আন্তর্জাতিক

শনিবার, ০৩ মার্চ, ২০১৮ (১২:২৯)

সিরিয়ায় বিমান হামলায় গত ১৩ দিনে ৬৭৪ জনের প্রাণহানী

সিরিয়ায় বিমান হামলায় গত ১৩ দিনে ৬৭৪ জনের প্রাণহানী

সিরিয়ার রাজধানী দামেস্কের পূর্ব ঘৌটায় সরকারি বাহিনীর অব্যাহত বিমান হামলায় গত ১৩ দিনে ৬৭৪ জন বেসামরিক লোক নিহত হয়েছেন।

সিরিয়ার একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন এ তথ্য প্রকাশ করেছে।

তাদের মধ্যে বিপুল সংখ্যক নারী ও শিশু রয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে। খবর আল জাজিরার।

‘হোয়াইট হেলমেট’ নামে পরিচিত সিরিয়ার সিভিল ডিফেন্স শুক্রবার জানিয়েছে, রাশিয়ার সহায়তায় গত ১৮ ফেব্রুয়ারি থেকে রাজধানী দামেস্কের আশপাশে সরকারি বাহিনী বিমান হামলা শুরুর পর থেকে এ পর্যন্ত ৬৭০ জনেরও বেশি নিহত হয়েছেন।

উল্লেখ, ২০১৩ সালে দামেস্কের পূর্ব ঘৌটা বিদ্রোহী গ্রুপের নিয়ন্ত্রণে যাওয়ায় এখানকার প্রায় ৪ লাখ মানুষকে ঘিরে রেখেছে সরকারি বাহিনী। গত শনিবার জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে ৩০ দিনের অস্ত্রবিরতির প্রস্তাব পাস হয়। কিন্তু তা আমলে নিচ্ছে না সরকারি বাহিনী।

বেসামরিক লোকদের ওপর একের পর এক হামলা অব্যাহত রয়েছে।

চার হাজার সদস্যের স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা হোয়াইট হেলমেটের সদস্য মাহমুদ আদম আল জাজিরাকে জানায়, তথাকথিত এই অস্ত্রবিরতির প্রস্তাব ঘোষণার পর এখন পর্যন্ত ১০৩ জন বেসামরিক মানুষকে হত্যা করেছে সরকারি বাহিনী। নিহতদের মধ্যে ২২ জন শিশু ও ৪৩ জন নারী রয়েছে।

মাহমুদ আদম আরও জানান, পূর্ব ঘৌটায় বেসামরিক লোকদের ঘরবাড়ি লক্ষ্য করে রাশিয়া-সিরিয়া জোটের বিমান হামলা অব্যাহত রয়েছে। বেসমারিক লোকরা সবসময় আতঙ্কে দিন পার করছেন।

 

ইউটিউবে দেশ টেলিভিশনের জনপ্রিয় সব নাটক ও অনুষ্ঠান দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Desh TV YouTube Channel

এছাড়াও রয়েছে

চুক্তির পরও উত্তর কোরিয়ার উপরে নিষেধাজ্ঞা বাড়াল আমেরিকা

ইন্দোনেশিয়ায় ধর্মীয় নেতার মৃত্যুদণ্ড

রোহিঙ্গা বিতাড়ন: মিয়ানমারের বক্তব্য জানতে চায় আইসিসি

মার্কিন পণ্যে শুল্ক আরোপ করেছে ইইউ

মা হলেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী

অভিবাসন নীতি থেকে সরে দাঁড়ালেন ট্রাম্প

আফগানিস্তানে ৩০ সেনা সদস্যকে হত্যা করেছে জঙ্গিরা

ইন্দোনেশিয়ার টোবা হ্রদে ফেরি ডুবে ১৮০ জন নিখোঁজ

তামাকে কর: বাজেট প্রস্তাবনায় বিন্দুমাত্র প্রতিফলিত হয়নি

ছুটি শেষে আবারো খালেদার মামলার কার্যক্রম শুরু হচ্ছে

জাতীয় নির্বাচন বানচাল করতে পারে আ’লীগ: মওদুদ

বাঙালির যা কিছু অর্জন তা আ’লীগের সময়ই: শেখ হাসিনা