আন্তর্জাতিক

বুধবার, ১৬ মে, ২০১৮ (১২:১১)
জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে

ফিলিস্তিন ইস্যুতে জাতিসংঘের জরুরি বৈঠক ব্যর্থ

জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠক ব্যর্থ

ফিলিস্তিন ইস্যুতে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের জরুরি অধিবেশন মঙ্গলবার কোনো ফলাফল ছাড়াই শেষ হয়েছে। উপরন্তু, আমেরিকার একক বিরোধিতার কারণে সোমবারের গাজা গণহত্যার ব্যাপারে নিরপেক্ষ তদন্তও আটকে দিয়েছে।

কুয়েতের আহ্বানে নিরাপত্তা পরিষদের ফিলিস্তিন বিষয়ক জরুরি এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

মঙ্গলবার জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের জরুরি বৈঠকে আমেরিকার বন্ধু ও শত্রু মিলে প্রায় সবগুলো সদস্যদেশ বায়তুল মুকাদ্দাসে মার্কিন দূতাবাস স্থানান্তরের বিরোধিতা করে। তবে বৈঠকে মূলত গাজায় সোমবারের ইসরাইলি গণহত্যা নিয়ে আলোচনা হয়।

বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূতেরা যুক্ত বিবৃতিতে নিরস্ত্র বেসামরিক নাগরিকদের বিরুদ্ধে তাজা গুলি ব্যবহারের ব্যাপারে ইসরাইলকে আরো বেশি সাবধান হওয়ার আহবান জানান।

বৈঠকে জাতিসংঘের মধ্যপ্রাচ্য বিষয়ক সমন্বয়ক নিকোলাই ম্লাদেনোভ গাজা উপত্যকায় আহত ফিলিস্তিনিদের চিকিৎসার জন্য এ উপত্যকা থেকে বাইরে যাওয়ার অনুমতি দিতে মিশর ও ইসরাইলের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

বৈঠকে কুয়েতের রাষ্ট্রদূত ফিলিস্তিনি জনগণের ওপর ইসরাইলের নির্বিচার গুলিবর্ষণের নিন্দা জানান এবং এ হামলাকে আন্তর্জাতিক আইনের সুস্পষ্ট লঙ্ঘন বলে উল্লেখ করেছেন।

কিন্তু মার্কিন রাষ্ট্রদূত নিকি হ্যালি ফিলিস্তিনি জনগণের ওপর ইসরাইলি সেনাদের ভয়াবহ গণত্যার প্রতি সমর্থন জানিয়ে বলেন, সোমবারের ‘সহিংসতা’র জন্য গাজা নিয়ন্ত্রকারী হামাসই দায়ী।

শেষ পর্যন্ত বৈঠকটি ইসরাইলের বিরুদ্ধে কোন নিন্দা প্রস্তাব গ্রহণ করা ছাড়াই শেষ হয়।

অধিকৃত বায়তুল মুকাদ্দাস শহরে মার্কিন দূতাবাস খোলার প্রতিবাদে সোমবার গাজা উপত্যকায় বিক্ষোভকারী ফিলিস্তিনিদের ওপর নির্বিচারে গুলি চালায় ইহুদিবাদী সেনারা। এতে অন্ত ৫৮ ফিলিস্তিনি শহীদ ও দুই হাজারের বেশি মানুষ আহত হয়।

এছাড়াও রয়েছে

মালয়েশিয়ার বিমানে গুলি করার অভিযোগ অস্বীকার করল রাশিয়া

বাঁচতে চাইলে মাদক ব্যবসায়ীদের কারাগারে থাকতে বলেছেন দুতার্তে

কিমের সঙ্গে নির্ধারিত বৈঠক বাতিলের ঘোষণা ট্রাম্পের

কানাডায় ভারতীয় রেস্তোরাঁয় বোমা হামলা, আহত ১৫

পরমাণু চুক্তিতে নতুন কিছু শর্ত আলী খামেনির

যুক্তরাষ্ট্রে নিযুক্ত ভেনিজুয়েলান দুই কূটনীতিক বহিষ্কার

পারমাণবিক অস্ত্র পরীক্ষা কেন্দ্রের সুড়ঙ্গ ধ্বংস করল উ. কোরিয়া

যুক্তরাষ্ট্রে প্রথম নারী কৃষ্ণাঙ্গ গভর্নর হওয়ার পথে অনেকটা এগুলেন স্টেসি

শান্তি নিকেতনে হাসিনা-মোদি বৈঠক

সরকারের মাদকবিরোধী অভিযান রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণোদিত: মির্জা ফখরুল

রাশিয়ার হিউনদাই মোটরস্টুডিতেও বিশাল প্রদর্শনী আয়োজন করছে ফিফা

সালাহর চেয়ে আমি একদমই আলাদা: রোনলদো