পুলিশ হবে মানুষের সেবক, শাসক নয়: প্রধানমন্ত্রী

বৃহস্পতিবার, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ (১৩:৪৭)
শারদায়-প্রধানমন্ত্রী-শেখ-হাসিনা

শারদায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

আপনারা স্বাধীন দেশের পুলিশ, বিদেশি শোষকদের পুলিশ নন আপনারা জনগণের পুলিশ—পুলিশ কর্মকর্তাদের জনগণের সেবক হয়ে সততা ও দক্ষতার সঙ্গে কাজ করার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

পুলিশ বাহিনীকে সব সময় আইনের রক্ষকের ভূমিকা হিসেবে দেখতে চাই। দেশের প্রচলিত আইন, সততা ও নৈতিক মূল্যবোধই হবে পেশাগত দায়িত্ব পালনের পথপ্রদর্শক এ কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, পুলিশ হবে মানুষের সেবক, শাসক নয়।

পেশাগত দায়িত্ব পালনের সময় জনগণের মৌলিক অধিকার, মানবাধিকার ও আইনের শাসনকে সর্বাধিক গুরুত্ব দিতে পুলিশ সদস্যদের প্রতি আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী জানান, পুলিশে আরো ৫০ হাজার জনবল নিয়োগের সিদ্ধান্তে এরই মধ্যে ৪২ হাজার ২২৫টি পদ সৃষ্টি করা হয়েছে। বর্ধিত জনবলের সঙ্গে যানবাহন ও সরঞ্জাম সরবরাহ করা হচ্ছে।

এ ছাড়া জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাস নির্মূল এবং এই কাজে মদদদাতাদের আইনের আওতায় আনতে কাউন্টার টেররিজম ইউনিট গঠনের প্রক্রিয়া চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, শান্তি, নিরাপত্তা ও শৃঙ্খলার প্রতীক বাংলাদেশ পুলিশকে আইনের রক্ষকের ভূমিকা পালন করতে হবে।

প্রচলিত আইন, সততা ও নৈতিক মূল্যবোধই পুলিশদের পেশাগত দায়িত্ব পালনের পথ প্রদর্শক হবে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, নবীন পুলিশ কর্মকর্তারা অর্জিত জ্ঞান, শৃঙ্খলা, পেশাদারিত্ব, সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে দেশের সার্বিক কল্যাণে নিয়োজিত থাকবেন বলে প্রত্যাশা করেন প্রধানমন্ত্রী ।

রাজশাহীর শারদায় অবস্থিত বাংলাদেশ পুলিশ একাডেমিতে শিক্ষানবিশ সহকারী পুলিশ সুপারদের শিক্ষা সমপানী কুচকাওয়াজে অংশ নিয়ে

অভিবাদন গ্রহণ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

পরে প্রশিক্ষণের সময় বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশেষ পারদর্শিতা দেখানোর জন্য শিক্ষানবিশ সহকারী পুলিশ সুপারদের পুরস্কৃত করেন তিনি।

এ সফরে তিনি এক প্রশিক্ষণ সমাপনী কুচকাওয়াজে যোগদান ও কয়েকটি উন্নয়ন প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।

শারদায় বাংলাদেশ পুলিশ একাডেমিতে শিক্ষানবীস সহকারি পুলিশ সুপারদের সমাপনী কুচকাওয়াজে যোগদানের পর প্রধানমন্ত্রী ১৬টি উন্নয়ন প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন এবং ৬টি প্রকল্পের উদ্বোধন করেন।

১৬টি প্রকল্পের মধ্যে রয়েছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব হাইটেক পার্ক, বিভাগীয় ও জেলা পরিবার পরিকল্পনা ভবন, নদীর তীর রক্ষা বাঁধ, মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্কোয়ার ও রাজশাহী শিশু হাসপাতাল।

প্রধানমন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সভাপতি বিকেলে রাজশাহী চিনিকল খেলার মাঠে এক জনসভায় ভাষণ দেবেন।

রাজশাহী সিটি করপোরেশন প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানাতে ব্যাপক কর্মসূচি নিয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীর সফর উপলক্ষে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ও যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক রাখার পূর্ণ ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে বলে জানান আরএমপি কমিশনার মাহবুবুর রহমান।

এই ক্যাটাগরীর আরও খবর

তাজরীন ফ্যাশনসে অগ্নিকাণ্ডের পাঁচ বছর, পুনর্বাসনের দাবি আহতদের

চট্টগ্রাম বন্দরে নিয়োগ নিয়ে চলছে বিতর্ক-সমালোচনা

দিনাজপুরে ২য় দিনের মতো পরিবহন ধর্মঘট চলছে

কালিয়াকৈরে রেলক্রসিংয়ে বিকল ট্রাক, প্রাণ গেল ট্রেন চালকের

থামেনি রোহিঙ্গাদের ঢল

বিএনপি নির্বাচনে কত আসন পাবে—প্রশ্নে সংশয় ওবায়দুল কাদের