জাতীয়

মঙ্গলবার, ০৫ ডিসেম্বর, ২০১৭ (১৮:৫৮)

দেশের পথে প্রধানমন্ত্রী

দেশের-পথে-প্রধানমন্ত্রী

শেখ হাসিনা

কম্বোডিয়ায় তিন দিনের সরকারি সফর শেষে দেশের পথে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

মঙ্গলবার স্থানীয় সময় বেলা পৌনে ২টায় বাংলাদেশ বিমানের একটি ভিভিআইপি ফ্লাইটে নমপেনের আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ঢাকার উদ্দেশে রওনা হন তিনি।

সকালে হোটেলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে কম্বোডিয়ার রয়্যাল পার্টি ফানসিনপেকের প্রেসিডেন্ট ও দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী নরোদম রনারিধ সৌজন্য সাক্ষাত করেন।

এ সময় এশিয়ার দেশগুলোর জনগণের স্বার্থে এ অঞ্চলের মধ্যে সংযোগ ও সহযোগিতা বাড়ানোর ওপর গুরুত্বারোপ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সাক্ষাতের পর প্রধানমন্ত্রীর অতিরিক্ত প্রেস সেক্রেটারি এম নজরুল ইসলাম সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন।

দুপুরে বিমানবন্দরে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে বিদায় জানান কম্বোডিয়ার মহিলা বিষয়ক মন্ত্রী ইং কানথা ফাভি, দেশটির আন্তর্জাতিক সহযোগিতা বিষয়ক আন্ডার সেক্রেটারি অব স্টেট ইট সোফিয়া, কম্বোডিয়ায় বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতের সমবর্তী দায়িত্বপ্রাপ্ত সাঈদা মুনা তাসনিম এবং বাংলাদেশে কম্বোডিয়ার অনাবাসিক রাষ্ট্রদূত পিচকুন পানহা।

তিন দিনের এই সফরে রোববার নমপেনে পৌঁছে প্রথম দিনই শেখ হাসিনা কম্বোডিয়ার স্বাধীনতা স্মৃতিস্তম্ভে এবং কম্বোডিয়ার জাতির পিতা প্রয়াত রাজা নরোদম সিহানুকের রাজকীয় স্মৃতি ভাস্কর্যে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। এরপর কম্বোডিয়ার গণহত্যা জাদুঘর পরিদর্শন করেন।

এছাড়া কম্বোডিয়ায় বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতের সমবর্তী দায়িত্বপ্রাপ্ত সাঈদা মুনা তাসনিমের দেয়া একটি নৈশভোজে অংশ

সোমবার সকালে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় পিস প্যালেসে দুই প্রধানমন্ত্রীর মধ্যে একান্ত ও দ্বি-পাক্ষিক বৈঠকের পর দুদেশের মধ্যে নয়টি সমঝোতা ও একটি চুক্তি সই হয়।

পরে কম্বোডিয়ার প্রধানমন্ত্রী হুন সেন এবং বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যৌথ বিবৃতিতে দুই দেশের সহযোগিতার সম্পর্ক নতুন মাত্রায় নিয়ে যাওয়ার কথা বলেন।

একই দিনে প্রধানমন্ত্রী কম্বোডিয়ার রাজা নরোদম সিহামনির সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাত করেন এবং কম্বোডিয়া চেম্বার অব কমার্সের আয়োজনে ব্যবসায়ীদের একটি মতবিনিময় সভায় অংশ নেন। কম্বোডিয়ার প্রধানমন্ত্রী হুন সেনের দেয়া নৈশভোজেও তিনি যোগ দেন।

কম্বোডিয়ার ন্যাশনাল অ্যাসেম্বেলির প্রেসিডেন্ট হেং শামরিন এবং কম্বোডিয়ান রয়্যাল পার্টির প্রেসিডেন্ট নরোদম রানারিদ হোটেলে গিয়ে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাত করেন।

কম্বোডিয়া সফরে বঙ্গবন্ধুর ছোট মেয়ে শেখ রেহানা, পররাষ্ট্রমন্ত্রী এএইচ মাহমুদ আলী, বেসরকারি বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের এসডিজি বিষয়ক মুখ্য সমন্বয়ক আবুল কালাম আজাদ, বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ-বিডার নির্বাহী চেয়ারম্যান কাজী আমিনুল ইসলাম, মুখ্য সচিব কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী, পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হক, প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম ছাড়াও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের কর্মকর্তা এবং বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের সচিব ও ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এবং এফবিসিসিআইয়ের সভাপতির নেতৃত্বে একটি ব্যবসায়ী প্রতিনিধি দল প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন।

এই ক্যাটাগরীর আরও খবর

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

এসপি হলেন ৯৬ কর্মকর্তা

শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস: শতাব্দীর বর্বরতম নিধনযজ্ঞ দিন

শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে রাষ্ট্রপতির শ্রদ্ধা

আরও খবর

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

এসপি হলেন ৯৬ কর্মকর্তা

টেলিভিশন- বেতার মুক্ত হয় ১৭ ডিসেম্বর

জলবায়ুর ক্ষতি মোকাবেলায় আর্থিক সহায়তা পাওয়ার সম্ভাবনা ক্ষীণ

গাজীপুরে নিরাপত্তা প্রহরীকে জবাই করে হত্যা

ব্রেক্সিট বিল: পার্লামেন্টের গুরুত্বপূর্ণ ভোটে মের পরাজয়

জামিন পেলেন আপন জুয়েলার্সের তিন মালিক

আবাসিক-ভিআইপি এলাকায় রাত ১০টার হর্ন বাজানো নিষেধ

নব্য জেএমবির প্রতিষ্ঠাতা সদস্যসহ গ্রেপ্তার ৪

পূর্ব জেরুসালেমকে ফিলিস্তিনের রাজধানী ঘোষণার আহ্বান