রাজনীতি

শনিবার, ০৮ এপ্রিল, ২০১৭ (১৫:২৩)

তিস্তাসহ অমিমাংসিত বিষয় সুরাহা করবে সরকার: ওবায়দুল

ওবায়দুল কাদের

ভারতের সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রেখেই তিস্তাসহ অমিমাংসিত বিষয় সুরাহা করবে সরকার বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক ও সড়ক মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। শনিবার রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফর ও চুক্তি প্রসঙ্গে বিএনপি নেতাদের দেয়া বক্তব্যের সমালোচনা করে ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, জনগনের স্বার্থে করা চুক্তি শেখ হাসিনার নেতৃত্বের সরকার কখনওই জনগনের আড়াল করবেনা।

এ সময় সংখ্যালঘুদের ওপর অত্যাচার নিপীড়ন বন্ধ, অর্পিত সম্পত্তি প্রত্যার্পন আইনের বাস্তবায়নহ বেশকিছু দাবি তুলে ধরেন ঐক্য পরিষদের নেতারা।

বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ ঐক্য পরিষদ আয়োজিত দুইদিনব্যাপী সম্মেলনের শেষ দিনে প্রধান অতিথি হয়ে আসেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

সেখানে পরিষদের সাধারন সম্পাদকের প্রতিবেদনে বাংলাদেশের সংখ্যালঘুদের অবস্থান পরিস্থিতি তুলে ধরে বলা হয়, ধর্মীয় উগ্রবাদের অজুহাতে সব সময়ই সংখ্যালঘুদের নির্যাতন, নিপীড়ন সহ্য করতে হচ্ছে। উদারহনটানা হয় কক্সবাজারের রামু ও সম্প্রতি ব্রাক্ষ্মবাড়িয়া, গোবিন্দ গঞ্জের ঘটনার।

নেতারা বলেন, ২০১৬ সাল ছিল জাতিগত সংখ্যালঘুদের জন্য আতংক এবং উদ্বেগের। ওই বছর ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের ওপর প্রায় দেড় হাজার মানবাধিকার লংঘনের ঘটনা ঘটেছে। যার ফলে সংখ্যালঘুদের সংখ্যা দিন দিন কমে আসছে বলেও উল্লেখ করেন তারা। তাই সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তার পাশাপাশি, ঝুলে থাকা অর্পিত সম্পত্তি প্রত্যার্পন আইনের বাস্তবায়ন, দেবোত্তর সম্পত্তি সুরক্ষায় আইন প্রণয়ন, রাজনীতিতে সংখ্যালঘুদের স্থান বাড়ানো এবং ভূলে ভরা পাঠ্যপুস্তক পরিবর্তনের দাবি তুলে ধরেন তারা।

এ প্রসঙ্গে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, ২০০১ সালে সংখ্যালঘুদের ওপর নির্যাতনের ঘটনাকে একাত্তরের খন্ডচিত্র হিসেবে উল্লেখ করেন। স্বীকার করেন, আওয়ামী লীগের নাম ভাঙিয়ে কিছু নেতাকর্মী নানা ধরনের সহিংস ঘটনার সঙ্গে জড়িয়ে পড়েন। তাদেরকে সরকার কখনই সমর্থন করেনা।

এ সময় প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফর ও চুক্তি নিয়ে বিএনপি নেতাদের বক্তব্যের সমালোচনা করেন। স্বাধীনতা যুদ্ধে ভারতের অবদান উল্লেখ করে, বলেন ভারতের সঙ্গে বন্ধুত্ব বজায় রেখে বর্তমান সরকার অনেক সমস্যা সমাধান করেছে। আগামীতেও তিস্তা ইস্যুর মতো অমীমাংসিত বিষয় সুরাহা করবে।

এছাড়াও রয়েছে

সরকারের মাদকবিরোধী অভিযান রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণোদিত: মির্জা ফখরুল

মাদকবিরোধী অভিযানের নামে মানুষ মারছে সরকার: মওদুদ

ক্ষমতায় থাকতেই ভারতের সঙ্গে সুসম্পর্ক সরকারের: রিজভী

মাদক অভিযানের নামে সরকার বিচারবর্হিভুত হত্যা কাণ্ড চালাচ্ছে

বিএনপি না এলেও নির্বাচন হবে: কাদের

কাদেরের মন্তব্যে, একতরফা নির্বাচনের ইঙ্গিত: রিজভী

পায়ের ব্যথায় হাঁটতে পারছেন না খালেদা জিয়া: রিজভী

সরকারের দুরভিসন্ধি খালেদা জিয়াকে নির্বাচনের বাইরে রাখা

শান্তি নিকেতনে হাসিনা-মোদি বৈঠক

সরকারের মাদকবিরোধী অভিযান রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণোদিত: মির্জা ফখরুল

রাশিয়ার হিউনদাই মোটরস্টুডিতেও বিশাল প্রদর্শনী আয়োজন করছে ফিফা

সালাহর চেয়ে আমি একদমই আলাদা: রোনলদো