রাজনীতি

রবিবার, ১৫ এপ্রিল, ২০১৮ (১৮:৫৭)

আ’লীগ-বিএনপি জনবিচ্ছিন্ন, জনগণের আস্থা জাপা: এরশাদ

হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ

জাতীয় পার্টি-জাপা এ মুহূর্তে নির্বাচন করার মতো জনপ্রিয় দল ও জনগণের একমাত্র আস্থার জায়গা--এমন মন্তব্য করেছেন দলের চেয়ারম্যান হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ।

রংপুর পাবলিক লাইব্রেরি মাঠে রোববার জেলা জাতীয় পার্টির দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনে তিনি একথা বলেন।

আওয়ামী লীগ ও বিএনপিকে জনবিচ্ছিন্ন উল্লেখ করে এরশাদ বলেন, নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠু নির্বাচন হলে জনগণ তার পছন্দের দলকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করবে।

দেশের মানুষ দুদলকে আর ক্ষমতায় দেখতে চায় না— তারা চায় পরিবর্তন, এই পরিবর্তনের জন্যই দেশের মানুষ জাতীয় পার্টিকে আবার ক্ষমতায় দেখতে চায়। তাই আমরা এককভাবে নির্বাচন করবো এবং রাষ্ট্রক্ষমতায় যাবো জানান এরশাদ।

আওয়ামী লীগ ও বিএনপিকে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, ‘ছিয়ানব্বই সালে আমাদের সমর্থন নিয়ে আওয়ামী লীগ সরকার গঠনের পর আমার সঙ্গে অন্যায় আচরণ করেছে। আমার দল ভাঙা হয়েছে। আর বিএনপির সরকারের শাসনামলে আমাকে জেলখানায় নেয়া হয়। আমাকে হাসপাতালে নেওয়া হয়নি। আমাকে ইফতার করতে দেয়া হয়নি। আল্লাহর রহমতে জনগণের ভালোবাসায় আমি বেঁচে আছি, ভালো আছি।’

তিনি বলেন, বর্তমান সরকারের জনপ্রিয়তা শূন্য। সিল মারার নির্বাচন না হলে, অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে আগামীতে জাতীয় পার্টি রাষ্ট্র ক্ষমতায় যাবে।

এ সময় দেশে জাতীয় পার্টির আবারো গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে বলেও মন্তব্য করেন এইচএম এরশাদ।

দেশে অবাধ ও সুষ্ঠু নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে কেউ জাতীয় পার্টিকে রাষ্ট্রক্ষমতায় যেতে আটকাতে পারবে না— আর যদি শুধু সিল মারার নির্বাচন হয় তাহলে আমরা ক্ষমতায় যেতে পারবো না জানান তিনি।

বর্তমান সরকারকে উদ্দেশ্য করে এরশাদ বলেন, 'জাতীয় পার্টিকে অবহেলা করবেন না, সম্মান দেন কারণ এদল ছাড়া কেউ ক্ষমতায় যেতে পারবে না।

জাপা চেয়ারম্যান বলেন, 'আগামী নির্বাচন আমাদের বাঁচা-মরার নির্বাচন তাই ভুল করলে চলবে না যে প্রার্থী দেব তাকে জয়লাভ করাতে হবে।

তিনি বলেন, আমাকে রংপুরের ২২টি আসন উপহার দিন— আমরা রাষ্ট্র ক্ষমতায় যাব। আমরা ক্ষমতায় গেলে জনগণকে ১০ টাকা সের চাল খাওয়াবো। বর্তমানে ৬০ টাকা কেজিতে চাল খেয়ে সাধারণ মানুষের নাভিশ্বাস উঠেছে। সে দিকে সরকারের কোনো খেয়াল নেই। তারা লুটপাট নিয়ে ব্যস্ত।

এরশাদ আরো বলেন, এ সরকারের আমলে সর্বত্র দলীয়করণ করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর কথা ছাড়া প্রশাসন, এমনকি গাছের একটি পাতাও নড়ে না। ব্যাংকে টাকা নেই। ব্যাংক ও শেয়ারবাজার লুটপাট করা হয়েছে। দেশে কোনো বিচার নেই। দেশের দুঃশাসন, হত্যা, গুম, নারী নির্যাতন, ধর্ষণ আশঙ্কাজনকভাবে বেড়ে গেছে। আমরা বাল্য বিবাহের দিক থেকে এক নম্বর দেশে রয়েছি। এ সরকার মা-বোনদের ইজ্জত রক্ষা করতে পারছে না। আমরা দুঃশাসনের প্রাচীর ভেঙে দেব, সুশাসন প্রতিষ্ঠা করবো।'

তিনি আরও বলেন, 'বর্তমানে দেশে বেকার সমস্যা প্রকট। চাকরি নেই, শিল্প-কলকারখানা গড়ে উঠছে না। অথচ দেশে ১৩৭টি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে প্রতি বছর শত শত মেধাবী শিক্ষিত যুবক পাস করে বের হচ্ছে। তারা চাকরি না পেয়ে হতাশায় ভুগছে। আসক্ত হয়ে পড়ছে মাদকে।

রংপুর জেলা জাতীয় পার্টির সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মসিউর রহমান রাঙ্গার সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে জাপার কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের, মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদার এমপি, জাপার কেন্দ্রীয় নেতা সালাউদ্দিন মুফতি এমপি, শওকত চৌধুরী এমপি, কাজী ফিরোজ রশিদ চৌধুরী এমপি, শাহানাজ বেগম এমপি, মেজর (অব.) খালেদ আক্তার, রংপুর সিটি মেয়র ও মহানগর জাপার সভাপতি মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা, সাধারণ সম্পাদক এসএম ইয়াছির, আবদুর রাজ্জাক প্রমুখ বক্তব্য দেন।

পরে জাপা চেয়ারম্যান মসিউর রহমান রাঙ্গাকে সভাপতি ও এসএম ফখর-উজ-জামান জাহাঙ্গীরকে সাধারণ সম্পাদক করে রংপুর জেলা জাতীয় পার্টির দুই বছর মেয়াদি কমিটি ঘোষণা করেন।

এছাড়াও রয়েছে

বিএনপি না এলেও নির্বাচন হবে: কাদের

কাদেরের মন্তব্যে, একতরফা নির্বাচনের ইঙ্গিত: রিজভী

পায়ের ব্যথায় হাঁটতে পারছেন না খালেদা জিয়া: রিজভী

সরকারের দুরভিসন্ধি খালেদা জিয়াকে নির্বাচনের বাইরে রাখা

এ সরকারের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়: ফখরুল

সিইসির পদত্যাগের দাবি বিএনপির

আগামী নির্বাচনে জনগণ বিএনপিকে প্রত্যাখ্যান করবে

ভোট ডাকাতির চূড়ান্ত রুপ প্রকাশ করেছে আ’লীগ: মঞ্জু

কাদেরের মন্তব্যে, একতরফা নির্বাচনের ইঙ্গিত: রিজভী

মিঠাপুকুরে নাইটকোচের সঙ্গে ট্রাকের সংঘর্ষ, নিহত ২ আহত ১০

মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান চলবে: কামাল

আরো একটি রূপকথার বিয়ের সাক্ষী হলো বিশ্ববাসী