আন্তর্জাতিক

ksrm

বুধবার, ১৪ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮ (১৩:২১)

রাখাইনের পরিস্থিতি উন্নতি না হওয়ায় উদ্বেগ জাতিসংঘের

রোহিঙ্গা নিয়ে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে আলোচনা

বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে প্রত্যাবাসনের ক্ষেত্রে রাখাইনের পরিস্থিতি উন্নতি না হওয়ায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ।

মঙ্গলবারের বৈঠকে জাতিসংঘ শরণার্থী সংস্থার প্রধান ফিলিপ্পো গ্রান্ডি বলেন, রাখাইনের পরিস্থিতি এখনো রোহিঙ্গাদের ফিরে যাওয়ার জন্য অনুকূল নয়।

মার্কিন রাষ্ট্রদূত নিকি হ্যালি রাখাইনে রোহিঙ্গা নিধনের জন্য মিয়ানমারের সেনাবাহিনীকে দোষী সাব্যস্ত করার আহ্বান জানিয়েছেন।

রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে আবারো আলোচনা হয়েছে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে। এতে রাখাইনে সেনাবাহিনীর জাতিগত নিধনযজ্ঞের সমালোচনা করা হয়। প্রায় ৬ লাখ ৯০ হাজার রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দেওয়ায় বাংলাদেশের প্রশংসা করে নিরাপত্তা পরিষদ বলেছে, আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় বাংলাদেশের পাশে আছে।

জাতিসংঘ শরণার্থী সংস্থা-ইউএনএইচসিআরের প্রধান ফিলিপ্পো গ্রান্ডি জেনেভা থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বৈঠকে যোগ দিয়ে বলেন, রাখাইনের পরিস্থিতি এখনো রোহিঙ্গাদের ফিরে যাওয়ার জন্য অনুকূল নয়। পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের জন্য বাংলাদেশ ও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় যথাসম্ভব ব্যবস্থা নিলেও তা যথেষ্ট নয়।

রোহিঙ্গাদের নিরাপদ ও সম্মানজনক প্রত্যাবাসনের ওপর গুরুত্বারোপ করে গ্রান্ডি বলন, কখন তারা ফিরে যেবে, এই সিদ্ধান্ত একমাত্র রোহিঙ্গারাই নেবে। এজন্য রাখাইন পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে মিয়ানমারকেই ব্যবস্থা নিতে হবে।

জাতিসংঘে যুক্তরাষ্ট্রের স্থায়ী প্রতিনিধি নিকি হ্যালি বলেন, রাখাইনে কী ঘটছে তা আড়াল করতে মিয়ানমার আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের প্রতিনিধিদের প্রবেশাধিকার নিয়ন্ত্রণ করছে। রোহিঙ্গা নিধনের জন্য মিয়ানমারের সেনাবাহিনীকে দায়ী করারও আহ্বান জানান তিনি।

তবে চীনের স্থায়ী প্রতিনিধি মা ঝাওজু বলেন, দিন দিন রাখাইনের পরিস্থিতির উন্নতি হচ্ছে। তবে রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠানোর মতো অনুকূল পরিবেশ তৈরি হওয়ার আগ পর্যন্ত বাংলাদেশকে ধৈর্য ধরতে বলেন তিনি।

একই সুরে রাশিয়ার উপ-স্থায়ী প্রতিনিধি ইউজেনি জাগাইনভ বলেন, যারা রাখাইনের ঘটনাবলীকে বিশেষ হিসেবে অভিহিত করে পরস্পরবিরোধী প্রতিবেদন প্রকাশ করছে, তারা সমস্যার সমাধান শুধু বিলম্বিতই করছে।

রাখাইন পরিস্থিতির উন্নতির লক্ষ্যে ইতিমধ্যে গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নেওয় হয়েছে বলে উল্লেখ করেন মিয়ানমারের প্রতিনিধি। আর জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি মাসুদ বিন মোমেন বলেন, রাখাইনে সহিংসতা অব্যাহত থাকায় এখনো সেখান থেকে প্রতিদিন রোহিঙ্গারা পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিচ্ছে।

 

ইউটিউবে দেশ টেলিভিশনের জনপ্রিয় সব নাটক ও অনুষ্ঠান দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Desh TV YouTube Channel

এছাড়াও রয়েছে

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন নির্ভর করছে বাংলাদেশের ওপর: সুচি

মক্কার গ্র্যান্ড মসজিদের ইমাম তালিব গ্রেপ্তার

সীমান্তে সেনাবাহিনী-পুলিশ বাড়িয়েছে মিয়ানমার

নাইজেরিয়ায় জঙ্গি হামলায় নিহত ১৯

কেরালায় বন্যা-ভূমিধসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৩৫৭ জনে

হজ পালনের অনুমতি পায়নি কাতারের নাগরিক

রোহিঙ্গা নির্যাতন: মার্কিন নিষেধাজ্ঞায় মিয়ানমারের দুটো সামরিক ইউনিট

পাক প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিলেন ইমরান খান

ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময়ে রাষ্ট্রপতি

বিএনপি জ্বালাও পোড়াও করলে দাঁতভাঙা জবাব: কাদের

জাতীয় ঈদগাহে ঈদুল আজহার প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত

প্রধানমন্ত্রীর ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময়