সদ্য পাওয়া
Desh TV Logo জাতীয়: রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেয়ায় জাতিসংঘ মহাসচিব প্রশংসা করেছেন, তিনি বাংলাদেশের পাশেই আছেন, রোহিঙ্গা শরণার্থীদের ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমারকে চাপ প্রয়োগে ওআইসি’র প্রতি আহ্বান, রোহিঙ্গা ইস্যুতে বিশ্ব সম্প্রদায় বাংলাদেশের প্রশংসা করেছে: নিউইয়র্কে সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা Desh TV Logo রোহিঙ্গা সংকটের স্থায়ী সমাধানে জাতিসংঘে ৫ দফা প্রস্তাব প্রধানমন্ত্রীর, দ্রুত কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণে জাতিসংঘ ও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান Desh TV Logo রাখাইনে রোহিঙ্গা গ্রামে বাড়িঘরে এখনো আগুন জ্বলছে: অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল Desh TV Logo রোহিঙ্গা শরণার্থীদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ ও পুনর্বাসনে সেনাবাহিনী কাজ শুরু করেছে Desh TV Logo জঙ্গি অর্থায়নে জড়িত থাকার অভিযোগে রাজধানী থেকে ১১ জনকে গ্রেপ্তার করেছে র্যা ব Desh TV Logo নওগাঁয় বাসের ধাক্কায় ২ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত Desh TV Logo আন্তর্জাতিক: জম্মু ও কাশ্মির সীমান্তে ভারতীয় সেনাবাহিনীর গুলিতে ৬ পাকিস্তানি নাগরিক নিহত, দাবি পাকিস্তান সেনাবাহিনীর Desh TV Logo মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এবং উত্তর কোরীয় নেতা উনের বাকযুদ্ধকে কিন্ডাগার্টেনের শিশুদের ঝগড়ার সঙ্গে তুলনা করেছেন রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী Desh TV Logo জার্মানিতে কাল জাতীয় নির্বাচনের ভোটগ্রহণ, জনমত জরিপে প্রতিদ্বন্দ্বী মার্টিন শুলজের চেয়ে এগিয়ে চ্যান্সেলর মেরকেল Desh TV Logo ইন্দোনেশিয়ার বালিতে আগ্নেয়গিরির অগ্নুৎপাতের আশঙ্কা, সর্বোচ্চ সতর্কতা জারি, ১০ হাজার লোককে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে Desh TV Logo খেলা: ক্রিকেট: বেনোনিতে প্রস্তুতি ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ব্যাট করছে বাংলাদেশ; স্কোর: বাংলাদেশ-৩০৬/৭ ডি. ও ৬/০ (ইমরুল ৪*, লিটন ২*), দক্ষিণ আফ্রিকা আমন্ত্রিত একাদশ ৩১৩/৮ ডি. Desh TV Logo ই ডেন গার্ডেন্সে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে অস্ট্রেলিয়াকে ৫০ রানে হারিয়েছে ভারত Desh TV Logo ফুটবল: উলফসবুর্গের বিপক্ষে ঘরের মাঠে ২-২ গোলে ড্র করেছে বায়ার্ন মিউনিখ Desh TV Logo দেশ টিভির সংবাদ দেখুন সকাল সাড়ে ৭টা, ১০টা, বেলা ১২টা, দুপুর ২টা, বিকাল ৪টা, সন্ধ্যা ৭টা, রাত ৯টা, ১১টা এবং ১টায়

শোকাবহ ১৫ আগস্ট

মঙ্গলবার, ১৫ আগস্ট, ২০১৭ (১৪:০৫)
শোকাবহ-১৫-আগস্ট

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান

৪২ বছর আগে ১৯৭৫ সালের এ দিনে বঙ্গবন্ধু ভবনে ঘটেছিল সভ্যতার জঘন্যতম নির্মমতা। সেনাবাহিনীর একটি পথভ্রষ্ট ঘাতকচক্র মুক্তিযুদ্ধে পরাজিত রাজনৈতিক প্রতিক্রিয়াশীলদের চক্রান্তে নৃশংসভাবে হত্যা করে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ তার পরিবারের প্রায় সব সদস্যকে।

স্বাধীনতা অর্জনের মাত্র সাড়ে তিন বছরের মাথায়, এমন ঘটনা স্তব্ধ করে দিয়েছিলো বিশ্ববাসীকে। হোঁচট খেয়েছিল সদ্য স্বাধীন দেশের অগ্রযাত্রা। শুরু হয়েছিল নীলনকশা আর হত্যা-ক্যু'র রাজনীতি। মাথাচাড়া দিয়ে ওঠে সাম্প্রদায়িকতা। শুরু হয় রাষ্ট্রকে পেছনের দিকে টেনে নিয়ে যাওয়ার প্রক্রিয়া।

বাঙালি মুক্তির প্রতিটি আন্দোলন-সংগ্রামের প্রাণপুরুষ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। ১৯২০ সালের ১৭ মার্চ থেকে '৭৫ এর ১৫ আগষ্ট-৫৫ বছরের টান টান এক কিংবদন্তি। জীবনের পড়তে পড়তে শুধু লড়াই আর সংগ্রাম। এদেশের মানুষের অধিকার আদায়ে তার কণ্ঠ এতুটুকুনও কাঁপেনি কোনোদিন।

যে মানুষটি জীবনের বেশিরভাগ সময় জেলে কাটিয়ে, মৃত্যুর হুলিয়া মাথায় নিয়ে দেশকে শত্রুমুক্ত করার লড়াইয়ে নেতৃত্ব দিয়েছেন, যার নামে পরিচালিত হয়েছে মুক্তিযুদ্ধ, বিজয়ের মাত্র সাড়ে তিন বছরের মাথায় তাকেই হতে হয় নির্মম হত্যাকাণ্ডের শিকার।

কতিপয় রাজনৈতিক কুচক্রীর যোগসাজসে, সেনাবাহিনীতে ঘাপটি মেরে থাকা একটি ষড়যন্ত্রী গোষ্ঠী শুধু জাতির পিতাকেই হত্যা করে থেমে থাকেনি। নির্বংশ করে দিতে চেয়েছে বঙ্গবন্ধু পরিবারকে। শুধু সেদিন দেশে না থাকায় প্রাণে বেঁচে যান তাঁর দুই কন্যা শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা।

১৫ আগস্ট, ভিত কেঁপে গিয়েছিল বাংলাদেশের। রাতারাতি পাল্টে যায় রাষ্ট্রযন্ত্র। মুখ থুবড়ে পড়ে গণতন্ত্র। প্রগতির পথে চেপে বসে সাম্প্রদায়িকতা। এ হত্যাকাণ্ডের তাৎক্ষনিকভাবে সারাদেশে কোন প্রতিক্রিয়া না হওয়াটা, আজও আত্মজিজ্ঞাসার জায়গা, বলছেন বিশ্লেষকরা।

বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের বিচারকাজে অনেক ষড়যন্ত্রীর মুখোশ উন্মোচিত হলেও আজও রাষ্ট্রীয়ভাবে এ ব্যাপারে কোন তথ্যানুসন্ধান হয়নি। তেমনভাবে উঠে আসেনি এর পেছনে বিদেশী রাষ্ট্রগুলোর ভূমিকার কথা।

দেশ গড়ার নতুন সংগ্রাম শুরু হতে না হতেই, ষড়যন্ত্রকারীরা মোড় ঘুরিয়ে দেয় মুক্ত স্বদেশের। উঁকি মারে পরাজিত প্রেতাত্মা। কুচক্রীদের সঙ্গীনে নি:শেষ হন জাতির জনক। তবুও অনিঃশেষ বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ...

এই ক্যাটাগরীর আরও খবর

Desh Television দেশটিভিতে আজকের অনুষ্ঠান

পুরনো সংবাদ

শুক্র
শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
০১
০২
০৩
০৪
০৫
০৬
০৭
০৮
০৯
১০
১১
১২
১৩
১৪
১৫
১৬
১৭
১৮
১৯
২০
২১
২২
২৩
২৪
২৫
২৬
২৭
২৮
২৯
৩০