রাজনীতি

শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮ (১৩:৫৫)
বিশ্লেষকদের মতামত

বিএনপির গঠনতন্ত্র থেকে ৭ ধারা বাদ দেয়া নৈতিকতাবিরোধী

বিএনপি

বিএনপির দলীয় গঠনতন্ত্র থেকে ৭ ধারা বাদ দেয়া শুধুমাত্র সংবিধান ও গণপ্রতিনিধিত্ব অধ্যাদেশের সঙ্গে সাংঘর্ষিকই নয়- এটি সম্পূর্ণ নৈতিকতাবিরোধী বলছেন বিশ্লেষকরা। তাদের মতে, বিএনপি কৌশলগত কারণেই এমনটি করেছে এবং তড়িঘড়ি করেই এ সংশোধন এনেছে যা নিয়ম বহির্ভূতও।

দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার রায় ঘোষণার এক সপ্তাহ আগে দলীয় গঠনতন্ত্রের ৭ ধারা বিলুপ্ত করে সংশোধিত গঠনতন্ত্র নির্বাচন কমিশনে জমা দেয় বিএনপি।

এ ৭ ধারায় বলা ছিল, দুর্নীতি পরায়ণ ব্যক্তি বিএনপির কোনো পর্যায়ের কমিটির সদস্য কিংবা জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলের প্রার্থী হওয়ার ক্ষেত্রে অযোগ্য বিবেচিত হবেন।

এ থেকে দলীয় প্রধানকে বাঁচাতেই বিএনপি কৌশলে গঠনতন্ত্র সংশোধন করেছে বলে মত বিশ্লেষকদের। তাদের মতে, এ সংশোধনী দুর্নীতি নিয়ে দলটির অবস্থানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক।

গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ অনুযায়ী, কোনো দলের গঠনতন্ত্র সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক হলো কিনা তা দেখার দায়িত্ব নির্বাচন কমিশনের। এবিষয়ে সিদ্ধান্ত এখন তাদেরই হাতে-বলছেন বিশেলসকরা।

তবে বিএনপির দাবি, ২০১৬ সালে ১৯ মার্চ দলের কাউন্সিলেই গঠনতন্ত্রে এসব সংশোধনী প্রস্তাব অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

অথচ ইসিতে এই গঠনতন্ত্র জমা দেওয়ার সময় সাত ধারা বহালই ছিলো।

 

ইউটিউবে দেশ টেলিভিশনের জনপ্রিয় সব নাটক ও অনুষ্ঠান দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Desh TV YouTube Channel

এছাড়াও রয়েছে

চিরস্থায়ী ক্ষমতার জন্যই সংলাপ চায় না সরকার: রিজভী

বিএনপিকে নিয়েই নির্বাচন করবে আ.লীগ

আ.লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের উদ্বোধন ২৩ জুন

ক্ষমতাসীনরা চায় বিএনপি নির্বাচনে না আসুক: ফখরুল

বিএনপি বরাবরই মিথ্যাচারের রাজনীতি করে: ইমাম

কাদেরের নির্দেশেই অবরুদ্ধ ছিলাম: মওদুদ

মেয়র পদে আ.লীগের মনোনয়ন ফরম বিতরণ শুরু

বিএনপির মেয়র পদে মনোনয়নপত্র বিতরণ শুরু

আইসল্যান্ডের বিরুদ্ধে নাইজেরিয়ার জয়

কোস্টারিকার ০-২ ব্রাজিল

ইন্দোনেশিয়ায় ধর্মীয় নেতার মৃত্যুদণ্ড

নওগাঁয় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২