স্বাস্থ্য

রবিবার, ০৭ জানুয়ারী, ২০১৮ (১৮:১২)

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে চট্টগ্রামে অবশেষে চিকিৎসা মিলল সাবেক সাংসদের

বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. ইউসুফ

ছাত্র আন্দোলন থেকে শুরু করে সারাজীবন গণমানুষের রাজনীতিতে নিবেদিতপ্রাণ বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. ইউসুফ দেড় দশক ধরে প্রায় বিনা চিকিৎসায় শয্যাশায়ী হয়ে থাকলেও রাষ্ট্রের কাছে শুধু অবহেলাই পেয়েছেন।

ফেসবুকের খবর পৌঁছে যায় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে—প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে টনক নড়ে চট্টগ্রামের স্থানীয় প্রশাসনের।

চট্টগ্রামের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মাসুকুর রহমান সিকদার প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার কথা জানিয়ে সিভিল সার্জনকে সাবেক সংসদ সদস্যের চিকিৎসার বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বলেন।

রোববার সকালে চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. আজিজুর রহমান সিদ্দিকী দুটি অ্যাম্বুলেন্স এবং তিনজন চিকিৎসক নিয়ে রাঙ্গুনিয়ায় মোহাম্মদ ইউসুফের বাড়িতে যান। অসুস্থ ইউসুফকে এনে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

জানতে চাইলে সিভিল সার্জন বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সাবেক সংসদ সদস্য মোহাম্মদ ইউসুফের সুচিকিৎসার নির্দেশ দিয়েছেন। সব ধরনের খরচ সরকার বহন করবে।

বার্ধক্যজনিত বিভিন্ন অসুখ আছে— আগে তিনি ব্রেইন স্ট্রোক করেছিলেন, আমরা বিশেষজ্ঞ টিম গঠন করছি- হাসপাতালে উনার জন্য কেবিন বরাদ্দ দেয়া হয়েছে প্রয়োজনে উনাকে ঢাকায় নেয়া হবে।

তবে দেরিতে হলেও সাবেক সংসদ সদস্য ইউসুফের জন্য যথাযথ চিকিৎসার ব্যবস্থা করার নির্দেশ স্বস্তি মিলেছে জনমনে।

চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া আসনের সাবেক এ সংসদ সদস্য গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় শয্যাশায়ী দিনযাপন করেন।

মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে মো. ইউসুফ মাসিক ভাতা পেলেও রাষ্ট্রীয়ভাবে তার চিকিৎসার কোনো খোঁজ নেয়া হয়নি বলে আক্ষেপ প্রকাশ করেছেন তার রাজনৈতিক সহকর্মীরা।

ছোট একটি চায়ের দোকানের উপার্জন দিয়ে পরিবারের ব্যয় নির্বাহের পাশাপাশি ১৭ বছর ধরে বড় ভাইয়ের দেখাশোনা করছেন মো. সেকান্দর।

গত ২০০১ সালে মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণজনিত কারণে চলৎশক্তি ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার পর থেকে রাঙ্গুনিয়া পৌর সদরের কলেজ রোডে ভাইয়ের বাসায় শয্যাশায়ী হয়ে রয়েছেন। সবশেষ সপ্তাহখানেক আগে হাঁটাচলার শক্তি একেবারেই হারিয়েছেন তিনি।

কলেজ রোডের একটি দুই তলা ভবনের নিচতলায় একটি তিন কক্ষের ছোট বাসা ভাড়া নিয়ে থাকেন সেকান্দর। ওই বাসার একটি কক্ষে ইউসুফ থাকেন।

শনিবার বিকালে সেখানে গিয়ে দেখা যায়, কক্ষটিতে ছোট একটি চৌকির মধ্যে নির্বাক শুয়ে আছেন তিনি।

তাকে দেখতে আসা মুক্তিযোদ্ধা কাজী নুরুল আবছার কমকে বলেন, উনার অবস্থা দেখে আমার খুব কষ্ট হচ্ছে। একজন সম্মুখসমরের সাহসী যোদ্ধা আজ বিনা চিকিৎসায় আছেন। ওনার এই পরিণতি দেখে কোনো স্বচ্ছ ও সৎ রাজনৈতিক নেতাকর্মী সৃষ্টি হবে না।

তিনি আরো বলেন, ইউসুফ সারাজীবন শ্রমিক আর গরিব মানুষের সাথে রাজনীতি করেছেন। ২০০১ সালে ব্রেইন স্ট্রোক করার পর থেকেই অসুস্থ।

মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে মাসিক ভাতা পান জানিয়ে সেকান্দর বলেন, আমি ছোট একটা চা দোকান করি। অর্থাভাবে দীর্ঘদিন ভালোমতো চিকিৎসা করাতে পারছি না।

তিন ভাই-তিন বোনের মধ্যে সবার বড় ইউসুফ সারাজীবন ছিলেন রাজনীতি অন্তঃপ্রাণ, বিয়ে করেননি তিনি।

রাঙ্গুনিয়া থানা ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি থাকার সময় ১৯৬৯-৭০ সালে রাঙ্গুনিয়া কলেজ ছাত্র সংসদের সহ-সভাপতি (ভিপি) ছিলেন।

স্বাধীনতার পর শ্রমিক রাজনীতিতে যুক্ত হওয়ার পর ১৯৭৪-৭৫ মেয়াদে দাউদ-ফোরাত জুটমিলে সিবিএ সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।

বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) রাঙ্গুনিয়া থানার সাবেক সভাপতি ইউসুফ জেলা কমিটির সদস্য এবং উত্তর জেলা কমিটির সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্যও ছিলেন।

১৯৯১ সালে আট দলীয় জোটের প্রার্থী হিসেবে নৌকা প্রতীক নিয়ে চট্টগ্রাম-৭ আসনে নির্বাচন করেন মো. ইউসুফ।

বিএনপি প্রার্থীকে পরাজিত করে ৩৪ হাজার ৬১৫ ভোট পেয়ে সাংসদ নির্বাচিত হন তিনি— পরে আওয়ামী লীগে যোগ দেন ইউসুফ।

ইউসুফের মুক্তিযুদ্ধকালীন কমান্ডার ও সিপিবির কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক শাহ আলম কমকে বলেন, উনি অত্যন্ত সাহসী মুক্তিযোদ্ধা ছিলে। একাত্তরের ২৭ অক্টোবর কেলিশহর ভট্টাচার্য্য হাট অপারেশন, ২২ নভেম্বর ধলঘাট রেললাইন উড়িয়ে দেওয়া এবং ৯ ডিসেম্বর গৈরলার টেক অপারেশনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিলেন ইউসুফ।

মুক্তিযোদ্ধা ও সাবেক সাংসদ ইউসুফের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও আলোচনা চলছে।

সাবেক ছাত্রলীগ নেতা সাইফুল্লাহ আনসারী ফেসবুকে লিখেছেন, যেখানে একজন সাবেক এমপির এ অবস্থা সেখানে সাধারণ নিবেদিতপ্রাণ কর্মীদের কি অবস্থা? পুঁজিবাদী রাজনীতির কাছে একজন সৎ আদর্শবান রাজনীতিকের করুণ পরাজয়ের নমুনা মাত্র।

 

ইউটিউবে দেশ টেলিভিশনের জনপ্রিয় সব নাটক ও অনুষ্ঠান দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Desh TV YouTube Channel

এছাড়াও রয়েছে

সিটিস্ক্যান করানো হলো খালেদা জিয়াকে

উত্তরখানে দগ্ধ, মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৫

উত্তরখানে দগ্ধ ৭, একজনের মৃত্যু

আজ খালেদার ফিজিওথেরাপি শুরু হতে পারে

খালেদার শারীরিক সমস্যাগুলো চিহ্নিত: বিএসএমএমইউ

বিএসএমএমইউতে খালেদা জিয়ার চিকিৎসা চলবে

বিএসএমএমইউতে নেয়া হচ্ছে খালেদা জিয়াকে

ক্যান্সার নিয়ে গবেষণায় নোবেল পেলেন দুই বিজ্ঞানী

নির্বাচন একমাস পেছানোর দাবি বিবেচনার আশ্বাস দিয়েছে ইসি

দলীয় প্রার্থীর বিরোধিতা করলেই আজীবনের জন্য বহিষ্কার

নাইকো দুর্নীতি মামলার পরবর্তী শুনানি ৩ জানুয়ারি

নির্বাচন বানচালেই পুলিশের ওপর বিএনপির হামলা: কাদের