ জন। শেষ পর্যন্ত কিন্তু থাকেনি, আমাদের নেতাদের প্রয়াসে আমরা বিদ্রোহকে প্রশমিত করতে পেরেছি। দৃশ্যমান তেমন কোনও বিদ্রোহ আমাদের পরিলক্ষিত হয়নি। এটাই আওয়ামী লীগের বিজয়ের প্রথম সোপান।

সৈয়দ আশরাফের স্মৃতিচারণ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম ছিলেন একজন সৎ, পরিচ্ছন্ন, সফল রাজনীতিক। তিনি তার সততা, যোগ্যতা, দক্ষতা ও মেধা দিয়ে তা প্রমাণ করেছেন। এর মধ্য দিয়ে তিনি আওয়ামী লীগের বাইরেও অন্য রাজনৈতিক দল ও শ্রেণী-পেশার সর্বস্তরের মানুষের মধ্যে স্থান করে নিয়েছিলেন।

এ সময় সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের মরদেহ শহীদ মিনারে নেওয়া সংক্রান্ত সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে ওবায়দুল কাদের বলেন, তিনি দীর্ঘদিন দুরারোগ্য রোগে ভুগছিলেন। তার শারীরিক অবস্থা খুবই খারাপ ছিলো। দেশে আসার পর তার মরদেহ জাতীয় সংসদের দক্ষিণ প্লাজায় নেওয়া হবে। এছাড়া কিশোরগঞ্জ ও ময়মনসিংহে নেওয়া হবে। এরপর আরও অন্য জায়গায় নেওয়া হবে। সেভাবেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে

তিনি জানান, আওয়ামী লীগ এখন ঐক্যবদ্ধ— নির্বাচনে যারা বিদ্রোহী প্রার্থী ছিলেন তারা সরে গিয়েছিলেন।

এখন নির্বাচনে বিপুল বিজয় উদযাপন করতে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে হবে আওয়ামী লীগের এ মহাসমাবেশ।

ইউটিউবে দেশ টেলিভিশনের জনপ্রিয় সব নাটক ও অনুষ্ঠান দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Desh TV YouTube Channel

এছাড়াও রয়েছে

সরকার বেশিদিন ক্ষমতা ধরে রাখতে পারবে না : ফখরুল

খালেদার অসুস্থতা আশঙ্কাজনক পর্যায়ে পৌঁছেছে: রিজভী

শপথ না নেয়া একটি রাজনৈতিক কৌশল: ফখরুল

অনুপ্রবেশকারীদের বিরুদ্ধে শুদ্ধি অভিযানে নামছে আ’লীগ

দেশের চলমান সংকট আ’লীগেরই সৃষ্ট: ফখরুল

শ্রীলঙ্কাসহ বিশ্বে ঘটে যাওয়া হামলার ঘটনায় বাংলাদেশ উদ্বিগ্ন

ফখরুলের শপথ নেয়া উচিত: হানিফ

জামাতের বহিষ্কৃত মঞ্জুরের নেতৃত্বে নতুন রাজনৈতিক সংগঠন

সর্বশেষ খবর

ব্রিটিশ তেলের ট্যাংকার আটক: অভিযানের ভিডিও প্রকাশ ইরানের

কলম্বোয় অনুশীলন করলো তামিম-মুশফিকরা

প্রিয়া সাহার আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ দেবে সরকার : ওবায়দুল কাদের

বাংলাদেশের দূতদের প্রতি অর্থনৈতিক কূটনীতির ওপর গুরুত্বারোপের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর