জাতীয়

ksrm

বৃহস্পতিবার, ২১ মার্চ, ২০১৯ (১৬:২৫)

পিছু হটার পথ নেই, সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে কঠোর হুঁশিয়ারি

পিছু হটার পথ নেই, সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে কঠোর হুঁশিয়ারি

পরিবহন খাতে শৃঙ্খলা ফেরাতে নিজেদের ব্যর্থতা স্বীকার করে ঢাকা মহানগর পুলিশ বিভাগ-ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে কঠোর হুঁশিয়ারি দিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার ট্রাফিক সপ্তাহ উপলক্ষে দুপুরে ঢাকা মহানগর নাট্যমঞ্চে আয়োজিত ট্রাফিক শৃঙ্খলা ও সচেতনতা বিষয়ক মতবিনিময় সভায় এ কথা বলেন তিনি।

রাস্তায় মেয়াদাত্তীর্ণ, ফিটনেসবিহীন কোনো গাড়ি আর চলতে দেয়া হবে না—এ হুঁশিয়ারি দিয়ে তিনি বলেন, সড়কে এ নৈরাজ্যের জন্য সংশ্লিষ্ট কেউই দায় এড়াতে পারেন না।

ডিএমপি কমিশনার বলেন, তিনটি বিষয় ক্লিয়ার রাখতে চাই এক. ফিটনেসবিহীন লক্কড়ঝক্কড় বাস আর ঢাকা শহরে চলতে দেয়া হবে না; নির্ধারিত বাস স্টপেজের বাইরে বাস দাঁড়াতে পারবে না, দরজা বন্ধ রাখতে হবে, জেব্রা ক্রসিংয়ের আগে বাস দাঁড় করানো, যাত্রীসাধারণ ও পথচারীকে নিরাপদে রাস্তা পার হতে দেয়া দুই. অভিযান জোরদার হবে; তিন. দুর্ঘটনার কারণ হয়ে দাঁড়ালে পথচারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন পরিবহন মালিকরা।

এ সময় তারা জানান, আগামী মাস থেকে নগরীতে টিকিটে যাত্রী পরিবহন করা হবে।

ঢাকা মহানগরে ট্রাফিক সচেতনতা বৃদ্ধি করতে চলছে ট্রাফিক সপ্তাহ। এরই অংশ হিসেবে বৃহস্পতিবার রাজধানীর মহানগর নাট্যমঞ্চে পরিবহন মালিক ও শ্রমিকদের নিয়ে এক মতবিনিময় সভার আয়োজন করে ট্রাফিক পূর্ব বিভাগ।

পরিবহন মালিক ও শ্রমিক নেতারা সড়ক দুর্ঘটনার জন্য চালকদের ওপর একতরফা দোষ না চাপানোর আহ্বান জানান।

একই সঙ্গে দুর্ঘটনা এড়াতে সমন্বিত উদ্যোগ নেয়ার কথাও বলেন তারা।

ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া সড়কে শৃঙ্খলা না ফেরাতে পেরে নিজেদের ব্যর্থতা স্বীকার করেন।

একই সঙ্গে আর পিছু হটার কোনো পথ নেই উল্লেখ করে রাস্তায় সকল অনিয়মের বিরুদ্ধে কঠোর হুঁশিয়ারিও উচ্চারণ করেন তিনি।

পরিবহন মালিক ও শ্রমিকদের এ ব্যাপারে বিশেষ ভূমিকা পালনের আহ্বান জানিয়ে ভবিষ্যতে পুলিশের পক্ষ থেকে সব ধরনের সহযোগিতার আশ্বাসও দেন ডিএমপি কমিশনার।

আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, দুর্ঘটনা ঘটলেই আসামির কাঠগড়ায় দাঁড়িয়ে যায় পুলিশ, জবাব দিতে পারি না। কিন্তু এটার পরিবর্তন হওয়া দরকার। দেয়ালে পিঠ ঠেকে গেছে, ট্রাফিক ব্যবস্থার জন্য পদক্ষেপ নিতেই হবে। এখন আইনের কঠোর প্রয়োগে যেতে হবে। এবার থেকে কোনো পথচারী দুর্ঘটনার কারণ হয়ে দাঁড়ালে তার বিরুদ্ধেও আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বাসের দরজা যদি বন্ধ করে রাখে এক স্টপেজ থেকে আরেক স্টপেজ পর্যন্ত, তাহলে যাত্রী উঠতে পারবে না। নির্দিষ্ট বাস স্টপেজ ছাড়া যাত্রী নামাবেন না। নির্দিষ্ট স্টপেজ ছাড়া যাত্রী ওঠাবেন না বলেন তিনি।

ডিএমপি কমিশনার বলেন, ট্রাফিক বিভাগের প্রতি নির্দেশ কোনো পরিবহন যদি এর ব্যত্যয় ঘটিয়ে যেখানে-সেখানে বাস দাঁড় করায় ও যাত্রী ওঠায়-নামায়, দুর্ঘটনার কারণ হয়ে দাঁড়ায়, তাহলে ওই পরিবহনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিন।

‘দোষ যদি হয় পথচারীর তাহলে কেন আটক হবে বাস ও বাসের চালক? ভিডিও করুন, জরিমানা শুধু নয়, আটক করুন। আইনগত ব্যবস্থা নিন। যেখানে মালিক-শ্রমিকের দায়িত্ব আছে, সেখানে পথচারীরও দায়িত্ব আছে। এই কাজগুলো এখন আমাদের করতে হবে।’

ইউটিউবে দেশ টেলিভিশনের জনপ্রিয় সব নাটক ও অনুষ্ঠান দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Desh TV YouTube Channel

এছাড়াও রয়েছে

দেশে দারিদ্র্যের হার ২০ ভাগে নামিয়ে আনা হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী

চালু হলো বিরতিহীন রাজশাহী-ঢাকা ট্রেন

বাংলাদেশেও সন্ত্রাসী হামলার চেষ্টা চলছে: প্রধানমন্ত্রী

শেষবারের মতো শিশু জায়ানকে দেখলেন প্রধানমন্ত্রী

রানা প্লাজা ট্র্যাজেডি: মামলার নেই কোনো অগ্রগতি

শিশু জায়ান চৌধুরীর দাফন সম্পন্ন

শ্রীলঙ্কা হামলা: জায়ানের মরদেহ আসবে বুধবার

রাজধানীতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২

সর্বশেষ খবর

শ্রীলঙ্কার পার্লামেন্টে ভোটাভুটি ছাড়াই ইমার্জেন্সি রেগুলেশনস আইন পাস

দেশে দারিদ্র্যের হার ২০ ভাগে নামিয়ে আনা হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী

চালু হলো বিরতিহীন রাজশাহী-ঢাকা ট্রেন

বাংলাদেশেও সন্ত্রাসী হামলার চেষ্টা চলছে: প্রধানমন্ত্রী