কাতারবিরোধী অবরোধে উদ্বেগ রাশিয়ার

রবিবার, ১১ জুন, ২০১৭ (১৪:০২)
কাতারবিরোধী-অবরোধে-উদ্বেগ-রাশিয়ার

কাতার

কাতারের বিরুদ্ধে সৌদি আরবের নেতৃত্বে মধ্যপ্রাচ্যের কয়েকটি দেশের স্থল, নৌ ও বিমান অবরোধে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে রাশিয়া। চলমান সঙ্কট নিরসনে সংশ্লিষ্ট পক্ষগুলোকে আলোচনায় বসার আহ্বান জানিয়েছেন রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী। তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান, কাতারের ওপর থেকে সব ধরণের অবরোধ তুলে নিতে সৌদি আরবের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

এদিকে, কাতারি নাগরিকদের মক্কার মসজিদ আল-হারামে ঢুকতে না দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনাকে মানুষের ধর্মচর্চার অধিকারের চরম লঙ্ঘন বলে অভিহিত করেছে দেশটির মানবাধিকার সংগঠন এনএইচআরসি।

উপসাগরীয় এলাকায় অস্থিতিশীলতা সৃষ্টি ও জঙ্গিবাদে সমর্থনের অভিযোগ তুলে গত সপ্তাহে কাতারের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করে সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত, বাহরাইন, মিশর, লিবিয়া, মালদ্বীপ, মরিশাস, মৌরিতানিয়া ও সেনেগাল।

এরইমধ্যে স্থল, নৌ, ও আকাশ পথে সব ধরনের যোগাযোগ বন্ধ করে দিয়েছে মধ্যপ্রাচ্যের কয়েকটি দেশ। ফলে কাতার এয়ারওয়েজ, ইতিহাদ এয়ারওয়েজ ও এমিরেটসের মতো এয়ারলাইন্সগুলোকে বড় ধরনের বিশৃঙ্খলার মধ্যে পড়তে হয়েছে।

এ পরিস্থিতিতে উদ্বেগ প্রকাশ করে রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ চলমান সঙ্কট নিরসনে সংশ্লিষ্ট সবাইকে আলোচনায় বসার আহ্বান জানিয়েছেন। শনিবার মস্কোতে কাতারি পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের পর ল্যাভরভ বলেন, বিবদমান পক্ষগুলো আগ্রহী হলে তাদের সম্মতিতে সংকট নিরসনে মধ্যস্থতা করতে প্রস্তুত রাশিয়া।

শুক্রবার আবর দেশগুলো কাতারের ৫২ ব্যক্তি ও ১২ প্রতিষ্ঠান 'সন্ত্রাসীদের সমর্থক' হিসেবে চিহ্নিত তাদের কালো তালিকাভুক্ত করেছে, এতে সঙ্কট আরো জটিল হয়ে উঠেছে। এই পরিস্থিতিতে কাতারের পাশে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়ে মিত্র দেশ তুরস্ক দেশটিতে সেনা পাঠানোর বিষয়টি অনুমোদন দিয়েছে।

ইস্তাম্বুলে এক অনুষ্ঠানে তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান কাতারের ওপর থেকে অবরোধ তুলে নিতে সৌদি আরবের প্রতি আহ্বান জানান। দোহাকে একঘরে করে রেখে আঞ্চলিক সমস্যার কোনো সমাধান হবে না উল্লেখ করে সংকট নিরসনে সব ধরনের সহায়তার আশ্বাস দেন তিনি।

আর সন্ত্রাসের শীর্ষ মদদদাতা হিসেবে কাতারকে অভিযুক্ত করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, সৌদি আরবে তার সাম্প্রতিক সফরের সময় এক সম্মেলনে আরব নেতাদের সঙ্গে কাতারের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেওয়ার পরিকল্পনাটি গ্রহণে তিনি সহায়তা করেন।

এদিকে, কাতারের নাগরিকদের মক্কার মসজিদ আল-হারামে ঢুকতে না দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনাকে আন্তর্জাতিক মানবাধিকারনীতি অনুসারে মানুষের ধর্মচর্চার অধিকারের চরম লঙ্ঘন বলে অভিহিত করেছে দেশটির মানবাধিকার সংগঠন ন্যাশনাল হিউম্যান রাইটস কমিশন।

এই ক্যাটাগরীর আরও খবর

জানু-পিএফ পার্টির পক্ষ থেকে মুগাবের পদত্যাগের আহ্বান

রাখাইন নাগরিকরা চাইলেই রোহিঙ্গারা ফিরতে পারবে: দেশটির সেনাপ্রধান

সেনা হস্তক্ষেপের মুখে ক্ষমতা ছাড়তে অস্বীকৃতি: জিম্বাবুয়ের প্রেসিডেন্ট

রাখাইন নাগরিকরা মেনে নিলে রোহিঙ্গারা ফিরতে পারবে: মিয়ানমার সেনাপ্রধান

জিম্বাবুয়ের ঘটনাকে সেনা অভ্যুত্থান বলছে আফ্রিকান ইউনিয়ন

নাইজেরিয়ায় আত্মঘাতী বোমা হামলা নিহত ১০