জাতীয়

রবিবার, ১১ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮ (১৮:৪০)

ডিভিশন পেয়েছেন খালেদা জিয়া: আইজি প্রিজন

সৈয়দ ইফতেখার উদ্দীন

আদালতের নির্দেশনা অনুসারে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে ডিভিশনে নেয়া হয়েছে জানিয়েছেন কারা মহাপরিদর্শক (আইজি প্রিজন) সৈয়দ ইফতেখার উদ্দীন।

রোববার সন্ধ্যায় সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি। এর আগে সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, খালেদা জিয়া সাধারণ বন্দীর মতোই আছেন— তিনি শান্ত স্বভাবের এ কারণে তাকে সঙ্গ দেয়ার জন্য একজন নারী ডিপ্লোমা নার্স ও চারজন নারী কারারক্ষী রয়েছেন।

রোববার বেলা সাড়ে ১২টায় কারা অধিদপ্তরে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি।

জেলকোড অনুসারে সাধারণ কারাবন্দি হিসেবে কারাগারে খালেদা জিয়া কারা পোশাক পরিহিত অবস্থায় আছেন জানান কারা মহাপরিদর্শক।

সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, ১৯৬৪ ও ২০০৬ সালের কারা বিধি অনুযায়ী বর্তমানে যারা সাংসদ, তারাই ডিভিশন পান— সাবেক প্রেসিডেন্টও পান। তবে সাবেক প্রধানমন্ত্রী পান না।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে সৈয়দ ইফতেখার উদ্দীন বলেন, ‘আমরা শুনেছি আদালত ওনাকে ডিভিশন দেয়ার আদেশ দিয়েছেন। তার আইনজীবীরা ডিভিশনের আবেদন নিয়ে এসেছিলেন। আমরা সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে তা পাঠিয়ে দিয়েছি। সরকারি নির্দেশনা অনুসারে আমরা ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, একজন সেবিকা প্রথমদিন পুলিশ আমাদের দিয়ে গিয়েছিল।কিন্তু জেলকোডে এ ধরনের কিছু না থাকায় আমরা সেবিকাকে ১ ঘণ্টা রেখে ফেরত দিয়েছি। এছাড়া তার খাওয়া-দাওয়া সব কারাগারের খাবার অনুসারেই হচ্ছে। বাইরে থেকে শুকনা খাবার তার আত্মীয়-স্বজনরা দিয়ে গেলেও গ্রহণ করা হচ্ছে।

বিএনপি চেয়ারপারসনের চিকিৎসার ব্যাপারে তিনি বলেন, এখানে একজন ডাক্তার ও একজন নার্স চিকিৎসায় নিয়োজিত আছেন। যদি প্রয়োজন মনে করা হয় বা জরুরি হয় তাহলে বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের সহায়তা নেয়া হবে। আর প্রথম শ্রেণির কারাগারের ক্ষেত্রে কাশিমপুর নারী কারাগার তার জন্য ভালো হতো। কিন্তু তার শারীরিক অবস্থা খারাপ হওয়া ও নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে সেখানে তাকে নেয়া হবে না। এখানেই সব ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হচ্ছে। যেহেতু সরকার কেন্দ্রীয় কারাগারকে এখনও পতিত্যক্ত ঘোষণা করেনি তাই এখানেই সব সম্ভব হবে।

রোববার জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় দণ্ডপ্রাপ্ত বিএনপির চেয়ারপারসনকে জেলকোড অনুযায়ী ডিভিশন দিতে কারা কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

খালেদার আইনজীবীদের করা এক আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৫-এর বিচারক আখতারুজ্জামান এ আদেশ দেন।

প্রসঙ্গত: জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় পাঁচ বছরের দারাদণ্ড দেয়া হয় খালেদা জিয়াকে। তারপর থেকে ঠাঁই হয়েছে পুরোনো কেন্দ্রীয় কারাগারে। ওই কারাগারের সাবেক প্রশাসনিক ভবনের জ্যেষ্ঠ কারা তত্ত্বাবধায়কের দপ্তরটিকে তার থাকার উপযোগী করা হয়েছে। ওই কক্ষে খালেদা জিয়া একা থাকছেন।

এই ক্যাটাগরীর আরও খবর

ছুটির দিনে প্রধানমন্ত্রী

গণতান্ত্রিক আন্দোলনে বাধা দেয়া হচ্ছে না : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

অর্পিত সম্পত্তি: খসড়া বিধিমালা বাতিলের সুপারিশ, না হলে আন্দোলন

যুদ্ধাপরাধের পৃষ্ঠপোষকদের ক্ষমা না করতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান

রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবর্তনে সিঙ্গাপুরের সহযোগিতা চেয়েছেন রাষ্ট্রপতি

ভোলায় শিল্প কারখানা গড়ে তোলা হবে: বাণিজ্যমন্ত্রী

বিএনপির শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে বাধা দেয়া হবে না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

আইনজীবীদের কালক্ষেপণেই খালেদা জিয়ার কারাবাস দীর্ঘায়িত হচ্ছে: কামরুল

খালেদা জিয়া জামিন পাবেন, দাবি আইনজীবীদের

ছুটির দিনে প্রধানমন্ত্রী

যুদ্ধাপরাধের পৃষ্ঠপোষকদের ক্ষমা না করতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান

রাখাইন সীমান্তে বেড়া নির্মাণে ১৫ মিলিয়ন ডলার বরাদ্দ