জাতীয়

বৃহস্পতিবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ (১৮:০৩)

রোহিঙ্গারা থাকা পর্যন্ত ত্রাণ সহায়তা দেয়া হবে: মায়া

রোহিঙ্গারা-থাকা-পর্যন্ত-ত্রাণ-সহায়তা-দেয়া-হবে-মায়া

মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া

রোহিঙ্গারা যতদিন বাংলাদেশে থাকবে সব ধরনের সহায়তা দেয়া হবে—সেইসঙ্গে তাদের ফিরিয়ে নিতে কূটনৈতিক তৎপরতা চলবে জানিয়েছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া।

বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে রোহিঙ্গা পরিস্থিতি নিয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য তুলে ধরেন।

রাখাইনে সহিংসতা শুরুর পর থেকে এ পর্যন্ত সোয়া চার লাখ রোহিঙ্গা শরণার্থী বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছেন তাদের জন্য দেশি-বিদেশি বিভিন্ন সংস্থার সহায়তা হিসেবে ২৭০ মেট্রিক টন চাল ও আটা পাওয়ার কথা জানিয়েছেন মন্ত্রী।

তিনি বলেন, গত ২৫ আগস্ট থেকে ২০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বাংলাদেশে আসা ৪ লাখ ২৪ হাজার রোহিঙ্গা শরণার্থীকে বর্তমানে ১৪টি ক্যাম্পে রাখা হয়েছে। তাদের মধ্যে ৫ হাজার ৫৭৫ জনের বায়োমেট্রিক নিবন্ধন ইতোমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে।

রোহিঙ্গা শরণার্থীদের জন্য দেশি-বিদেশি বিভিন্ন সংস্থার প্রতিশ্রুত সহায়তা থেকে এ পর্যন্ত প্রায় ২৫০ মেট্রিক টন চাল এবং ২০ টন আটা সরকারের হাতে এসেছে –এ কথা উল্লেখ করে মন্ত্রী জানান দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় ৫০০ মেট্রিক টন জিআর চাল ও নগদ ৩০ লাখ টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।

রোহিঙ্গারা মিয়ানমারে ফিরে না যাওয়া পর্যন্ত সরকার সব ধরনের সাহায্য-সহযোগিতা করবে জানিয়ে মায়া বলেন, ইউএনএইচসিআর খাদ্য, চিকিৎসা, আশ্রয়সহ সার্বিক সব ধরনের সহায়তার আগ্রহ প্রকাশ করেছে। ডব্লিউএফপি আগামী চার মাস চার লাখ পরিবারের খাবার সরবরাহের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।

ডব্লিউএফপি ইতোমধ্যে উখিয়ার ১৪টি স্থানে ত্রাণ সামগ্রী সংরক্ষণের জন্য গুদাম নির্মাণের কাজ শুরু করেছে— সেখানে তাদের ৩৬টি মেডিকেল টিম কাজ করছে।

আর বাংলাদেশের জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর রোহিঙ্গা শরণার্থীদের ক্যাম্পগুলোতে প্রতিদিন ১৪ হাজার ইউনিট খাবার পানি সরবারহ করছে। এছাড়া ১০০টি টিউবওয়েল স্থাপন ও ৫০০টি অস্থায়ী টয়লেট নির্মাণ করে দেয়া হয়েছে।

এলজিইডির সঙ্গে সমন্বয় করে নতুন রাস্তা নির্মাণ করা হচ্ছে জানিয়ে মায়া বলেন, চট্টগ্রাম থেকে ত্রাণ সামগ্রী গ্রহণ করে কক্সবাজার জেলা প্রশাসকের কাছে পৌঁছে দিতে সেনাবাহিনী কাজ করছে।

আইনশৃঙ্খলা রক্ষাসহ ত্রাণ বিতরণ সুষ্ঠু করতে পুলিশ ও বিজিবি সহায়তা দিচ্ছে জানিয়ে ত্রাণমন্ত্রী বলেন, ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের তত্বাবধানে ৮ ঘণ্টায় ৬৪ হাজার লিটার খাবার পানি সরবারহ করতে পারে এমন চারটি মোবাইল ওয়াটার ট্রিটমেন্ট প্লান্ট কাজ শুরু করেছে।

বিচ্ছিন্নভাবে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা ৪ লাখের অধিক মানুষকে খাদ্য, চিকিৎসা, নিরাপত্তাসহ প্রয়োজনীয় মানবিক সহায়তা দেয়ার লক্ষ্যে একটি স্থানে অস্থায়ী বাসস্থানের ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে বলে জানান মায়া।

কুতুপালং এলাকায় প্রায় দুই হাজার একর জায়গায় ১৪টি শেড নির্মাণের কাজ চলছে বলেন মন্ত্রীভ

তিনি আরো বলেন, ত্রাণ বিতরণ সুষ্ঠু করতে ১৩টি স্থান নির্ধারণ করা হয়েছে এবং বিক্ষিপ্তভবে কেউ যাতে ত্রাণ বিতরণ না করে তার জন্য ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

রোহিঙ্গাদের বিষয়টি আমরা মানবিক দৃষ্টিকোন থেকে বিবেচনা করছি। এত বিপুল সংখ্যক বিদেশি নাগরিকদের আশ্রয়দান বাংলাদেশের জন্য কষ্টদায়ক হলেও এ মানবিক সংকটের সময়ে সাময়িক সময়ের জন্য সীমান্তবর্তী কুতুপালয় ক্যাম্পের পাশে নতুন ক্যাম্পে আশ্রয়ের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। তাদের জন্য বাংলাদেশের পক্ষে সম্ভব সব ধরনরে মানবিক সহায়তা নিশ্চিত করার চেষ্টা করা হচ্ছে জানান মন্ত্রী।

এরইমধ্যে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, তুরস্ক, আজারবাইজান, ইরান, ইন্দোনেশিয়া, ভারত, মালয়েশিয়া, মালদ্বীপসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশ রোহিঙ্গাদের সমর্থন দিয়েছে বলেও জানান দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী।

এই ক্যাটাগরীর আরও খবর

দেশ এখন নিজের পায়ে দাঁড়াতে শিখেছে: শেখ হাসিনা

২ মাসে রাখাইনে ৪০টি গ্রাম পুড়িয়েছে দেশটির সেনাবাহিনী: এইচআরডব্লিউ

যারা স্বাধীনতাবিরোধী তাদেরকে ভোট না দেয়ার আহ্বান শেখ হাসিনার

সংযুক্ত আরব আমিরাতে আবারও বাংলাদেশিদের শ্রমবাজার খুলছে: প্রবাসীমন্ত্রী

আরও খবর

ইপিএল: ষোলোটি ম্যাচ জিতেছে ম্যানচেস্টার সিটি

আরো একটি ট্রফি উঠলো রোনালদোর হাতে

সোমবার শুরু হচ্ছে বাংলাদেশ যুব গেমস ২০১৮

শ্রবণ-বাক প্রতিবন্ধীদের জন্য আদালতে ইশারাভাষী নিয়োগের আহ্বান

কংগ্রেসের সভাপতির দায়িত্ব নিলেন রাহুল গান্ধী

শহীদ মুস্তাক একাদশের বিপক্ষে জিতেছে শহীদ জুয়েল একাদশ

শুক্রাবাদে নির্মাণাধীন ভবন থেকে মেরিন ইঞ্জিনিয়ার রিমনের মৃতদেহ উদ্ধার

দেশ এখন নিজের পায়ে দাঁড়াতে শিখেছে: শেখ হাসিনা

ষোড়শ সংশোধনী: আন্তর্জাতিক আইনজীবী নিয়োগের অনুমতি চেয়ে আবেদন

বিশ্বের ব্যস্ততম বিমানবন্দর আটলান্টার হার্টসফিল্ড-জ্যাকসনের কার্যক্রম আংশিক বন্ধ