শনিবার, ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ (১৮:২৮)

দুর্গতিনাশিনী দেবী দুর্গাকে বিসর্জনে ভক্তদের মাঝে একদিকে আনন্দ অন্যদিকে বেদনা

দুর্গতিনাশিনী দেবী দুর্গাকে বিসর্জনে ভক্তদের মাঝে একদিকে আনন্দ অন্যদিকে বেদনা

প্রতিমা বিসর্জনের মধ্যদিয়ে আজ- শনিবার শেষ হলো বাঙালি সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা।

দুর্গতিনাশিনী দেবী দুর্গাকে বিসর্জনে ভক্তদের মাঝে একদিকে আনন্দ অন্যদিকে বেদনা।

বিজয়া দশমীর সকালে ছিল পূজা সমাপণ ও দর্পন বির্সজন। একই সঙ্গে ভক্তরা মেতে ওঠেন সিঁদুর খেলায়। দেবী বিপুল আড়ম্বরে যেমন মর্ত্যে এসেছিলেন তেমনি কোটি ভক্তের ভক্তিসিক্ত হয়ে ফিরে যান কৈলাসে।

মণ্ডপে মণ্ডপে ঢাক, কাসর, ঘণ্টা, শঙ্খ, আর উলুধ্বনিতে বিদায়ের সুর বেজে উঠে। দেবী দুর্গার বিদায়ে যুগপৎ আনন্দ-বিষাদের আবহ।

বিজয়া দশমীর সকালেই আবশ্যিক আচার-অনুষ্ঠান সেরে নেন পুরোহিতগণ। এরপরই শুরু করেন দশমী বিহিত পূজা।

১০ দিন আগে মহালয়ার পুণ্য তিথিতে দেবীকে মর্ত্যে আবাহনের মাধ্যমে যে উৎসবের সূচনা হয়েছিল, শনিবার সকালে বিজয়া দশমীতে ‘বিহিত পূজা আর ‘দর্পণ বিসর্জনে’ দুর্গা পূজার শাস্ত্রীয় সমাপ্তি হয়।

বিকেলে হয় প্রতিমা বিসর্জন। পিতৃগৃহ ছেড়ে আনন্দময়ী মা ফিরে যান ‘কৈলাসের দেবালয়ে’।

ঢাকেশ্বরী মন্দিরের প্রধান পুরোহিত রঞ্জিত চক্রবর্তী বলেন, জগজ্জননী দেবী দুর্গার কাছে আশির্বাদ চেয়েছি তিনি যেন এবার ধরণীকে সুজলা সুফলা শস্য শ্যামলা করে তোলেন। সব অন্যায়ের হাত থেকে ধরণীকে পরিত্রাণ করেন।

মনের ভেতরের অসুরকে বধ করে সেখানে সুরশক্তি প্রতিষ্ঠা হোক এমন প্রার্থনার পাশাপাশি মা চলে গেলেও যেন তার আর্শিবাদ সবার ওপর থাকে এমন কামনাও ব্যক্ত করেন ঢাকাশ্বেরী মন্দিরের প্রধান পুরোহিত।

পূজা সমাপন ও দর্পন-বিসর্জনের পরই অনুষ্ঠিত হয় ঘট-বিসর্জন।

এরপরই মায়ের চরণে সিঁদুর পরিয়ে দেয়া। পরস্পরকে সিঁদুর পরিয়ে দেয়ার মধ্য দিয়ে সিঁদুর খেলায় মেতে ওঠেন ভক্তরা।

পাঁচ দিনের উৎসব আনন্দের সমারোহ। অশুভ শক্তির বিনাশে যে মঙ্গলবার্তা নিয়ে দেবী দুর্গার আগমন, দশমীর আনুষ্ঠানিকতা শেষে তার বিদায়। প্রতিমা বিসর্জনপর্ব তাই আনন্দ-অশ্রুর সম্মিলন।

দুর্গতিনাশিনী এবার এসেছিলেন নৌকায় চড়ে, জগতের মঙ্গল কামনায় ফিরে যাচ্ছেন ঘোড়ায় চড়ে। প্রতিমা বিসর্জনের মধ্যদিয়ে সমাপ্তি ঘটে এবারের দুর্গোৎসবের।

সকালে ধর্মীয় আচার অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে নাটোরে দশমী পূজা শেষ হয়। দর্পন বিসর্জনের পর শান্তি জল গ্রহণের মধ্য দিয়ে শেষ হয় দশমী পূজা। শেষ সময়ে নড়াইলের মণ্ডপগুলোতে ভীড় করছেন ভক্তরা। পূজা অর্চনা, অঞ্জলী, দর্পন বিসর্জন আর সিঁদুর খেলার মধ্য দিয়ে ধামরাই, রাজবাড়িসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় দশমী পূজা অনুষ্ঠিত হয়।

এই ক্যাটাগরীর আরও খবর

নতুন প্রজন্মকে মননশীল সংস্কৃতির ধারায় এগিয়ে আসার আহ্বান, ভাষা সৈনিক নিখিল সেনের

সত্য, ন্যায় ও জ্ঞানের প্রতীক দেবী স্বরস্বতী

বিশ্ব শান্তি কামনা করে বিশ্ব ইজতেমার প্রথমপর্ব সম্পন্ন

টেলিভিশন- বেতার মুক্ত হয় ১৭ ডিসেম্বর

অবহেলায় পরিণত হয়েছে বেলতলী বধ্যভূমি

শুরু হয়েছে বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের প্রবারণা উৎসব

মহাঅষ্টমী: মণ্ডপে মণ্ডপে হয়ে গেল কুমারি পূজা

মহাসপ্তমী: ঢাকের বাদ্য-শঙ্খ-উলুধ্বনিতে উৎসবমুখর পূজামণ্ডপ

রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে সেনাবাহিনীর হামলা আগে থেকে পরিকল্পিত: অ্যামনেস্টি

অল্প করুক আর বেশিই করুক খালেদা দুর্নীতি করেছে: মেনন

সুরকার-সংগীত পরিচালক আলী আকবর রুপু না ফেরার দেশে

সমাবেশর অনুমতি নেই, তাই নমনীয় কর্মসূচি বিএনপির