জাতীয়

বুধবার, ১৭ এপ্রিল, ২০১৯ (১২:২৯)

২৫ তারিখের পর বিজিএমইএ ভবন ভাঙা শুরু হবে: গণপূর্ত মন্ত্রী

গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম

রাজধানীর হাতিরঝিলে নির্মিত গার্মেন্টস মালিক সংগঠনের প্রধান কার্যালয় বিজিএমইএ ভবন অবৈধভাবে প্ল্যান ছাড়া নির্মাণ করা হয়েছে বলে জানান গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম।

বুধবার সচিবালয়ে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি।

এরইমধ্যে ভবন ভাঙার উদ্যোগ নিতে দখলে নেয়া হয়েছে—এ কথা জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ভাঙার সময় যাতে দুর্ঘটনা না ঘটে সেজন্য নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

র্যাং স প্লাজা অপসারণে দুর্ঘটনার উদাহরণ টেনে মন্ত্রী জানান বৈজ্ঞানিক পদ্ধতি অবলম্বন করা হবে।

সংবাদপত্রে বিজ্ঞাপন দেয়া হয়েছে, ২৪ তারিখের মধ্যে ভাঙা হবে-যদি কোনো কোম্পানি শর্ত মেনে না আসে তবে নিজেরাই ভাঙার উদ্যোগ নিতে হবে জানান মন্ত্রী।

মন্ত্রী জানান, দেশীয় প্রতিষ্ঠান না এলে কিংবা রাউজক না পারলে বিদেশি অভিজ্ঞ কোম্পানি ভাড়া করে আনা হবে।

তিনি আরো জানান, যে ডিনামাইট এ বিল্ডিং ভাঙার জন্য ব্যবহার করার কথা এসেছে, সেটা বিধ্বংসী কোনো বোমা নয়, এটা ভবন অপসারণের বৈজ্ঞানিক উপায়।

আগামী ২৫ তারিখে সিদ্ধান্ত হবে কোনো প্রতিষ্ঠান কাজ করবে, তার এক সপ্তাহের মধ্যেই কাজ শুরু হবে—তিন মাসের মধ্যে পুরোপুরি অপসারণ করা হবে বলেও জানান মন্ত্রী।

রাজধানীতে ২৪টি পরিদর্শন টিম কাজ করছে ঝুঁকিপূর্ণ ভবন চিহ্নিত করতে—এ কথা উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, কাজ শেষ হলে কাজ শুরু হবে।

রাজধানীর হাতিরঝিলে অবৈধভাবে নির্মিত গার্মেন্টস মালিক সংগঠনের প্রধান কার্যালয় বিজিএমইএ ভবন ভাঙতে আরও এক বছর সময় চেয়ে চেম্বার আদালতে আবেদন করেছে সংগঠনটি। মঙ্গলবার সকাল ৯টার কিছু পরে আনুষ্ঠানিক ভাবে ভবন ভাঙার কাজ শুরু করে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক)।

এদিকে, আরও এক দফা সময় বাড়িয়ে, বিজিএমইএ ভবনে থাকা অফিস সরিয়ে নিতে বিকেল ৫ টা পর্যন্ত নির্ধারণ করে রাজউক। বিকাল ৫ টার পর ভবনটি সিলগালা করে দেয়া হয়। সেনাবাহিনীর মাধ্যমে চীনা বিশেষজ্ঞদের সহায়তায় নিয়ন্ত্রিত বিস্ফোরণের মাধ্যমে ভবন ভাঙা হবে বলে জানানো হয়েছে।

গতকাল সকালে বিজিএমইএয়ের বহুতল ভবন ভাঙার কার্যক্রমে আসে রাজউকের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জেসমিন আক্তার।

তিনি বলেন, ডিনামাইট দিয়ে এই ভবন ভাঙতে সপ্তাহ সময় লাগবে।

ভবন ভাঙা শুরুর আগে মালামাল সরাতে সময় দেয় রাজউক। এরআগে, এক্সিম ব্যাংকের ভল্ট সরাতে দুই ঘন্টা সময় বেধে দেয় তারা।

এছাড়া বিজিএমইএয়ের মূল সার্ভারও সরানো হয়নি। বিজিএমইএ ভবনের সব ইউটিলিটি সার্ভিস- গ্যাস বিদ্যুৎ, পানি, টেলিফোন লাইনসহ সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়।

এর আগে রাজউক জানায়, ভবনটি ভাঙতে বিজিএমইএয়েকে দেয়া সময় পার হয়ে যাওয়ার পরই সরকার এই ভবনটি ভাঙার কার্যক্রম শুরু করতে যাচ্ছে। ভবনটি ভাঙার জন্য রাজউকের পক্ষ থেকে সব ধরনের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে।

২০১৬ সালের নভেম্বরে ভবন ভাঙার নির্দেশ দিয়ে আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশ করা হয়। রিভিউ আবেদন করেও কাজ না হলে মুচলেকা দিয়ে গেল ১২ই এপ্রিল পর্যন্ত এই ভবনে থাকার অনুমতি নেয় বিজিএমইএ।

ইউটিউবে দেশ টেলিভিশনের জনপ্রিয় সব নাটক ও অনুষ্ঠান দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Desh TV YouTube Channel

এছাড়াও রয়েছে

সন্দেহজনক বা গুজবের ভিত্তিতে মানুষ হত্যার বিরুদ্ধে সরকারি হুঁশিয়ারি

ঈদের আগে-পরে ছয় দিন ফেরিতে ট্রাক কাভার্ড ভ্যান পারাপার বন্ধ

ড. কামালের সংবাদ সম্মেলন আজ

২০২১ সালের বিজয় দিবসে মেট্রোরেলের এমআরটি লাইন-৬ চালু হবে : সেতুমন্ত্রী

প্রিয়া সাহার আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ দেবে সরকার : ওবায়দুল কাদের

প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগে দুই মামলা

প্রিয়া সাহার অভিযোগ ‘ভয়ঙ্কর মিথ্যাচার’ : পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়

বাংলাদেশের দূতদের প্রতি অর্থনৈতিক কূটনীতির ওপর গুরুত্বারোপের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

সর্বশেষ খবর

দুদকের এনামুল বাছিরের জামিন নামঞ্জুর, কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ

মিয়ানমার নৌবাহিনীর জাহাজে রকেট হামলা, ক্যাপ্টেনসহ নিহত ৩

স্কুলছাত্রীকে লাইব্রেরিতে এনে ধর্ষণ, খুবি ছাত্র সাময়িক বহিষ্কার

সন্দেহজনক বা গুজবের ভিত্তিতে মানুষ হত্যার বিরুদ্ধে সরকারি হুঁশিয়ারি