ইসলাম

শনিবার, ১৬ ফেব্রুয়ারী, ২০১৯ (১১:১৪)

মুসলিম উম্মাহর শান্তি কামনায় শেষ হলো আখেরি মোনাজাতের প্রথমপর্ব

আখেরি মোনাজাত

টঙ্গীর তুরাগ নদের তীরে বিশ্ব ইজতেমারায় মুসলিম উম্মাহর শান্তি কামনায় শেষ হলো আখেরি মোনাজাতের প্রথমপর্ব।

দেশ-বিদেশের লাখো মুসুল্লি অংশ নেন এ মোনাজাতে।

এদিকে, বার্ধক্যজনিত কারণে ইজতেমা ময়দানে আরো দুই মুসুল্লির মৃত্যু হয়েছে।

ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে সকাল সাড়ে ১০টায় আখেরি মোনাজাত শুরু হয়ে চলে সকাল ১১টা পর্যন্ত।

মোনাজাত পরিচালনা করেন বাংলাদেশের কাকরাইল মসজিদের ইমাম মাওলানা হাফেজ মোহাম্মদ জোবায়ের। সকাল থেকেই দেশ-বিদেশ থেকে ইজতেমায় আগত মুসুল্লিদের উদ্দেশে দিক নির্দেশনামূলক হেদায়াতী বয়ান করা হয়।

মোনাজাত উপলক্ষে তুরাগ নদের তীরে লাখো মানুষের ঢল নামে। মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ থাকায় ভোর থেকেই সবাই পায়ে হেঁটে ইজতেমাস্থলে আসেন।

ময়দানের বাইরে অবস্থানকারী মুসুল্লি ও পথচারীদের মোনাজাতে শরীক করতে ময়দানের বাইরে আশপাশের এলাকায় শতাধিক মাইকের সংযোগ দেয়া হয়েছে।

মাওলানা জোবায়ের পন্থীদের আখেরি মোনাজাতের পর, মাওলানা ওয়াসেকুল ইসলামের অনুসারিরা ইজতেমা মাঠে প্রবেশ করবেন।

ইজতেমা ময়দানে অপ্রীতিকর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ১৬ হাজার সদস্য কাজ করছেন।

গতকাল ফজরের নামাজের পর আমবয়ানের মধ্য দিয়ে টঙ্গীর তুরাগ তীরে শুরু হয়েছে চার দিনের বিশ্ব ইজতেমা। মুসল্লিদের পদচারণায় মুখরিত ইজতেমা ময়দান ও এর আশপাশের এলাকা। শুক্রবার দুপুরে দেশি বিদেশি মুসল্লিদের অংশগ্রহণে সেখানে অনুষ্ঠিত হয় বৃহত্তম জুম্মার নামাজ।

ইজতেমা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে পর্যাপ্ত ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে প্রশাসন। ইজতেমায় গত দুই দিনে বার্ধক্যজনিত কারণে চারজনের মৃত্যু হয়েছে।

এছাড়া গ্যাস সিলিন্ডার থেকে প্যান্ডেলের চড়ে আগুন লেগে যাওয়ায় আতঙ্কে হুড়োহুড়ি করতে গিয়ে অনেকে আহত হয়েছেন। তবে কেউ গুরুতর আহত হননি।

মুসল্লিদের পদচারণায় মুখরিত টঙ্গীর ইজতেমা ময়দান। ঈমান, আমলসহ ৬টি উসুল নিয়ে খিত্তায় খিত্তায় চলছে ধর্মীয় আলোচনা। চলছে বয়ান, জিকির, তালিম আর মাশোয়ারা।

ফজরের নামাজের পরপরই আমবয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হয় ৫৪তম বিশ্ব ইজতেমার মূল আনুষ্ঠানিকতা। পাকিস্তানের মাওলানা জিয়াউল হকের আমবয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হয় তাবলীগ জামায়েত অনুসারীদের এবারের বিশ্ব ইজতেমা। বাংলায় তরজমা করেন বাংলাদেশের নুরুর রহমান।

ময়দানে বিদেশি মুসল্লিরাও আছেন। তবে তাবলীগ জামায়েতের তারিখ পরিবর্তন ও ভিসা জটিলতায় এবার অনেক দেশের মুসল্লি ইজতেমায় যোগ দিতে পারেননি বলে জানিয়েছেন শীর্ষ মুরব্বিরা।

দেশের ৬৪ জেলার মুসল্লিরা ৫০টি খিত্তায় বিভক্ত হয়ে ময়দানে অবস্থান নিয়েছেন। ইজতেমার সার্বিক ব্যবস্থাপনা ভালো থাকায় সন্তোষ প্রকাশ করেছেন তারা।

ইজতেমা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে নেয়া হয়েছে পাঁচ স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা। আকাশ, নৌ, স্থলপথে নজরদারি ছাড়াও ইজতেমায় প্রবেশের প্রতিটি পয়েন্টে বসানো হয়েছে ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা। নিরাপত্তায় থাকছে ১৬ হাজার আইনশৃঙ্খলাবাহিনীর সদস্য। মাঠের ভেতর যেকোনো ধরনের অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে সাদা পোশাকে রয়েছে আইনশৃঙ্খলাবাহিনী।

এবার ৬৪ জেলার মুসল্লিদের অংশগ্রহণে ইজতেমায় দুইবার হচ্ছে আখেরী মোনাজাত হচ্ছে। জোবায়েরপন্থী ওলামা মাশায়েখ ও সাদপন্থী ওয়াসেকুল ইসলামের দুইগ্রুপের সমঝোতার ভিত্তিতে এবার ৪ দিনের বিশ্ব ইজতেমায় হচ্ছে।

১০টি শর্ত নিয়ে প্রথম দুই দিন জোবায়ের অনুসারী এবং পরের দুই দিন ওয়াসেকুল ইসলামের অনুসারীরা ইজতেমায় অংশ নেবেন।

ইউটিউবে দেশ টেলিভিশনের জনপ্রিয় সব নাটক ও অনুষ্ঠান দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Desh TV YouTube Channel

এছাড়াও রয়েছে

মুসলিম উম্মাহ'র শান্তি-কল্যাণ কামনায় শেষ হলো বিশ্ব ইজতেমা

২য় পর্বের আখরি মোনাজাত মঙ্গলবার

সাদপন্থীদের দুই দিনের বিশ্ব ইজতেমা শুরু

উগ্র জাতীয়তাবাদ-ধর্মান্ধতা মানবতাবিরোধী: মোজাম্মল হক

আম বয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু বিশ্ব ইজতেমা

বিশ্ব ইজতেমা: শুক্রবার আমবায়ানের মধ্যদিয়ে শুরু মূল আনুষ্ঠানিকতা

মডেল মসজিদ নির্মাণে চুক্তি স্বাক্ষর

ধর্ম পালনের নিশ্চয়তায় কাজ করে যাবে আ.লীগ

সর্বশেষ খবর

নির্বাচনের অনিয়ম ঠেকাতে কঠোর অবস্থানে কমিশন: হেলালুদ্দীন

তামাকের ওপর ৬৫% সম্পূরক শুল্ক আরোপের সুপারিশ

রাঙামাটিতে আ'লীগ নেতা সুরেশ হত্যায় মামলা, আটক ১

যারা ভিন্নমত সইতে পারে না তারা করবে গণতন্ত্র চর্চা: ফখরুল